চরিত্রের খাতিরে কত কী-ই না করতে হয় অভিনেতাদের। কখনও দাড়ি, কখনও বা ক্লিন শেভড লুক। তবে মুশকিল বাধে, যদি অভিনেতার ত্বক স‌ংবেদনশীল হয়! ইচ্ছে থাকলেও তিনি চরিত্রের ধাঁচে নিজেকে ঢালতে পারেন না। কিছুটা এমনই হাল সব্যসাচী চক্রবর্তীর। দাড়ি লাগালেই তাঁর অ্যালার্জি হয়। আসলে দাড়ি লাগানোর আঠা থেকেই এই সমস্যা। গত কুড়ি বছরে অভিনেতা কোনও চরিত্রের জন্যই দাড়ি লাগাননি। এমনকি অনেক নামকরা পরিচালকের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন, শুধু মাত্র এই দাড়ি বিভ্রাটের জন্য। তবে সায়ন্তন ঘোষালের ‘টেনিদা অ্যান্ড কোং’-এর জন্য ঝুঁকি নিলেন অভিনেতা।

এই ছবিতে বিজ্ঞানী সাতকড়ি সাঁতরার চরিত্রে দেখা যাবে তাঁকে। চরিত্রটি তাঁর এত পছন্দের যে, অ্যালার্জি প্রতিরোধক ওষুধ খেয়ে দাড়ি লাগিয়েছেন। ছবিতে অভিনেতার স্ত্রী মিঠু চক্রবর্তীও রয়েছেন। ইউনিটের সদস্যদের তিনি বলেছেন, ‘‘কী বলে ওকে এই অসাধ্য সাধনে রাজি করালে?’’