প্র: হালফিল এমন চরিত্র নির্বাচন করছেন যে, আপনাকে ‘ছোট শহরের কুইন’ বলা হচ্ছে? 

উ: ‘বরেলী কী বরফি’ আর ‘লুকা ছুপি’ দুটোই ছোট শহরের গল্প। ভাল লাগে অন্য ধরনের চরিত্র ফুটিয়ে তুলতে। এ রকম একটা খেতাব (ছোট শহরের কুইন) মন্দ নয় (হাসি)! আমার মতে, ছোট শহরের গল্পগুলোকে দর্শক অনেক বেশি রিলেট করতে পারেন। 

প্র: লিভ-ইন না বিয়ে, কোনটার পক্ষে আপনি? 

উ: ব্যক্তিগত ভাবে আমি বিয়ের পক্ষে। কিন্তু জাজমেন্টাল হতে চাই না। যাঁরা লিভ-ইন সম্পর্কে থাকেন, তাঁরা বিয়ের আগে পরখ করে দেখে নিতে চান, আদৌ তাঁরা একসঙ্গে থাকতে পারবেন কি না... এতে দোষের কী আছে? যদি একে অপরের সম্পর্কে নিশ্চিত না হন, তা হলে বিয়ে না করাই ভাল। অবশ্য বিয়ে জীবনে এক বারই হওয়া উচিত (হেসে)। তবে লিভ-ইনের আরও একটা ভাল দিক, চাইলেও একে অপরের কাছ থেকে কিছু লুকোনো যাবে না।

প্র: আপনার অসময়ের বন্ধু কারা? 

উ: অনেকে। আমার মা, বোন। ইন্ডাস্ট্রি থেকে খুব ভাল বন্ধু দিনু (দীনেশ ভিজান), প্রযোজক সাজিদ নাদিয়াদওয়ালা।

প্র: এখনও নিজেকে ইন্ডাস্ট্রিতে বহিরাগত মনে করেন? 

উ: কিছু লোকজনকে চিনেছি। তাঁদের সঙ্গে কাজ করেছি। কিন্তু এখনও অনেক বাধা অতিক্রম করতে হবে। এমন অনেক পরিচালকও আছেন, যাঁদের সঙ্গে কাজ করার জন্য আমি উদগ্রীব। তাঁদের নজরে আসতে হবে আমাকে।

প্র: উইমেন এমপাওয়ারমেন্ট নিয়ে আপনার কী মত?

উ: আমি নারী দিবসের বিরুদ্ধে। আমাদের জন্য মাত্র এক দিন বরাদ্দ কেন? ছোটবেলা থেকে বাচ্চাদের শেখানো উচিত, ছেলে ও মেয়ের অধিকার সমান। বাচ্চাদের শেখানোর পিছনে অভিভাবকদের ভূমিকাটা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। মা-বাবা ছোট থেকেই আমাকে আর বোনকে যথেষ্ট স্বাধীনতা দিয়েছেন। আর এটাও ঠিক, আমরা সেই স্বাধীনতার মান রেখেছি। ইন্ডাস্ট্রিতে মেয়েদের জন্য এখন অনেক গুরুত্বপূর্ণ চরিত্র লেখা হচ্ছে। তবে নায়ক-নায়িকার পারিশ্রমিকের মধ্যে এখনও বিস্তর ফারাক।

প্র: ‘পানিপথ’-এর মতো ইতিহাসনির্ভর ছবিতে কাজের প্রস্তুতি কেমন?

উ: আশুতোষ গোয়ারিকরের মতো পরিচালকের সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতাই আলাদা। আমি পার্বতী বাইয়ের চরিত্র করছি। স্বামী সদাশিব রাওয়ের সঙ্গে যুদ্ধে ছায়াসঙ্গীর মতো ছিলেন পার্বতী বাই। আমি দিল্লিবাসী পঞ্জাবি। এই ছবিতে মরাঠি মহিলার চরিত্রে অভিনয় করছি। মরাঠি ভাষা বেশ শক্ত। অনেকটা টাং টুইস্টারের মতো। তার সঙ্গে মরাঠি নথ পরতে হচ্ছে। সব মিলিয়ে অন্য রকম অভিজ্ঞতা। জীবনে কাউকে চড় পর্যন্ত মারিনি। আর এখন তরোয়াল চালানোর প্রশিক্ষণ নিচ্ছি! ভাবতে পারছেন?