সাউথ সিটিতে যে ফ্ল্যাটে দেব আগে থাকতেন, আজকে সেটাই দেবের অফিস। টাওয়ার ফোর-এর সেই ঊনত্রিশ তলায় দুপুরবেলা অ্যাপয়েন্টমেন্ট দিলেন তিনি। দেবের বান্ধবী।   রাতে একসঙ্গে ওঁদের চিনের ফ্লাইট। প্যাকিং তখনও বাকি। তারই মধ্যে আইফোনের রেকর্ডারের সামনে রুক্মিণী মৈত্র...

 

ফাইনালি বড় পর্দায় আপনি...

হ্যাঁ, ফাইনালি। তবে টেকনিক্যালি এখনও শ্যুটিং শুরু হয়নি, তাই বড় পর্দায় নিজেকে কেমন লাগছে, সেটা বোঝার সময় এখনও আসেনি।

 

বহু দিন ধরেই তো অফার পাচ্ছিলেন?

হ্যাঁ, অনেক দিন ধরেই কিন্তু সব সময় আমার উত্তর ছিল, নো, নো, নো। ফাইনালি এই ছবিটা আর না বলতে পারলাম না কারণ দেব আর রাজদা দু’জনেই বলেছিল, এই রোলটার জন্য ওরা আর কাউকে ভাবতেই পারছে না। আই অ্যাম ভেরি থ্যাঙ্কফুল। ওদের দু’জনের কাছে কৃতজ্ঞ আমি।

 

এই ছবিতে তো আপনি হিরোইন আর দেব হিরো?

(হাসি) এটা কী রকম প্রশ্ন?

 

প্রশ্নটা এ রকম কারণ শুনেছিলাম আপনি ছাড়াও একজন অন্য হিরোইন আছেন ছবিতে?

না, না, এটাতে একজনই হিরোইন। সেটা আমি।

 

শুনেছিলাম যে শুভশ্রীও নাকি আছেন ছবিতে।

না, সেটা অন্য একটা গল্প। সেটা এখনই হচ্ছে না।

 

অনেকে তো ভয় পেয়ে গিয়েছিল।

কেন?

 

একে বক্সিং নিয়ে ছবি। সবাই বলছিল আপনি আর শুভশ্রী থাকলে সেটের বাইরেও বক্সিং হতে পারত।

আমার মনে হয় না এ রকম কিছু হতো। আমি খুব চিল্ড আউট।

 

কিন্তু একটা প্রেশার তো থাকবে। আফটার অল বয়ফ্রেন্ডের ছবি।

কে বয়ফ্রেন্ড? হু ইজ মাই বয়ফ্রেন্ড?

 

দেব।

নাহ তো। দেব আমার বেস্ট ফ্রেন্ড।

 

সে আপনি অস্বীকার করতেই পারেন। তবে কেউ সেটা বিশ্বাস করবে না। আজ রাত্রেই তো চিন যাচ্ছেন একসঙ্গে...

(হাসি) আপনি চা, কফি না গ্রিন টি?

 

কিচ্ছু না। আপনি খান প্লিজ...

আমি তো চা-কফি কিছু খাই না। আমি শুধু হরলিক্স...

 

হরলিক্স?

জুনিয়র হরলিক্স, ওটা খেতে ভাল।

 

একটু দেবের কথায় ফিরি?

প্লিজ। দেখুন দেবের বেস্ট ফ্রেন্ড যদি কেউ থাকে, সেটা আমি। এটা দেবও বারবার বলে।

 

আপনি যে দেবের গার্লফ্রেন্ড নন, শুধু বেস্ট ফ্রেন্ড সেটা বোধহয় অন্য হিরোরা জানেন, তাই না! সেটা জেনেই বোধহয় জিৎ আপনাকে ছবি অফার করেছিলেন?

(হাসি) আমাকে কেউ অফার করেনি।

 

ও রকম অফার নয়। অন্য কাউকে দিয়ে বলানো। যাকে বলে ‘ফিলার্স’...

ও রকম ফিলার্স আমি কবে থেকে পাচ্ছি। যশরাজ থেকে অফার পেয়েছি। মণিরত্নমের অফিস অফার করেছিল...

 

যশরাজের কোন অফার?

‘রব নে বনা দি জোড়ি’। সেই সময় কাস্টিং চলছিল। অনুষ্কাও সেই সময় মডেলিং করত। কিন্তু একটাই কারণে আমি করিনি। সেই সময় পড়াশোনা প্রায়োরিটি ছিল আমার।

 

আপনি তো এমবিএ?

হ্যাঁ এমবিএ...

 

মার্কেটিং না ফিনান্স?

না, মার্কেটিং বা ফিনান্স নয়। আমার এমবিএ-টা ছিল কমিউনিকেশন ম্যানেজমেন্ট ফ্রম আইআইএম কোজিকোড। আসলে আমাদের ফ্যামিলিতে পড়াশোনার গুরুত্বটা সাঙ্ঘাতিক। আমার দাদু চিফ জাস্টিস ছিলেন। আমার বাবা আইআইএম জোকার গোল্ড মেডেলিস্ট। আমার কাছে পড়াশোনাটা প্রায়োরিটি। মানছি, অভিনয়, স্টারডম — এগুলো দারুণ গ্ল্যামারাস প্রোফেশন কিন্তু গ্ল্যামারের পাশাপাশি এগুলো হাই-রিস্ক প্রোফেশনও। আমি সব সময় আমার প্ল্যান বি নিয়ে আগে ভাবি।

 

এটা তো বাঙালিদের মাইন্ডসেট। এটা বঙ্গ-ললনা রুক্মিণী বলছে তো?

এটা বুদ্ধিমান বঙ্গ-ললনা বলছে।

 

দেব বেস্ট ফ্রেন্ড না থাকলে প্ল্যান বি-তে কার নাম আছে?

ওটায় প্ল্যান বি-র দরকার নেই (হাসি)।

 

শুনছিলাম দেবের ‘আই লাভ ইউ’তেও নাকি আপনাকে অফার করা হয়েছিল?

হ্যাঁ, হয়েছিল তো। ‘আই লাভ ইউ’। তারপর ‘চিরদিনই তুমি যে আমার’। আমি একটা ছবির ন্যারেশনেও বসেছিলাম রাজদার সঙ্গে।

 

কোন ছবি?

‘প্রেম আমার’। ভেঙ্কটেশ বহু দিন আমাকে বলেছে। কিন্তু আই ওয়াজ নট রেডি। ইনফ্যাক্ট ‘প্রেম আমার’ দেখার পর প্রিমিয়ারে দেব বলেছিল, ‘‘দেখলে তো কী মিস করলে!’’ আই ওয়াজ লাইক, ঠিক আছে। তারপর ‘যোদ্ধা’ অফার করা হয়েছিল।

 

প্রথমে দেবকে নিজের বয়ফ্রেন্ড না বলে বেস্ট ফ্রেন্ড বললেন। কালকে দেবের কোনও কম্পিটিটরের ছবিতে কাজ করবেন তো? জিৎ, অঙ্কুশ, যশ?

ইয়েস, আই উইল ডু এনিবডি’স ফিল্ম।

 

দেব ইনসিকিওর্ড হবেন না?

সেটা তো আপনার দেবকে জিজ্ঞেস করা উচিত।

 

জিজ্ঞেস করলাম, কারণ শুনেছি আপনি খুব পজেসিভ?

আমি? আমার মনে হয় না।

 

আজকে তো আপনি সবার ভাল বন্ধু। কালকে ছবি করার পর আপনার মনে হয় না মিমি কী নুসরতের সঙ্গে আপনার ইকুয়েশনটা একটু হলেও বদলাবে?

আমার মনে হয় না। আমি তো ইনফ্যাক্ট ভাবছিলাম, কোনও কিছু দরকার হলে, মিমি কী নুসরত কী কোয়েলদিকে বলব। ওরা সবাই হেল্প করবে।

 

পরের ছবি কী?

এখনও কিছু ভাবিনি। আমি যা মুডি। সত্যি বলছি, আমার ফিল্মের সেট থেকে লাইব্রেরি বেশি পছন্দের। আমাকে লাইব্রেরিতে ছেড়ে দিন, আমি বহু বছর কাটিয়ে দেব। কিন্তু সেটে আট ঘণ্টার বেশি কাটাতে পারব না। বললাম না, আমি ভীষণ লেড ব্যাক। একটা ছবি করি, তারপর ভাবব...