ওমানের মাসকটে একটি এক্সপ্রেসওয়ের কাজের সঙ্গে যুক্ত শ্রমিকেরা কয়েক মাস ধরে বেতন পাচ্ছেন না। অথচ তা নিয়ে সংশ্লিষ্ট সংস্থার হেলদোল নেই বলে অভিযোগ। বৃহস্পতিবার শেক্সসপিয়র সরণিতে সংস্থার দফতরের সামনে অনশনের হুঁশিয়ারি দিলেন ‘প্রবাসী কামগর পরিষদে’র নেতৃত্ব।

বছর দু’য়েক আগে মাসকটের একটি এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণের জন্য ভারত-বাংলাদেশ-পাকিস্তানের কয়েক হাজার শ্রমিক কাজে যোগ দেন। কিন্তু এখন তাঁদের দেশে পাঠাচ্ছে সংস্থাটি। বর্তমানে মাসকটে আটকে ৫৬ জন ভারতীয় শ্রমিক। তার মধ্যে এ রাজ্যের ২৭ জন। অথচ মাস ছয়েক তাঁরা বেতনহীন। অসুস্থদের চিকিৎসার ব্যবস্থা হচ্ছে না বলে অভিযোগ পরিষদের কো-অর্ডিনেটর শিবপ্রসাদ তিওয়ারির। 

তাই ২০ নভেম্বর শেক্সপিয়র সরণিতে সংস্থার অফিসের সামনে অনশনের হুমকি দেন তিওয়ারি। মাসকটে রয়েছেন বাগদার বাসিন্দা প্রফুল্ল বিশ্বাস। তাঁর স্ত্রী মলিনা বিশ্বাস বসেন, ‘‘পরিবারের একমাত্র উপার্জনকারী বেতন পাচ্ছেন না। সংসার যে কী ভাবে চলছে, তা বোঝানো যাবে না।’’ শেক্সসপিয়র সরণির ওই সংস্থাটির দাবি, ওই কর্মীরা যে সংস্থার কর্মী, সেটিতে তারা সংখ্যালঘু অংশীদার মাত্র। তবু বিষয়টির দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য ওমানের সংস্থাটির সঙ্গে কথা বলা হচ্ছে।