• Bipasha and Karan
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বিপাশার কল্যাণে কর্ণের ছবি লাভ

বিয়ের পর থেকে বিপাশার বায়নাক্কা বেড়েছে বহুগুণ এবং স্বামী বিনা তিনি যেন মণিহারা ফণী  

Bipasha and Karan
বিপ্‌স ও কর্ণ
  • Bipasha and Karan

Advertisement

সেকালের মা-দিদিমারা বলতেন, বিয়ের জল গায়ে পড়লে মেয়েদের মধ্যে বদল আসে। কথাটার মধ্যে বেশ একটা মিষ্টি-মিষ্টি ব্যাপার আছে, না? গত বছর এপ্রিলে কর্ণ সিংহ গ্রোভারের সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধার পর অভিনেত্রী বিপাশা বসুর মধ্যেও বেশ বদল এসেছে। তবে তাতে সুগার কোশেন্ট কতটা আছে, তা নিয়ে বড় সংশয়! কারণ তাঁর সেই পরিবর্তনের হেতু, বলিউডে তিনি নতুন এক উপাধি পেয়েছেন। ‘ট্যানট্রাম কুইন’।

বিপাশার সঙ্গে কাজ করতে গিয়ে বিরক্ত মানুষজনের তালিকা নাকি ক্রমবর্ধমান। তাঁর শেষ ছবি মুক্তি পেয়েছিল বছর তিনেক আগে, ‘অ্যালোন’! জনগণের স্মৃতিশক্তির মেয়াদ তো বড়ই স্বল্প, অ্যাদ্দিনে ভুলেও গিয়েছে। তা যেখানে নায়িকার হাতে ছবি নেই, সেখানে তাঁর বদমেজাজ কেনই বা সইবে কেউ? এখন প্রশ্ন হল, অমন তন্বী, সুন্দরী নায়িকা কী কারণে এমন দুর্নাম কুড়োলেন? পাশাপাশি আরও একটা খবর হল, তাঁর কর্তা কর্ণ সিংহ গ্রোভার ইদানীং ‘ফিরকি’র শ্যুটে ব্যস্ত। শোনা যাচ্ছে, সেখানেও নাকি তাঁর মুখ দেখানোর সুযোগ হত না, যদি না বিপাশা থাকতেন। আপনি প্রশ্ন করতে পারেন, এই দুইয়ের মিল কোথায়? পুরো ব্যাপারটা বিশদে বুঝতে গেলে, আমাদের কী-কী কথা কানে এসেছে, সে ঝুলি উপুড় করতে হয়...

বদমেজাজের দুর্নাম বিপাশার নতুন নয়। শোনা যায়, এক সময় কিছু দিনের জন্য মুম্বইয়ের ফোটোশিকারির দল কোনও অনুষ্ঠানে গেলে তাঁর ছবি তোলা হবে না বলে স্থির করেছিল। রেস্তোরাঁ বা জিমে ঢোকার সময় তাঁর ছবি তোলার অনুমতি চাইলে, তিনি নাকি অত্যন্ত দুর্ব্যবহার করতেন, তাই এ হেন সিদ্ধান্ত। সম্প্রতি এ সবের সঙ্গে আরও একটি পালক জুড়েছে। বিপাশার কাছে এখন যে কোনও অ্যাওয়ার্ড ফাংশন বা ফ্যাশন শো কিংবা ছবি বা বিজ্ঞাপন, যারই অফার আসুক, তিনি নাকি প্রথমেই শর্ত দেন, তাঁর সঙ্গে স্বামী কর্ণকেও নিতে হবে।

কী প্রেম! সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁদের প্রেমের বিচ্ছুরণ রীতিমতো চোখধাঁধানো!  আর তা দেখে আমার-আপনার মতো ছাপোষা দম্পতি ‘এতটা ভালবাসে না’ বলে পরস্পরের সঙ্গে মিষ্টি ঝগড়া সেরে নিতে পারি। কিন্তু শো অর্গানাইজার বা প্রযোজকরা, মানে যাঁরা খরচাপাতির দায়িত্বে, তাঁরা ওসব পিডিএ-তে ভুলবেন কেন? এখানে আবার অতি-হিসেবি কেউ ভেবে বসবেন না ‘একটি কিনলে আর একটি ফ্রি’-র মতো ব্যাপার রয়েছে। দুই তারকাকেই পারিশ্রমিক দিয়ে নিতে হবে। বলিউডের মতো পেশাদার ইন্ডাস্ট্রিতে এমন দাবি কি মেনে নেওয়া যায়?

অবশ্য এ ব্যাপারে বিপাশার পথপ্রদর্শক আরও দুই নায়িকা। ভাগ্যশ্রী এবং মাধুরী দীক্ষিত। মাধুরী তো এখনও বরসমেত হাজিরা দেন। এর ফল সকলেরই জানা। যাই হোক, বিপাশাকে কোনও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে পারফর্ম করার জন্য ডাকা হলে তিনি নাকি সাফ জানিয়ে দেন, কর্ণকেও সেখানে ডাকতে হবে। এবং তাতে যদি বিপাশাকে অতিথি তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়, কুছ পরোয়া নেহি। শোনা যায়, মুম্বইয়ের খুব বড় এক ফ্যাশন ইভেন্টে তিনি যাওয়ার কথা দিয়েও শেষ মুহূর্তে বেঁকে বসেন। উদ্যোক্তাদের মাথায় হাত। শেষমেশ অনেক সাধ্যসাধনা করে তাঁকে ফেরানো হয়। সুযোগ বুঝে বিপ্‌স নিজের পারিশ্রমিকও বাড়িয়ে নিয়েছিলেন। যাই হোক, অনুষ্ঠান শেষে প্রেস কনফারেন্সে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হওয়ার কথা ছিল নায়িকার। সেখানে তাঁর সঙ্গে থাকার কথা ছিল করিশমা কপূরেরও। কিন্তু বিপ্‌স তাতে অরাজি হয়ে, সক্কলকে অবাক করে ভেনু ছেড়ে বেরিয়ে যান। পুণের এক অনুষ্ঠানেও তাঁর স্বামীকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি বলে, তা শেষ মুহূর্তে বাতিল করেন।

এ সবের সঙ্গে বিদেশের এক ফ্যাশন শো-এ তাঁর যাওয়া নিয়ে রীতিমতো জলঘোলা হয়েছিল। কর্তৃপক্ষের দাবি ছিল, বিপাশা ও  তাঁর হাজব্যান্ড সেখানে পাঁচদিন থাকবেন, তার খরচ এবং কর্ণের যাতায়াতের খরচও দাবি করেন বিপ্‌স। যদিও বিপাশার বয়ান ছিল উলটো, তিনি কর্তৃপক্ষকেই দোষী করেছিলেন ‘অপেশাদার’ অভিযোগ এনে। যাই হোক, এই পুরনো কাসুন্দি ঘাঁটা এই কারণেই, নানা মহল থেকে বিপাশার বিরুদ্ধে আসা খবরগুলোয় জোর না থাকলে, তা কি আর এত দূর এসে পৌঁছয়!

এত সব কাণ্ড করে তিন বছর পর অবশ্য কর্তা-গিন্নি একটি কন্ডোমের বিজ্ঞাপন করছেন। পুরোদস্তুর ছবি না-ই বা পেলেন! তবে গিন্নির এই আন্তরিক চেষ্টার কারণেই কি না জানা নেই, কর্ণ সম্প্রতি অঙ্কুশ ভট্টের ‘ফিরকি’ ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছেন। এ ছবির কাজেই তিনি লন্ডনে এবং বউকে মিস করার কত ব্যাখ্যান দিচ্ছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ব্যাপারটা আমরাও বুঝতে পারি বই কী! 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন