মঙ্গলবার ভোরে নেটিজ়েনদের ঘুম ভেঙেছে ‘ক্যাম্প লেডি’র বেশে প্রিয়ঙ্কা চোপড়ার ছবি দেখে। ফ্যাশনের পরিভাষায় ‘ক্যাম্প’ কী, তা না জেনেই সোশ্যাল মিডিয়া ছেয়ে গিয়েছে তাঁর মিম ও ট্রোলে। তবে মেট গালার মতো আন্তর্জাতিক মঞ্চে কী ভাবে নজর কাড়তে হয়, জানেন দেশি গার্ল। স্বামী নিক জোনাসের সঙ্গে কো-অর্ডিনেট করে পরা তাঁর পোশাক ও লুক আন্তর্জাতিক পরিসরে ভূয়সী প্রশংসা পেয়েছে। ‘ক্যাম্প বার্বি’ সেজে স্টাইল মিটারে বরং অনেকটা পিছিয়ে রইলেন দীপিকা পাড়ুকোন।

নিউ ইয়র্কের মেট্রোপলিটন মিউজ়িয়াম অফ আর্ট-এর বার্ষিকী অনুষ্ঠান, দ্য কস্টিউম ইনস্টিটিউট গালা। সাধারণ মানুষ যাকে ‘মেট গালা’ বলেন। ১৯৪৮ সালে পাবলিসিস্ট এলেনর ল্যামবার্ট প্রথম এই অনুষ্ঠানের সূচনা করেন। উদ্দেশ্য ছিল, অর্থ সাহায্যের জন্য নিউ ইয়র্কের অভিজাত পরিবারগুলিকে উৎসাহ দেওয়া। সময়ের সঙ্গে মেট গালার রূপ-রং বদলেছে। এই ফ্যাশন প্রদর্শনীর মেগা উদ্বোধন অনুষ্ঠানে ইদানীং ফ্যাশন, মিউজ়িক, সিনেমা, আর্ট, স্পোর্টস... বিভিন্ন ক্ষেত্রের নামীদামি শিল্পীরা থিম অনুযায়ী সাজগোজ করে আসেন। তাঁদের দেখতে লক্ষ লক্ষ টাকার টিকিট কেটে ভিড় জমান দর্শক। মে মাসের প্রথম সোমবার অনুষ্ঠিত হয় এই ফ্যাশন উৎসব। এ বছর মেট গালা পা দিল ৭১ বছরে। থিম ছিল, ‘ক্যাম্প: নোটস অন ফ্যাশন’।

১৯৬৪ সালে সুজ়ান সোনট্যাগের লেখা ‘নোটস অন ক্যাম্প’-এর উপরে ভিত্তি করে ফ্যাশন থিম স্থির করা হয়েছে। সহজ করে বললে, ‘ক্যাম্প’-এর মূল ভাবনা স্বাভাবিকতার বাইরে গিয়ে সাজ। যে সাজের মধ্যে নাটকীয়তা থাকবে, ওভার দ্য-টপ একটা ব্যাপার থাকবে। যে ভাবনাকে তাঁর পোশাক ও স্টাইল স্টেটমেন্টে সসম্মানে ফুটিয়ে তুলেছেন প্রিয়ঙ্কা। 

ছকভাঙা সাজে সব সময়ই এগিয়ে কেটি পেরি। এ বারেও তিনি নিরাশ করেননি। তাঁর শ্যান্ডেলিয়ার হেডপিস যে কারও চোখ ঘুরিয়ে দেবে! কার্ডি বি-এর রেড গাউনের কয়েক প্রস্ত দৈর্ঘ্যের ওভার-দ্য-টপ ট্রেলও নজর কেড়েছে ফ্যাশনিস্তাদের। কিম কার্দাশিয়ানের শিমারিং অঁসম্বল তাঁর ব্যক্তিত্বের সঙ্গে মানানসই।

চোখ ধাঁধানো ফ্যাশনিস্তাদের মাঝে মেকআপে দৃষ্টিভ্রম তৈরি করেছেন এজ়রা মিলার। তাঁর ফেস মাস্ক নিয়ে চর্চা চলছে। সেই থিমে‌র সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে সেজেছেন অভিনেতা জেরাড লেটো। নিজের হাতে তাঁর মুখের আদলের একটা মুখ, নজর কেড়েছে পাপারাৎজ়ির।

তবে নিরাশ করলেন দীপিকা পাড়ুকোন। তিনি বরাবরই ঝুঁকি বাঁচিয়ে সাজেন। এ বারে তিনি পরেছেন কাস্টম মেড পিঙ্ক গাউন, যার উপরে থ্রি ডি প্রিন্টের নকশা। ডিজ়নি প্রিন্সেসের মতো সুন্দর দেখতে লাগছিল তাঁকে। তবে এই সাজে নেই নজরকাড়া আবেদন!

শেষে বলতে হয়, মেট গালায় আন্তর্জাতিক আইকনের ভিড়েও উজ্জ্বল নক্ষত্র প্রিয়ঙ্কা চোপড়াই।