প্রশ্ন: ফিশারি সায়েন্স নিয়ে কেরিয়ার গড়ার ইচ্ছে আছে। স্নাতক ও স্নাতকোত্তর স্তরে বিষয়টি কোথায় পড়ায়? এর পরে কাজের সুযোগ কেমন?  

শ্যামলী পোদ্দার, মেদিনীপুর
 

রাজ্যে পড়াশোনা

আমাদের রাজ্যে পশ্চিমবঙ্গ প্রাণী ও মৎস্য বিজ্ঞান বিশ্ববিদ্যালয়েই পেশাগত মৎস্য বিজ্ঞান বিষয়ে ডিগ্রি কোর্স পড়ানো হয়। এখানে এই বিষয়ে ৪ বছরের স্নাতক (বি এফ এসসি), ২ বছরের স্নাতকোত্তর (এম এফ এসসি) ও ৩ বছরের ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জন করা যায়।

 

যোগ্যতা

১) উচ্চ মাধ্যমিক বা সমতুল পরীক্ষায় পদার্থবিদ্যা, রসায়ন, জীববিদ্যা ও ইংরেজি-সহ সাধারণ শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের ন্যূনতম ৫০ শতাংশ এবং তফসিলি জাতি ও জনজাতি শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের ন্যূনতম ৪০ শতাংশ নম্বর পেয়ে পাশ করতে হবে।

২) পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ী বাসিন্দা 

হতে হবে।

উচ্চ মাধ্যমিকের ফল বেরনোর সাধারণত সাত থেকে দশ দিনের মধ্যেই সরকার অনুমোদিত দৈনিক সংবাদপত্রে ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে এর বিজ্ঞাপন বেরোয়। উচ্চ মাধ্যমিক বা সমতুল পরীক্ষায় উপরে উল্লিখিত বিষয়ে সর্বমোট প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে মেধা তালিকা তৈরি করা হয়। আবেদনপত্র জমা দেওয়া থেকে মেধা তালিকা প্রকাশ সম্পূর্ণ অনলাইন পদ্ধতিতে সম্পন্ন হয় সাধারণত। বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে তা প্রকাশ করা হয়। এর মধ্যে ১৫ শতাংশ আসনে ভর্তি  নেওয়া হয় ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব এগ্রিকালচারাল রিসার্চ (www.icar.org.in) পরিচালিত সর্বভারতীয় পরীক্ষার মাধ্যমে। এর পর মেধা তালিকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (www.wbuafsce.org) প্রকাশ করা হয় এবং মেধা তালিকা থেকে বেলগাছিয়ায় অবস্থিত বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ামকের কার্যালয়ে ভর্তির প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক স্তরে মোট ৪৪ জন ছাত্রছাত্রী এ বিষয়ে পড়ার সুযোগ পায়। 

 

পেশাগত বিষয় ও বিভাগ

এই বিশ্ববিদ্যালয়ে মৎস্য বিজ্ঞানের পেশাগত বিষয় ও বিভাগগুলি হল—

১) অ্যাকোয়াকালচার

২) অ্যাকোয়াটিক এনভায়রনমেন্ট ম্যানেজমেন্ট

৩) ফিশারিজ় রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট

৪) অ্যাকোয়াটিক অ্যানিম্যাল হেলথ

৫) ফিশ প্রসেসিং টেকনোলজি

৬) ফিশারি এক্সটেনশন

৭) ফিশারি ইকনমিক্স অ্যান্ড স্ট্যাটিসটিক্স

৮) ফিশারি ইঞ্জিনিয়ারিং

উপরের ৮টি বিষয়ে এম এফ এসসি (মাস্টার্স) এবং প্রথম ৭টি বিষয়ে এম এফ এসসি (মাস্টার্স) ও পিএইচ ডি (ডক্টরেট) দুটোই করার সুযোগ আছে।

 

রাজ্যের বাইরে মৎস্য বিজ্ঞান পড়ার সুযোগ

দেশের বিভিন্ন রাজ্যে অবস্থিত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলি হল—

 

• কলেজ অব ফিশারিজ়, ম্যাঙ্গালোর

কর্নাটক ভেটেরিনারি, অ্যানিম্যাল অ্যান্ড ফিশারিজ় সায়েন্সেস ইউনিভার্সিটি, বিদর

www.cofm.edu.in

• ফিশারিজ় কলেজ অ্যান্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউট, থুতুকুড়ি 

ডক্টর জে জয়ললিতা ফিশারিজ় ইউনিভার্সিটি, তামিলনাড়ু

https://www.tnjfu.ac.in/fcritut/

• কেরালা ইউনিভার্সিটি অব ফিশারিজ় অ্যান্ড ওশ্‌ন স্টাডিজ়, পানানগড়, কোচি

www.kufos.ac.in

• কলেজ অব ফিশারিজ়, রত্নগিরি 

ডক্টর বালাসাহেব সাওন্ত কোঙ্কন কৃষি বিদ্যাপীঠ, দাপোলি

www.dbskkv.org/f-Fishereis.html

• কলেজ অব ফিশারিজ়, রঙ্গেইলুন্ডা, ব্রহ্মপুর

ওড়িশা ইউনিভার্সিটি অব এগ্রিকালচার অ্যান্ড টেকনোলজি

www.cofouat.in 

• কলেজ অব ফিশারিজ়, পন্থনগর 

গোবিন্দবল্লভ পন্থ ইউনিভার্সিটি অব এগ্রিকালচার অ্যান্ড টেকনোলজি

www.gbpuat.ac.in/colleges/COF/index.html 

• কলেজ অব ফিশারিজ়, পুসা, সমস্তিপুর

ডক্টর রাজেন্দ্র প্রসাদ সেন্ট্রাল এগ্রিকালচারাল ইউনিভার্সিটি 

www.rpcau.ac.in/colleges/college-of-fisheries

• কলেজ অব ফিশারিজ় সায়েন্স, রাহা

অসম কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়

www.aau.ac.in/colleges/name/college-of-fisheries-science/7

• সেন্ট্রাল ইনস্টিটিউট অব ফিশারিজ় এডুকেশন, মুম্বই

www.cife.edu.in

• কলেজ অব ফিশারিজ়, লেম্বুচেরা, ত্রিপুরা

সেন্ট্রাল এগ্রিকালচারাল ইউনিভার্সিটি, ইম্ফল

http://cofcau.nic.in

• কলেজ অব ফিশারিজ়, উদয়পুর

মহারানা প্রতাপ ইউনিভার্সিটি অব এগ্রিকালচার, রাজস্থান

www.cofudaipur.ac.in

• কলেজ অব ফিশারিজ়, ভেরাভাল

জুনাগড় এগ্রিকালচারাল ইউনিভার্সিটি, গুজরাত

http://www.jau.in/cof

• ফ্যাকাল্টি অব ফিশারিজ়, রঙ্গিল

শের-ই-কাশ্মীর ইউনিভার্সিটি অব এগ্রিকালচারাল সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি অব কাশ্মীর

http://skuastkashmir.net/frmFacultyFisheries.aspx

• কলেজ অব ফিশারি সায়েন্স, নাগপুর

মহারাষ্ট্র অ্যানিম্যাল অ্যান্ড ফিশারি সায়েন্সেস ইউনিভার্সিটি

http://cofsngp.org 

• কলেজ অব ফিশারি সায়েন্স, উদগীর

মহারাষ্ট্র অ্যানিম্যাল অ্যান্ড ফিশারি সায়েন্সেস ইউনিভার্সিটি, নাগপুর

http://cofsu.in

• কলেজ অব ফিশারিজ়, লুধিয়ানা

গুরু অঙ্গদদেব ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস ইউনিভার্সিটি

http://www.gadvasu.in/college/ug-Colleges-Institutes/1357583476

• কলেজ অব ফিশারিজ়, কাওয়ার্ধা

ছত্তীসগঢ় কামধেনু ইউনিভার্সিটি

http://cgkv.ac.in/fisheries.aspx

• ফিশারিজ় কলেজ অ্যান্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউট, পোন্নেরি

ডক্টর জে জয়ললিতা ফিশারিজ় ইউনিভার্সিটি, তামিলনাড়ু

http://tnfu.ac.in/pages/view/fc_ri_ponneri

• কলেজ অব ফিশারিজ় ইঞ্জিনিয়ারিং, নাগাপট্টিনম

ডক্টর জে জয়ললিতা ফিশারিজ় ইউনিভার্সিটি, তামিলনাড়ু 

http://tnfu.ac.in/pages/view/cofe_nagapattinam

• কলেজ অব ফিশারি সায়েন্স, মুথুকুর

শ্রীবেঙ্কটেশ ভেটেরিনারি ইউনিভার্সিটি, তিরুপতি

www.svvu.edu.in/CfscMuthukur.html

• ফিশারি কলেজ, জব্বলপুর

নানাজি দেশমুখ ভেটেরিনারি সায়েন্স ইউনিভার্সিটি, মধ্যপ্রদেশ

www.ndvsu.org/index.php/contact/16-fishery-college-jabalpur

• কলেজ অব ফিশারিজ় ইঞ্জিনিয়ারিং, নাগাপট্টিনম

ডক্টর জে জয়ললিতা ফিশারিজ় ইউনিভার্সিটি, তামিলনাড়ু

www.tnjfu.ac.in/cofenag

• ফ্যাকাল্টি অব ফিশারি সায়েন্সেস, চকগড়িয়া, কলকাতা

ওয়েস্ট বেঙ্গল ইউনিভার্সিটি অব অ্যানিম্যাল অ্যান্ড ফিশারি সায়েন্সেস

 

কিছু নতুন কলেজ হয়েছে। যেমন, 

• কলেজ অব ফিশারিজ়, এটাওয়া, কানপুর 

চন্দ্রশেখর আজাদ ইউনিভার্সিটি অব এগ্রিকালচার অ্যান্ড টেকনোলজি, উত্তরপ্রদেশ

http://csauk.ac.in/college-of-fisheries

• কলেজ অব ফিশারিজ়, কিষানগঞ্জ,

বিহার অ্যানিমাল সায়েন্সেস ইউনিভার্সিটি

www.basu.org.in/colleges/cof

 

পেশাগত সুযোগ-সুবিধা

এখানে প্রথাগত পঠনপাঠন ছাড়াও প্রয়োগ বা পেশাভিত্তিক ব্যবহারিক জ্ঞান অডিয়ো-ভিস্যুয়াল-এর মাধ্যমে প্রদান করা হয়। সপ্তম ও অষ্টম সিমেস্টারে প্রধানমন্ত্রীর ‘স্টুডেন্ট রেডি’ প্রকল্পের আওতায় মাছ চাষীর খামারে বা সরকারি খামারে গ্রাম্য কৃষি কাজের অভিজ্ঞতা (RAWE বা Rural Agricultural Work Experience and Fisheries Experiential Learning) হাতে-কলমে অর্জন করতে পারে। বিভিন্ন মৎস্য প্রক্রিয়াকরণ কেন্দ্রে তাদের ব্যবসাভিত্তিক পাঠ দেওয়া হয়। এ ছাড়াও ভারতবর্ষের বিশেষ বিশেষ মৎস্য গবেষণাগারে পাঠিয়ে মৎস্য গবেষণায় ছাত্রছাত্রীদের উদ্বুদ্ধ করা হয়। হাতে-কলমে শিক্ষা পদ্ধতিই পেশাগত মৎস্য বিজ্ঞান শিক্ষার মূল উদ্দেশ্য, যাতে ছাত্রছাত্রীরা স্বনির্ভর হতে পারে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রতি বছর মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের বৃত্তি প্রদান করে। এ ছাড়াও প্রতিষ্ঠানের বৃত্তি অর্জনের লক্ষ্যে ছাত্রছাত্রীদের আলাদা ভাবে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

 

যা মনে রাখার

মৎস্য বিজ্ঞান মূলত বায়োসায়েন্সের অন্যতম শাখা। তাই বায়োলজিতে আগ্রহ থাকলে এ বিষয়ে উচ্চ স্তরে পড়াশোনা ও গবেষণার প্রভূত সুযোগ আছে। মনে রাখতে হবে, মাছ চাষ ও আহরণ সাধারণত গ্রাম্য পরিবেশে ও দুর্গম অঞ্চলে সীমাবদ্ধ। তাই গ্রামেগঞ্জে কাজ করার মানসিকতা থাকা দরকার। যদিও শিক্ষকতা ও গবেষণার সঙ্গে যুক্ত হতে পারলে শহরাঞ্চলেও কাজ করার সুযোগ আছে। সারা দেশে এই শাখায় ইংরেজি মাধ্যমে পড়াশোনা হয়। ফলে ইংরেজিতে পড়াশোনা ও কথা বলার অভ্যাস করা বিশেষ প্রয়োজন।

 

কাজের ক্ষেত্র

পশ্চিমবঙ্গ প্রাণী ও মৎস্য বিজ্ঞান বিশ্ববিদ্যালয়ের মৎস্য বিজ্ঞান অনুষদের অধ্যক্ষ অধ্যাপক বিপুল কুমার দাসের মতে, অধিকাংশ স্নাতক বা স্নাতকোত্তর ডিগ্রিপ্রাপ্ত ছাত্রছাত্রীরা পশ্চিমবঙ্গ সরকারের মৎস্য দফতরের মৎস্য সম্প্রসারণ আধিকারিক (Fishery Extensio• Officer) হিসাবে চাকরিরত। এ ছাড়া, ছাত্রছাত্রীরা কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক, কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনে মৎস্য বিজ্ঞানী, বিভিন্ন ব্যাঙ্কে কৃষি আধিকারিক, কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্রে মৎস্য বিশেষজ্ঞ, রাজ্য সরকারের মৎস্য দফতরের সহকারী ও সহযোগী নির্দেশক হিসেবে কাজের জীবন শুরু করতে পারে। আবার বিদেশেও উচ্চশিক্ষা, গবেষণা ও চাকরির অনেক সুযোগ মেলে।