• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কোনও প্রশংসাই যথেষ্ট নয়: করোনাযুদ্ধে ‘কৃতজ্ঞতা’ টুইট মমতার

Mamata Banerjee
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছবি: সংগৃহীত।

করোনা বিরোধী যুদ্ধে স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশ এবং আপৎকালীন পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত অন্য সব কর্মীর মনোবল বাড়ানোর চেষ্টা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রবিবার সকালে টুইট করলেন মুখ্যমন্ত্রী। নিজেদের স্বার্থ ভুলে যাঁরা সমাজের হয়ে কাজ করছেন, তাঁদের প্রতি কোনও কৃতজ্ঞতাই যথেষ্ট নয়— লিখেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

রবিবার সকাল ১০টা ৪৮ মিনিট নাগাদ টুইট করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। লম্বা টুইট, তাই দু'ভাগে ভেঙে টুইট করেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী সেখানে লেখেন,‘‘কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে লড়ার এই সময়ে যাঁরা এগিয়ে এসেছেন, সেই সব চিকিৎসক,নার্স, প্যারামেডিক্যাল কর্মী, পুলিশকর্মী, সরকারি কর্মী,জরুরি পরিষেবা কর্মী,সাফাইকর্মী এবং স্বেচ্ছাসেবকদের জন্য আমার হার্দিক কৃতজ্ঞতা এবং প্রশংসা।’’টুইটের দ্বিতীয় অংশে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লিখেছেন, ‘‘এই সময়ে সমাজের স্বার্থরক্ষায় যাঁরা এগিয়ে এসেছেন এবং নিজেদের স্বার্থ বিসর্জন দিয়ে যাঁরা কাজ করছেন, তাঁদের ধন্যবাদ জানানোর জন্য কোনও কথাই যথেষ্ট নয়। তাঁরা সমাজের স্বার্থকে অন্য সব কিছুর ঊর্ধ্বে রাখছেন, যার ফলে তাঁদের অবদান এবং অধ্যবসায় আমাদের সকলের জন্য অনুপ্রেরণা হয়ে উঠছে।’’

করোনা মোকাবিলায় পশ্চিমবঙ্গ সরকারের সক্রিয়তা নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। কখনও হাসপাতালে, কখনও বাজারে, কখনও জনবহুল এলাকায় নিজেই হাজির হয়ে গিয়ে যে ভাবে সাধারণ জনতাকে সচেতন করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, রাজ্যেও তার প্রশংসা হচ্ছে। তবে এ দিন সকালে টুইট করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বোঝানোর চেষ্টা করেছেন, নোভেলকরোনা সংক্রমণ ঠেকাতে তিনি একা লড়ছেন না। লড়ছেন চিকিৎসক, নার্স, প্যারামেডিক্যাল কর্মী, পুলিশকর্মী, সরকারি কর্মী, জরুরি পরিষেবা কর্মী, সাফাইকর্মী এবং স্বেচ্ছাসেবকরাও।

আরও পড়ুন: করোনার দৈব শিকার: স্বয়ং মা শীতলাই লকডাউনে

আরও পড়ুন: ‘ঘরবন্দি থাকবেন না ইটালি হতে দেখবেন’

করোনার মতো ভয়াবহ সঙ্কটে গোটা দেশ গৃহবন্দি। প্রধানমন্ত্রী মোদী রবিবারও 'মন কি বাত' ভাষণে গৃহবন্দি থাকার প্রয়োজনীয়তার কথা মনে করিয়ে দিয়েছেন জোর দিয়ে। কিন্তু রোগটার বিরুদ্ধে লড়ার জন্য তার পরেও রোজ কর্মক্ষেত্রে যেতে হচ্ছে স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশকর্মী, জরুরি পরিষেবা কর্মী-সহ অনেককেই। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তাঁদের এই কাজকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের টুইট স্বীকৃতি দিল। মুখ্যমন্ত্রীর এই টুইট করোনা বিরোধী যোদ্ধাদের মনোবল যোগাবে বলেও মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের অনেকেই।
 

(অভূতপূর্ব পরিস্থিতি। স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিয়ো আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, feedback@abpdigital.in ঠিকানায়। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।)

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন