বিগ বস সিজন এগারোর অন্যতম আকর্ষণ ছিল হিনা খান ও শিল্পা শিন্ডের ঝগড়া। দুই অভিনেত্রী যে পরস্পরের চক্ষুশূল, তা জানতে কারও বাকি নেই। দিন পেরিয়ে গেলেও তাঁদের সম্পর্কের তিক্ততা কমেনি, বরং বেড়েছে। টুইট ও পাল্টা টুইট তার প্রত্যক্ষ প্রমাণ।

ঘটনাটি হল, গত বছর ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিয়ো ক্লিপে দাবি করা হয়েছিল, শিল্পার মতো দেখতে এক মহিলাকে আপত্তিজনক অবস্থায় এক পুরুষের সঙ্গে দেখা গিয়েছে। সেই বিতর্কের জবাবে দিন কয়েক আগে টুইটারে একটি অশ্লীল ভিডিয়োর ছবি পোস্ট করে শিল্পা ক্যাপশনে লেখেন, ‘এই ভিডিয়ো দেখে আপনারা জানতে পারবেন যে, যাদের জীবনে কোনও কাজ নেই, তারাই অন্যের সর্বনাশ করার সব রকম চেষ্টা করে। এটাই আসল ভিডিয়ো যা দেখিয়ে আমাকে বদনাম করার চেষ্টা হয়েছিল।’ টুইটারে শিল্পার এই পদক্ষেপের পক্ষে-বিপক্ষে অনেকেই মতামত রেখেছেন। তবে তাঁদের মধ্যে স্বাভাবিক কারণে নজর কেড়েছেন হিনা খান ও তাঁর প্রেমিক রকি জায়সবাল।

রকির বক্তব্য, ‘শিল্পার সঙ্গে যা হয়েছে, সেটা অন্যায়। তার প্রতিবাদে ও কথা বলতেই পারে। তবে ওই ভিডিয়ো পোস্ট করার আগে ও কি সংশ্লিষ্ট মহিলার অনুমতি নিয়েছিল? যদি তাঁর বিরুদ্ধে প্রমাণ থাকে, তবে আইনের সাহায্য নেওয়া হোক। এক জন তারকা হয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ধরনের ভিডিয়ো পোস্ট করা কি ঠিক?’ হিনার কথায়, ‘জীবন কিন্তু রিয়্যালিটি শো নয়! সেলেব একটি টুইটের মাধ্যমে লক্ষ লক্ষ মানুষের কাছে পৌঁছে যেতে পারেন। তাই তাঁদের সেই দায়িত্ববোধটুকু থাকা উচিত।’ জবাব দিতে পিছিয়ে নেই শিল্পাও। ইনস্টাগ্রামে একটি ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘যারা ঘৃণা ছড়ায়, তাদের জন্য সময় নেই।’