একটি খোলা চিঠি। আর তাতেই হইচই ফেলে দিয়েছেন স্বরা ভাস্কর। এমনিতেই ‘পদ্মাবত’ ছবিটি নিয়ে ঝামেলা কম হয়নি। তার পর স্বরার চিঠির দৌলতে এই ছবি আখেরে প্রচারই পাচ্ছে। তাই চিঠি লেখার জন্য তাঁকে কি টাকা দেওয়া হয়েছে? এমন প্রশ্নই তাঁর দিকে ছুড়ে দিয়েছেন সাংবাদিকরা। এর উত্তরে স্বরা বলছেন, ‘‘অভিনেত্রীদের নিশানা করা খুব সহজ। যখনই বিতর্ক তৈরি হয়, ধরে নেওয়া হয়, টাকা দিয়ে করানো হচ্ছে। আমি এ সব কথায় আর তেমন বিচলিত হই না।’’

তবে কেন লিখলেন এই চিঠি? স্বরা বলছেন, ‘‘ছবিটির মুক্তি ঘিরে যখন বিতর্ক তৈরি হয়েছিল, আমি কিন্তু তখন ছবির পাশেই ছিলাম। কারণ একজন শিল্পীর কাজ করার সব রকম স্বাধীনতা থাকা উচিত। আমার মনে যে প্রশ্নগুলো এসেছে, সেগুলোই আমি লিখেছি। কারণ আমার মনে হয়, এগুলো নিয়ে জাতীয় স্তরে আলোচনা হওয়া প্রয়োজন। তাই আমি পাবলিক ফোরামেই চিঠিটা লিখেছি। খুব মার্জিত ভাবেই আমি নিজের কথা বলেছি। কাউকে অসম্মান করিনি। কেউ যদি আমার সঙ্গে একমত না হন, কোনও অসুবিধে নেই। এটা গণতন্ত্র। সকলের মত প্রকাশের স্বাধীনতা আছে।’’ তবে কারও বিরুদ্ধে ব্যক্তিগত রোষ নেই স্বরার। তাও স্পষ্ট করেছেন তিনি।

যদিও স্বরা তির্যক ভাবে বলেছেন, ‘‘লেখার আগে বেশি ভাবিনি। ভারতীয়দের চিঠি পড়ায় এত উৎসাহ আছে, তা অবশ্য আমি জানতাম না!’’