রণবীর কপূর, রণবীর সিংহ, অর্জুন কপূর, বরুণ ধওয়নরা বলিউডে স্বমহিমায় থাকবেনই। কিন্তু এখন যাঁদের নিয়ে সবচেয়ে বেশি চর্চা, তাঁরা কিন্তু সে অর্থে তারকা নন। কিন্তু নয়া প্রজন্মের ট্রেন্ডের নিরিখে এগিয়ে আছেন এঁরাই। ভিকি কৌশল, ঈশান খট্টর, কার্তিক আরিয়ান এবং সুমিত ব্যাস। তারকাসুলভ ওজন না থাকলেও যাঁরা ভক্তদের কাছে সুপার চার্মিং!

 

ভিকি কৌশল

পরপর অন্য রকমের ছবি করছেন এবং প্রশংসা পাচ্ছেন ভিকি। নজরে আসেন ‘মাসান’ দিয়ে। নীরজ ঘেওয়ানের এই ছবি যথেষ্ট আলোচিত। এবং সেখানে মনে রাখার মতো অভিনয়ও করেছিলেন ভিকি। তখনও অবশ্য এখনকার মতো মাচো হননি। বরং পাশের বাড়ির মিষ্টি ছেলের অবতারেই মন কেড়েছিলেন। ইন্ডাস্ট্রিতে ঢুকেই তিনি অনুরাগ কাশ্যপ-নীরজ ঘেওয়ানদের ঘরের লোক হয়ে গিয়েছিলেন। কারণ অভিনয়-জীবনের আগে অনুরাগকে ‘গ্যাংস অফ ওয়াসিপুর’-এ অ্যাসিস্ট করেছিলেন ভিকি। ‘জ়ুবান’ নামে একটি ছবির পরেই অনুরাগের ‘রমন রাঘব ২.০’ করেন তিনি। সামনে আবার অনুরাগের রোম্যান্টিক ছবি ‘মনমর্জ়িয়া’য় দেখা যাবে ভিকিকে। এর আগে অবশ্য আলিয়া ভট্টের সঙ্গে ‘রাজ়ি’তে কাজ করেছেন। সে ছবিতে আলিয়ার পাশে নজর কেড়েছিলেন ভিকিও। তাঁর সংযত অভিনয় প্রশংসিত হয় রীতিমতো। তার পর ‘সঞ্জু’তে রণবীর কপূরের প্রিয় বন্ধুর চরিত্রেও মাত করেছিলেন। অভিনেতার একটি ইতিবাচক দিক হল, তিনি পার্শ্বচরিত্রে কাজ করুন বা মূল ভূমিকায়— নিজের অভিনয়টাকে অন্যদের পরিপূরক করে তুলতে জানেন। সুন্দর সুঠাম গড়ন এবং মিষ্টি ব্যক্তিত্ব হয়ে উঠেছে ভিকির ইউএসপি।

 

ঈশান খট্টর

শাহিদ কপূরের ভাইকে নিয়েও কম আগ্রহ নেই ভক্তদের মধ্যে। তার সবচেয়ে বড় কারণ ঈশান প্রথম ব্রেকটাই পেয়েছিলেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন পরিচালক মাজিদ মাজিদির ‘বিয়ন্ড দ্য ক্লাউডস’-এ। তার পরে জুলাইয়ে মুক্তি পেয়েছিল ঈশান আর জাহ্নবী কপূরের ‘ধড়ক’। মরাঠি ছবি ‘সাইরাট’-এর হিন্দি রিমেক সেটা। সমালোচনা হলেও ছবি হিট করেছে। সঙ্গে সঙ্গে বেড়েছে ঈশানকে নিয়ে উৎসাহও। ঈশান অভিনয় এবং নাচের জন্য ইতিমধ্যেই প্রশংসিত। বৌদি মীরা রাজপুত তো বলেই দিয়েছেন, ঈশান নাকি শাহিদের চেয়েও ভাল নাচেন! সে যাই হোক, শাহিদের মতোই চকলেট বয় চেহারা ঈশানের। তাই অল্পবয়সিদের মধ্যে তাঁকে নিয়ে বেশ উন্মাদনা রয়েছে। আর ঈশানের ব্যক্তিগত জীবনটাও রঙিন! ‘স্টুডেন্ট অব দ্য ইয়ার টু’-তে ডেবিউ করতে যাওয়া তারা সুতারিয়াকে এক সময়ে ডেট করতেন তিনি। কিন্তু সেই প্রেম ভেস্তে যায়। তার পর শোনা গিয়েছিল, জাহ্নবীর সঙ্গে ঘোরাফেরা করছেন তিনি।

 

কার্তিক আরিয়ান

এই মুহূর্তে বিভিন্ন ছবির কাস্টিং এব‌ং ব্র্যান্ড এনডোর্সমেন্টের ক্ষেত্রে কার্তিক আরিয়ানকে বিবেচনা করছে ইন্ডাস্ট্রি। কার্তিক অবশ্য কাজ করছেন ২০১১ সাল থেকে। ‘পেয়ার কা পঞ্চনামা’য় প্রথম নজরে আসেন। সেটা হিন্দি বাডি মুভি হিসেবে বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। তার পর দু’-একটা ছোটখাটো ছবির পর ‘পেয়ার কা পঞ্চনামা’র সিকুয়েলে দেখা যায় কার্তিককে। সে ছবিও কম জনপ্রিয় হয়নি। তার পরেও তিনি শর্ট ফিল্ম এবং ছোট বাজেটের কমেডিতেই কাজ করছিলেন। ২০১৮ সাল থেকে কার্তিকের কেরিয়ারের মোড় ঘুরতে শুরু করে। তিনি ‘সোনু কে টিটু কে সুইটি’তে অন্যতম লিড হিসেবে অভিনয় করেন। এবং তার পর থেকে টিনএজ থেকে ইয়ং অ্যাডাল্ট— সকলেরই মুখে এক নাম। কার্তিক আরিয়ান। ছবি বিরাট সাফল্যও পায়। কলকাতাতেও তাঁর খ্যাতি কিছু কম নয়। কোনও ইভেন্টে তিনি এ শহরে এলে মেয়েদের ভিড় নিয়ন্ত্রণে রাখা যায় না! কার্তিককে এর পরে দেখা যাবে ‘লুকা ছুপি’তে। সেই ছবিতে তাঁর বিপরীতে রয়েছেন কৃতী শ্যানন। শোনা গিয়েছিল, কর্ণ জোহরের ব্যানারে করিনার বিপরীতে দেখা যাবে কার্তিককে। পরে কর্ণ জানান, কার্তিকের অতি উৎসাহী পি আর টিমের রটানো সেই খবর! সে যাই হোক, অভিনয় ছাড়া কার্তিক মুম্বইয়ে প্লাস্টিক দূষণ কমানোর প্রচারেও নিয়মিত থাকেন। পেটানো চেহারায় বয়িশ ছাপ— কার্তিকের ইউএসপি তাঁর স্বাভাবিক কিউটনেস।

 

সুমিত ব্যাস

ওয়েব সিরিজ় ‘পার্মানেন্ট রুমমেটস’-এ আত্মপ্রকাশ করেন সুমিত। সেই চরিত্র এই প্রজন্মের প্রায় সকলেরই মনের কাছের। বলিউডে তাঁর ডেবিউ হয় ‘ইংলিশ ভিংলিশ’-এর মাধ্যমে। ‘গুড্ডু কী গান’ এবং ‘পার্চড’— এই দুই ছবিতেও পার্শ্বচরিত্রে কাজ করেন। তাঁর কাজ সেখানে তেমন উল্লেখযোগ্য না হলেও ২০১৭ সালে কল্কি কেকলাঁর সঙ্গে ‘রিবন’-এ অভিনয় করেন সুমিত। সে ছবির বিষয়বস্তু প্রশংসিত হয়। সুমিতকে নিয়ে উৎসাহও বাড়ে মহিলাদের মধ্যে। তিনি অভিনয় শুরু করেছিলেন থিয়েটার দিয়ে। টেলিভিশনেও টুকটাক কাজ করেছেন। বিভিন্ন ওয়েব সিরিজ়ের নিয়মিত স্ক্রিপ্ট লেখেন। ‘লাভ পার স্কোয়্যার ফুট’-এ ভিকি কৌশলের চরিত্রটি তাঁর লেখা। এ বছরই সবচেয়ে বড় ব্রেকটা পেয়েছিলেন সুমিত। করিনা কপূরের বিপরীতে ‘বীরে দি ওয়েডিং’-এর রোল। সাত বছরের বিবাহিত জীবন থেকে ২০১৭-তেই বেরিয়ে এসেছেন সুমিত। প্রাক্তন স্ত্রীয়ের নাম শিবানী। এই মুহূর্তে একতা কউলকে ডেট করছেন সুমিত। শোনা যাচ্ছে, সামনের সেপ্টেম্বরেই বিয়ে করছেন তাঁরা দু’জন।