• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

অণ্ডাল-দিল্লি ভরা বিমান উড়ল নববর্ষে

Flight

আসন মোট ১২২টি। রবিবার, উদ্বোধনের দিন আসা আর যাওয়া, দুই সফরেই সব আসন প্রায় পূর্ণ হয়ে গেল। আর সেই পূর্ণতার বার্তা দিয়েই নববর্ষে অণ্ডালের নজরুল বিমানবন্দর থেকে দ্বিতীয় দফায় চালু হয়ে গেল দিল্লি-দুর্গাপুরের উড়ান।

এ দিন সকাল পৌনে ৮টা নাগাদ ১১৯ জন যাত্রী নিয়ে দুর্গাপুরে নামে এয়ার ইন্ডিয়ার এয়ারবাস-৩১৯। সকাল ৯টা ৫ মিনিটে ১২১ জন যাত্রী নিয়ে বিমানটি দিল্লি উড়ে যায়। আসার পথে তিনটি আসন খালি ছিল। যাওয়ার পথে একটি। সূচনার দিনে দু’পিঠেই প্রায় সব আসন ভর্তি দেখে এয়ার ইন্ডিয়া এবং দুর্গাপুর বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ বেঙ্গল এরোট্রোপলিস প্রাইভেট লিমিটেড (বিএপিএল), দুই তরফই উৎসাহিত।

২০১৫ সালের মে মাসে এক বার দুর্গাপুর থেকে দিল্লির উড়ান চালু হয়েছিল। কিন্তু যাত্রীর অভাবে ২০১৬ সালের জুনে তা গুটিয়ে নেয় এয়ার ইন্ডিয়া। এত দিন পরে আবার উড়ান চালু করে এক পিঠের টিকিট ১৪৪০ টাকাতেও বিক্রি করেছে তারা। যাত্রীদের উৎসাহ দেখে উড়ান সংস্থা খুশি। এই উড়ানের আগামী কয়েক দিনের ৯০ শতাংশ টিকিট বিক্রি হয়ে গিয়েছে। তবে কত দিন এত সস্তায় টিকিট দেওয়া যাবে, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে উড়ানের সূচনার দিনেই।

এ দিন ওই উড়ানে দিল্লি থেকে দুর্গাপুরে আসেন আসানসোলের বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। ছিলেন  বেশি কিছু সরকারি অফিসার এবং অন্যেরা। বাবুল বলেন, ‘‘এত সুন্দর একটি বিমানবন্দর নববর্ষের দিন পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করে আবার চালু হল, এর থেকে ভাল আর কী হতে পারে! দুর্গাপুর থেকে কলকাতাতেও যাতে উড়ান চালু করা যায়, তার জন্য একটি বেসরকারি বিমান সংস্থার সঙ্গে আমাদের আলোচনা চলছে।’’

দুর্গাপুর বিমানবন্দরের পূর্ব-পশ্চিমে বিস্তৃত যে-রানওয়ে রয়েছে, তার পূর্ব প্রান্তে ইনস্ট্রুমেন্টাল ল্যান্ডিং সিস্টেম (আইএলএস) বসানো হয়েছে। দৃশ্যমানতা কম থাকলে বিমানকে নামতে সাহায্য করে ওই যন্ত্র। কিন্তু অণ্ডাল বিমানবন্দরের আইএলএস এখনও চালু করা যায়নি। ওই যন্ত্র কাজ না-করলে কম দৃশ্যমানতায় বিমান নামতে পারে না। তখন তিন কিলোমিটার উপর থেকে রানওয়ে পরিষ্কার দেখতে পেলে তবেই নামতে পারে বিমান।

আরও পড়ুন: 

পাসপোর্ট বিধি শিথিল করায় জোড়া সমস্যা​

বিমানবন্দর-কর্তৃপক্ষ সূত্রের খবর,  অণ্ডাল বিমানবন্দরের রানওয়ের কাছাকাছি কয়লা খনির খোলা মুখ থাকায় সেখানকার আইএলএস কাজ করতে পারছে না। সেই যন্ত্র পরীক্ষা করতে এ দিন বিমানবন্দর-কর্তৃপক্ষের একটি দল এসেছে দিল্লি-দুর্গাপুর উড়ানে। এ দিন ওই বিমানবন্দরে দৃশ্যমানতা ছিল ৩২০০ মিটার। তাই বিমান নামতে পেরেছে। আইএলএস চালু হয়ে গেলে ওই দৃশ্যমানতা ১২০০ মিটার হয়ে গেলেও বিমান নামতে পারবে সহজেই।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন