চরিত্রের প্রয়োজনে এক ঘণ্টায় চার বার পোশাক বদলাতে হল নায়িকা কৌশানী মুখোপাধ্যায়কে! শুটিং চলছিল অনুপ সেনগুপ্তের পরিচালনায় ‘জানবাজ’ ছবির। নায়িকা যতই তাঁর একমাত্র ছেলের প্রেমিকা হন, ফ্লোরে কেউ কোনও রকম বাড়তি সুবিধে পাবে না বলেই জানিয়ে দিয়েছিলেন পরিচালক। ‘‘এই ছবিতে কৌশানী এক জন পুলিশ অফিসারের চরিত্রে অভিনয় করছে। ছবির প্রথমার্ধে ও অবশ্য কলেজের ছাত্রী। দাদার খুনের প্রতিশোধ নিতেই পুলিশের চাকরিতে আসা। কৌশানীর সঙ্গে আমার ব্যক্তিগত সম্পর্ক যা-ই হোক, ফ্লোরে আমরা পরিচালক-অভিনেত্রী। আমার কাছে ও বকুনিও খেয়েছে,’’ শটের ফাঁকে বললেন অনুপ।

এ ছবিতেও কৌশানীর বিপরীতে রয়েছেন বনি সেনগুপ্ত। মেকআপ রুমে বসে তিনি বললেন, ‘‘এই প্রথম অপরাধীর চরিত্রে অভিনয় করছি। দুটো শেড রয়েছে। এক দিকে সাধারণ ছেলে, যার সঙ্গে কৌশানীর প্রেম হয়। কিন্তু আমার একটা অন্য পরিচয়ও আছে, যেটা কৌশানীর অজানা।’’ 

কথা চলতে চলতেই ফ্লোরে যাওয়ার ডাক পেলেন বনি। আবার পোশাক বদলে ফেলেছেন কৌশানী। তবে এই শট শেষ হওয়ার পরে আরও একটি শট দিতে হবে কৌশানীকে। তার পরে মিলবে ছুটি। গার্লফ্রেন্ডের পানসে মুখ দেখে বনির অনুরোধ, ‘‘পাপা, আজ এই শটটা না নিলেই নয়?’’ তাতে অবশ্য লাভ কিছু হল না! পরিচালক লাইটম্যানকে বুঝিয়ে দিলেন কী ভাবে শট নেওয়া হবে। ‘‘টেনশনে থাকলে কৌশানী বেশ ভাল এক্সপ্রেশন দেয়,’’ কানাকানি চলছিল ইউনিটে। নায়িকা অবশ্য সে কথা শুনতে পাননি। শট শেষ হতে, প্যাক-আপ বলতে না বলতেই কৌশানী ‘আঙ্কল, বাই’ বলেই রূদ্ধশ্বাসে বেরিয়ে গেলেন। আর ভ্যাবাচাকা বনি তাকিয়ে রইলেন সেই দিকে!