ডায়েট ও নিয়মিত ব্যায়াম করা ওজন কমানোর অব্যর্থ পন্থা। সেটা সকলেরই জানা। কিন্তু অনেক পরিকল্পনা করেও লক্ষ্যপূরণ হয় না। বরং খাওয়ার অভ্যেসে কিছু বদল এনে দেখতে পারেন। খাওয়ার প্রবৃত্তি কমলে এমনিই ওজন কমবে। সেটা কী ভাবে সম্ভব? রইল তেমন কিছু ঘরোয়া উপায়...

খাবারের প্লেটের আয়তন ছোট হোক। তাতে খাবারের পরিমাণও কম ধরবে। আবার এমন কোনও রঙের প্লেট ব্যবহার করতে পারেন, যা আপনার অপছন্দ। ওই প্লেটে খেতে একটু হলেও আপনার অস্বস্তি বাড়বে। খাবেনও কম।

চামচের বদলে কাঁটা বেশি ব্যবহার করুন। বিভিন্ন গবেষণায় প্রমাণিত, কাঁটা দিয়ে খাবার খেলে চামচের তুলনায় খাবার কম পরিমাণে খাওয়া হয়। সেটা চকলেট কেকের জন্যও প্রযোজ্য।

আয়নার সামনে খাবার খান। পরীক্ষায় দেখা গিয়েছে, আয়নার সামনে খেতে বসলে মানুষ নিজের চেহারা সম্পর্কে একটু বেশি সচেতন হয়ে যায়। ফলে খাওয়া হয় কম।

খাওয়ার গ্রাস ছোট করুন। ডেজ়ার্টের জন্যও মন শক্ত করে তিন চামচের বেশি নয়— এই নিয়ম মেনে চলুন।

রাতে ঘুমোনোর তিন ঘণ্টা আগে খাওয়া সেরে ফেলুন। বেশি রাত জেগে স্ন্যাক্স খাওয়ার অভ্যেসও বন্ধ করুন।

খাওয়ার আগে নিজেকে প্রশ্ন করুন, আদৌ কি খিদে পেয়েছে? না সবটাই চোখের খিদে? তেমন খিদে না পেলে তখন খাবেন না। একটা আপেল খাওয়ার মতোও যদি খিদে না পায়, তবে সে খিদে মেটানোর দরকার নেই!

অনেকক্ষণ খিদে চেপে রাখলে কিন্তু মুশকিল। তখন এক বারে অনেকটা খেতে ইচ্ছে করবে। তাই তিন-চার ঘণ্টা অন্তর অল্প অল্প করে খেয়ে পেট ভরিয়ে রাখুন।

খালি পেটে মুদির বাজার করবেন না। তরকারি-ফলের বাজারে গেলে ফর্দ সঙ্গে রাখুন।

খাওয়ার সঙ্গে মনস্তাত্ত্বিক যোগ প্রবল। ওজন কমাতে হলে মনকেও বশে আনতে হবে। তবে কোনও মিল বাদ দেবেন না।