কমার্শিয়াল রোম্যান্টিক হিরোর চরিত্র যেমন অনায়াসে করতে পারেন, তেমন চ্যালেঞ্জিং রোলেও বরুণ ধওয়ন সমান সাবলীল। সামনেই মুক্তি পাচ্ছে ‘কলঙ্ক’। বরুণ জানিয়েছেন, তাঁর করা কঠিনতম চরিত্র জ়াফরের চরিত্রটি। ছবিটির জন্য প্রচুর পরিশ্রমও করেছেন অভিনেতা।

শুটিংয়ের সময়ে সেটে চোট পেয়েছেন বহু বার। গত বছর গরমেই হাঁটুতে চোট পেয়েছিলেন তিনি। তখন শুটিংয়ের সঙ্গে সঙ্গে ফিজ়িক্যাল ট্রেনিং এবং ফি‌জ়িওথেরাপি দুটোই করতেন বরুণ। মুম্বইয়ে যখন শিডিউল চলছিল, তখনও নিজের বাড়ি ছেড়ে সেটের পাশের একটি হোটেলে থাকতেন দিনের পর দিন। বিশেষ এক ধরনের চেহারা বানানোর জন্য পার্সোনাল ট্রেনার প্রশান্ত সবন্তের সঙ্গে দিনে দু’বার করে ট্রেনি‌ং করতেন বরুণ। এত পরিশ্রম কেন জানেন? জানা গিয়েছে, সঞ্জয় দত্ত, মাধুরী দীক্ষিত, আলিয়া ভট্টের মতো দাপুটে অভিনেতারা থাকলেও বরুণের চরিত্রটির উপরে ছবির অনেকটা অংশের দায়িত্ব রয়েছে।

সময়মতো বরুণ নিজেকে বদলে ফেলতেও পারেন। ‘স্টুডেন্ট অব দ্য ইয়ার’-এর মতো ছবি দিয়ে কেরিয়ার শুরু করে যখন পরপর কমেডি ছবি করছিলেন, তখন তাঁকে কমার্শিয়াল হিরোর উপাধি দেওয়া হয়েছিল। তখনই তিনি ‘বদলাপুর’ করে নিজের ইমেজ বদলে নেন। আবার ‘ঢিসুম’, ‘দিলওয়ালে’র মতো ছবি করার পরে যখন সকলে ভাবছিলেন, বরুণ কমফর্ট জ়োনে চলে যাচ্ছেন, ঠিক সেই সময়ে সুজিত সরকারের ‘অক্টোবর’ করে বরুণ তাক লাগিয়ে দেন। ‘কলঙ্ক’-এও নিজের সেরাটা উজাড় করে দিচ্ছেন তিনি। 

দিল্লি দখলের লড়াইলোকসভা নির্বাচন ২০১৯