শুক্রবার নয়াদিল্লির শাস্ত্রী ভবনে ঘোষণা হল ৬৫তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বিজয়ীদের নাম। এই বছর দশ জনের জুরি বোর্ডের নেতৃত্ব দিয়েছেন পরিচালক শেখর কপূর। কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় পরিচালিত ‘নগরকীর্তন’ ছবিটির জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেতার পুরস্কার পেয়েছেন ঋদ্ধি সেন।

মুম্বই থেকে ফোনে উচ্ছ্বসিত অভিনেতা বললেন, ‘‘অভিনয় যে আমার প্রথম পড়াশোনা, সেই বীজটা মা-ই আমার মধ্যে পুঁতে দিয়েছেন। তাই আজ যা কিছু করতে পেরেছি, পুরো কৃতিত্বটাই আমার মায়ের। আর অভিনেতা হিসেবে ‘নগরকীর্তন’ আমার এক প্রকার সম্পূর্ণ অভিনয়।’’ এই ছবির জন্যই শ্রেষ্ঠ মেকআপ শিল্পী ও শ্রেষ্ঠ পোশাক ডিজাইনের পুরস্কার পেয়েছেন যথাক্রমে রাম রজ্জাক ও গোবিন্দ মণ্ডল। এ ছাড়া বিশেষ জুরি অ্যাওয়ার্ডও পেয়েছে ছবিটি। শ্রেষ্ঠ বাংলা ছবি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে অতনু ঘোষের ‘ময়ূরাক্ষী’।

‘মম’-এর জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর পুরস্কার পেয়েছেন শ্রীদেবী। এই ছবির জন্য সেরা ব্যাকগ্রাউন্ড স্কোর কম্পোজের সম্মান পেয়েছেন এ আর রহমান। দাদাসাহেব ফালকের সম্মান পেয়েছেন বিনোদ খন্না। শ্রেষ্ঠ হিন্দি ছবি বাছা হয়েছে রাজকুমার রাও অভিনীত ‘নিউটন’কে।

‘মম’-এ শ্রীদেবী

পুরোদস্তুর মনোরঞ্জন দেওয়ার জন্য সেরা ছবির পুরস্কার পেয়েছে এস এস রাজামৌলীর ‘বাহুবলী: দ্য কনক্লুশন’। স্পেশ্যাল এফেক্টস ও অ্যাকশনের জন্যও পুরস্কার পেয়েছে ‘বাহুবলী টু’। রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ ৩ মে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেবেন।