ভূকম্পের জেরে তেমন কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। যদিও মঙ্গলবার এক যুবকের মৃত্যুর কারণ পরোক্ষে কিন্তু সেই ভূকম্পই। এ দিন সকালে ভূকম্প অনুভূত হওয়ার পরেই আতঙ্কে দোতলার সিঁড়ি দিয়ে হুড়মুড়িয়ে নামার সময় পড়ে গিয়ে মৃত্যু হল সম্রাট দাস নামে এক যুবকের।বছর চব্বিশের ওই যুবকের বাড়ি শিলিগুড়ির উপকণ্ঠে শান্তিনগরে।

ওই যুবকের পরিবার সূত্রে জানানো হয়েছে, সকালে ঘুম থেকে উঠে পোষ্য হ্যাপিকে আদর করছিলেন সম্রাট। সেই সময়েই ভূকম্প অনুভূত হয়। পোষ্যকে নিয়ে হুড়োহুড়ি করে দোতলা থেকে নীচে নামার সময় কোনও ভাবে পড়ে যান তিনি। সিঁড়ি দিয়ে গড়িয়ে সরাসরি নীচে চলে আসেন। পড়ে যাওয়ার আওয়াজ পেয়েই দৌড়ে আসেন তাঁর মা। দেখেন, ছেলে সিঁড়ির একেবারে নীচের ধাপে অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে রয়েছে। তাঁর নাক দিয়ে রক্ত গড়িয়ে পড়ছে।

সঙ্গে সঙ্গে প্রতিবেশীদের ডেকে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় স্থানীয় একটি নার্সিংহোমে। সেখানে চিকিৎসকেরা জানান, তাঁদের কাছে আপৎকালীন চিকিৎসা ব্যবস্থা নেই। তাই পাশের অন্য একটি নার্সিংহোমে নিয়ে যাওয়া হয় সম্রাটকে। সেখানে চিকিৎসকেরা জানান, সম্রাটের মৃত্যু হয়েছে।

আরও পড়ুন: আমি তখন পড়ার টেবিলে, আচমকাই তাক থেকে বোতলগুলো পড়ে গেল পরপর

আরও পড়ুন: অসমের ভূমিকম্পে কাঁপল কলকাতা পর্যন্ত, আতঙ্কে রাস্তায় লোকজন

ওই যুবক মুর্শিদাবাদের একটি বিএড কলেজে পড়তেন। পাড়ায় মেধাবী ছাত্র হিসাবে সম্রাট পরিচিত ছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে এলাকায় শোকের পরিবেশ।

(মালদহ, দুই দিনাজপুর, কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার, দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং সহ উত্তরবঙ্গের খবর, পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলা খবর পড়ুন আমাদের রাজ্য বিভাগে।)