দু’দিন বন্ধ থাকার পর বৃহস্পতিবার ‘ভূমিকন্যা’র শুটিং শুরু হচ্ছে। টেকনিশিয়ানদের পারিশ্রমিক বাকি থাকার অভিযোগে ফেডারেশন অব সিনে টেকনিশিয়ানস অ্যান্ড ওয়র্কার্স অফ ইস্টার্ন ইন্ডিয়া শুটিং বন্ধ করার নির্দেশ দেয় বলে জানান শোয়ের পরিচালক অরিন্দম শীল। গত মঙ্গলবার এবং বুধবার বন্ধ ছিল ‘ভূমিকন্যা’র শুটিং। এ দিকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নির্দেশ দিয়েছিলেন, যত সমস্যাই হোক  কোনও অবস্থাতেই যেন শুটিং বন্ধ না হয়। অথচ সেই নির্দেশ অমান্য করেই বন্ধ রইল শুটিং।

অরিন্দমের কথায়, ‘‘আমার একটাই প্রশ্ন, ফেডারেশন কী করে মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ অমান্য করে? অরূপ বিশ্বাসের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে, উনি বিষয়টি খতিয়ে দেখবেন বলেছেন। ওঁর কথাতেই আমরা বৃহস্পতিবার থেকে শুটিং শুরু করছি।’’

শুটিং চালু হলেও জট কাটেনি। ফেডারেশন প্রাথমিক ভাবে স্বীকারও করেনি যে, তাদের নির্দেশেই শুটিং বন্ধ হয়েছে। অথচ তাদের করা প্রযোজকদের (ডব্লুএটিপি) ইমেলে লেখা আছে, পাওনা আদায় না হলে শুটিং বন্ধের কথা। ‘‘টাকা বাকি থাকার কথা আমি একবারও অস্বীকার করছি না। সেই টাকা শুক্রবার দিয়ে দেব বলেছিলাম। তার আগেই শুটিং বন্ধ করে দেওয়া হল। মুখ্যমন্ত্রী যে কমিটি করে দিয়েছিলেন, সেখানেও বিষয়টি নিয়ে যাওয়া যেত। কিন্তু ফেডারেশন সেটাও করেনি। এদের ঔদ্ধত্য, মিথ্যাচারিতা আমাকে অবাক করছে,’’ বলছেন অরিন্দম। শুটিং বন্ধের জন্য আর্থিক ক্ষতির দায়ভার কে নেবে, সেই প্রশ্নও তুলেছেন তিনি।

‘ভূমিকন্যা’ যেহেতু টিভি সিরিজ় তাই এর ব্যাঙ্কিং ছিল। যে কারণে টেলিকাস্টে কোনও সমস্যা হয়নি। কিন্তু আসল সমস্যা আরও গভীরে!