সে ভাবে দেখতে গেলে বড় পরদায় তাঁর প্রথম কাজ অরিন্দম শীলের ‘আসছে আবার শবর’ই। কিন্তু তুহিনা দাস ইতিমধ্যেই বেশ নজর কেড়েছেন টলিউডের পরিচালকদের। এখন সৃজিত মুখোপাধ্যায় থেকে কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়— সকলের ছবিতেই কমবেশি থাকছেন তিনি। শবর-সিরিজে নাম লেখানোর আগে তুহিনা অবশ্য বছরখানেক কৌশিক সেনের দলে থিয়েটার করেছেন। দেড় বছর ছোট পরদাতেও কাজ করেছেন তিনি। তবে বরাবরই সিনেমা তাঁকে বেশি করে টানত। বললেন, ‘‘আমি ছোট পরদায় অনেকগুলোই কাজ করেছি। ম়ডেলিংও করেছি বেশ কিছু। কিন্তু কোনও দিনই এগুলোতে তেমন কমফর্টেবল ছিলাম না। সব সময় ইচ্ছে করত, বড় পরদায় কাজ করতে।’’

তুহিনা সদ্য শেষ করেছেন সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের ‘এক যে ছিল রাজা’র শুট। সেখানে একটি টুকরো চরিত্র করেছেন তিনি। কাজ করেছেন কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়ের ‘দৃষ্টিকোণ’-এও। দু’টি ছবিই মুক্তি পাবে এ বছর। তার মধ্যেই আবার চললেন বানতলায়, অরিন্দম শীলের টেলিভিশন সিরিজের কাজ শেষ করতে। সেখানে তিনি স্ক্রিন শেয়ার করছেন অনির্বাণ ভট্টাচার্য, সোহিনী সরকারদের সঙ্গে। তুহিনার কথায়, ‘‘বেশ কিছু অফার পাচ্ছি। তবে আরও বেশি করে ছবির কাজ করতে চাই।’’

শোনা যাচ্ছে, অপর্ণা সেনের পরের ছবিতেও তুহিনা কাজ করছেন। এবং এত দিন ছোটখাটো রোল করে এলেও এই প্রথম অপর্ণার ছবিতে মুখ্য চরিত্রেই দেখা যাবে তাঁকে। সঙ্গে অবশ্য যিশু সেনগুপ্তরও থাকার কথা। তবে অপর্ণার ছবিতে কাজ করা নিয়ে কোনও কথা বলতে চাইলেন না তুহিনা। বললেন, ‘‘আমাকে রিনাদি অডিশনের জন্য ডেকেছিলেন। কিছুই কনফার্মড নয়।’’

কী ভাবে অভিনয়ে এলেন তিনি? তুহিনার উত্তর, ‘‘অন্য একটা ছবির জন্য অডিশন দিতে গিয়েছিলাম। সেটার নাম আর বলছি না। তবে সেখানে অরিন্দমদাও ছিলেন। তার পর কথাবার্তা হতে আমাকে জানালেন শবরে একটি চরিত্রের কথা। সেখান থেকেই ‘আসছে আবার...’-এ আমার কাজ করা।’’ অবসর সময়ে কী করেন তিনি? ‘‘রান্না করতে ভালবাসি। গান গাইতেও। ছোটবেলা থেকেই গান শিখেছি, কিন্তু এখন সময়ের অভাবে তেমন চর্চা হয় না,’’ হেসে বললেন তুহিনা।