প্রশ্ন: বিজ্ঞানের ছাত্র। সাবজেক্ট কম্বিনেশনে বায়োলজি আছে। ভবিষ্যতে ফিজিয়োলজি নিয়ে পড়তে চাই। স্নাতক স্তরে কোথায় কোথায় বিষয়টি পড়া যায়? এর পরে কী ধরনের উচ্চশিক্ষা করা যায়? আর গবেষণা? বিদেশেও বা উচ্চশিক্ষার সুযোগ কেমন? কী ধরনের চাকরি পাওয়া যায়?  

অরিন্দম দাস, বেকবাগান

প্রাণী, উদ্ভিদ এবং জীবাণুর প্রাণের উৎসের আধুনিক বিজ্ঞানসম্মত ব্যাখ্যাই  হল ফিজিয়োলজি বা শারীরবিদ্যা। দ্বাদশ শ্রেণির সায়েন্স কম্বিনেশনে যদি কেমিস্ট্রি এবং বায়োলজি থাকে, তা হলে স্নাতক স্তরে ফিজিয়োলজি নেওয়া যায়। অবশ্য, ফিজিক্স, কেমিস্ট্রি এবং অঙ্ক থাকলে পরে উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে অনেকটা সুবিধে মেলে। 

কোনও ছাত্র বা ছাত্রীর ভবিষ্যৎ লক্ষ্য কী তার উপরে পাস-এ কী বিষয় নেওয়া উচিত, তা অনেকখানি নির্ভর করে। যদি কারও পরে গবেষণা করার ইচ্ছে থাকে তা হলে কেমিস্ট্রির সঙ্গে জুলজি, ফিজিক্স, মাইক্রোবায়োলজি বা মলিকিউলার বায়োলজি নেওয়া যায়। যারা পরে স্কুলশিক্ষকতায় যোগ দিতে চায়, তারা জুলজির সঙ্গে বটানি নিতে পারে। স্কুল সার্ভিস কমিশনের মতো পরীক্ষাতে সুবিধে হয়।

দেখে নাও

স্নাতকোত্তরে ডিপ্লোমা
ইন্দিরা গাঁধী ন্যাশনাল সেন্টার ফর দ্য আর্টস-এর বিভিন্ন স্বল্প মেয়াদের স্নাতকোত্তর কোর্সে ভর্তির জন্য আবেদন জমা নেওয়া হচ্ছে। কোর্সগুলি: ১) কালচারাল ইনফরম্যাটিক্স;
২) প্রিভেন্টিভ কনজারভেশন;
৩) বুদ্ধিস্ট স্টাডিজ;
৪) ডিজিটাল লাইব্রেরি অ্যান্ড ডেটা ম্যানেজমেন্ট;
৫) ম্যানুস্ক্রিপ্টোলজি অ্যান্ড প্যালাইয়োগ্রাফি;
৬) সাউথ ইস্ট এশিয়ান স্টাডিজ; 
৭) কালচারাল ম্যানেজমেন্ট
আবেদন করা যাবে অনলাইন ও অফলাইন (পোস্টের মাধ্যমে)। অনলাইনের ক্ষেত্রে মেল আইডি osdignca@gmail.com। আবেদন করার শেষ তারিখ ৮ জুলাই। কাউন্সেলিং হবে ১৫ এবং ১৬ জুলাই। কোর্সগুলির সম্পর্কে আরও বিশদে জানতে দেখতে হবে ওয়েবসাইট: www.ignca.gov.in 

ইংরেজির কোর্স 
যাঁদের বয়স আঠারো বছরের ঊর্ধ্বে, তাঁদের জন্য বিভিন্ন ধরনের ইংরেজির কোর্স করাবে ব্রিটিশ কাউন্সিল। রেজিস্ট্রেশন চলবে ৭ জুলাই পর্যন্ত। যোগাযোগ: ০১২০-৪৫৬৯০০০/ ০১২০-৬৬৮৪৩৫৩

অনার্স কিংবা জেনারেল বিষয় হিসেবে রাজ্যের অনেক কলেজেই বিষয়টি পড়ানো হয়। যেমন—

• বিদ্যাসাগর কলেজ

www.vidyasagarcollege.edu.in  

• বিদ্যাসাগর কলেজ ফর উইমেন http://vcfw.org

• বিদ্যাসাগর ইভনিং কলেজ

www.vec.ac.in

• হুগলি মহসিন কলেজ

www.hooghlymohsincollege.org

• রামমোহন কলেজ 

www.rammohancollege.org/physiology

• আনন্দমোহন কলেজ 

anandamohancollege.ac.in

• শ্রীরামপুর কলেজ 

www.seramporecollege.org

• সুরেন্দ্রনাথ কলেজ 

www.surendranathcollege.org

• সিটি কলেজ

www.citycollegekolkata.org

• রাজা নরেন্দ্রলাল খান উইমেন’স কলেজ

www.rnlkwc.ac.in/

• রাজা পিয়েরি মোহন কলেজ, হুগলি

https://rpmcollege.org/academics/programmes ইত্যাদি

 

উচ্চশিক্ষা 

রাজ্যের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় এবং কলেজে স্নাতকোত্তর স্তরে ফিজিয়োলজি পড়ানো হয়। যেমন— • কলিকাতা বিশ্ববিদ্যালয় 

www.caluniv.ac.in

• বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয় 

http://vidyasagar.ac.in

• কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয় 

www.klyuniv.ac.in 

• বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয় 

www.buruniv.ac.in 

• ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট ইউনিভার্সিটি 

www.wbsubregistration.org ইত্যাদি। 

আর, কলেজগুলির ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য— 

• হুগলি মহসিন কলেজ

• রামমোহন কলেজ 

ইত্যাদি। রাজ্যে এম এসসি কোর্স দু’বছরের। 

রাজ্যের বাইরে ত্রিপুরা বিশ্ববিদ্যালয়ে হিউম্যান ফিজিয়োলজি-তে দু’বছরের এম এসসি পড়ানো হয়। আবার  অন্যান্য অনেক প্রতিষ্ঠানে স্নাতকোত্তর তিন বছরের। দক্ষিণ ভারতের বিভিন্ন কলেজে এই কোর্স রয়েছে। এই সব জায়গায় মূলত মেডিকাল ফ্যাকাল্টির অন্তর্গত ফিজিয়োলজি পড়ানো হয়। এদের মধ্যে মণিপালের কস্তুরবা মেডিকাল কলেজ, সিকিম মণিপাল বিশ্ববিদ্যালয়, ম্যাড্রাস ইউনিভার্সিটি, এনআরআই মেডিকাল কলেজ, পুদুচ্চেরি-র বিভিন্ন প্রাইভেট মেডিকাল কলেজ উল্লেখযোগ্য। 

যারা এখান থেকে স্নাতকোত্তর পাশ করে, তারা পরে বিভিন্ন মেডিকাল কলেজে ফ্যাকাল্টি হিসেবে যোগ দিতে পারে। অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিকাল সায়েন্সেস-এ একটা এম এসসি কোর্স রয়েছে। 

 

স্পেশালাইজেশন

• নিউরোফিজিয়োলজি

• এন্ডোক্রিনোলজি অ্যান্ড রিপ্রোডাকটিভ ফিজিয়োলজি

• স্পোর্টস ফিজিয়োলজি

• আর্গোনমিক্স অ্যান্ড ওয়ার্ক ফিজিয়োলজি 

• এনভায়রনমেন্টাল ফিজিয়োলজি

• বায়োকেমিস্ট্রি

• বায়োফিজিক্স

• মাইক্রোবায়োলজি-ইমিউনোলজি

• নিউট্রিশনএই সব নানান ক্ষেত্রে মাস্টার্স স্তরে স্পেশালাইজেশনের সুযোগ মেলে।

 

গবেষণা

পিএইচ ডি করতে হলে ‘নেট’ বা ‘রেট’ পরীক্ষায় পাশ করতে হবে। নেট হল ন্যাশনাল এলিজিবিলিটি টেস্ট আর রেট, রিসার্চ এলিজিবিলিটি টেস্ট। নেট-এ ফিজিয়োলজি বলে আলাদা কোনও বিষয় নেই। আছে লাইফ সায়েন্স। পাশ করলে বায়োমেডিকাল রিসার্চ সংক্রান্ত বিষয়ে গবেষণা করা যায় অনেক প্রথম সারির গবেষণাগার বা তার অন্তর্গত প্রতিষ্ঠানে। যেমন, ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (ডিআরডিও), কাউন্সিল অব সায়েন্টিফিক অ্যান্ড ইনডাস্ট্রিয়াল রিসার্চ (যেমন, সেন্ট্রাল ড্রাগ রিসার্চ ইনস্টিটিউট, www.cdri.res.in, ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব কেমিক্যাল বায়োলজি, http://iicb.res.in), ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিকাল রিসার্চ (যেমন, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব কলেরা অ্যান্ড এন্টেরিক ডিজিজেস, www.niced.org.in), ডিপার্টমেন্ট অব বায়োটেকনোলজি (যেমন, ন্যাশনাল সেন্টার ফর সেল সায়েন্স, www.nccs.res.in), ডিপার্টমেন্ট অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি (যেমন, বোস ইনস্টিটিউট, http://www.jcbose.ac.in/home), ডিপার্টমেন্ট অব অ্যাটমিক এনার্জি (যেমন, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চ ভুবনেশ্বর www.niser.ac.in, টাটা ইনস্টিটিউট অব ফান্ডামেন্টাল রিসার্চ, www.tifr.res.in) ইত্যাদি। এ ছাড়া ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স বেঙ্গালুরু www.iisc.ac.in, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব মেন্টাল হেল্‌থ অ্যান্ড নিউরোসায়েন্সেস www.nimhans.ac.in, জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় www.jnu.ac.in, দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয় www.du.ac.in/du, বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়, হায়দরাবাদ সেন্ট্রাল বিশ্ববিদ্যালয়েও www.uohyd.ac.i• ফিজিয়োলজি এবং আনুষঙ্গিক বিষয়ে উচ্চশিক্ষা বা গবেষণা করাই যায়। যারা স্নাতকোত্তর স্তরে আর্গোনমিক্স নিয়ে স্পেশালাইজেশন করে, তারা পরে আইআইটি গুয়াহাটি, আইআইটি বম্বের মতো প্রতিষ্ঠানে ডিজ়াইন নিয়ে গবেষণা করতে পারে।

 

বিদেশ    

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বা কানাডায় অনেকেই যায়। এ ছাড়াও জার্মানি, সুইডেন, ফ্রান্স, স্পেন, ইতালি, অস্ট্রিয়া, নরওয়ে, সুইটজারল্যান্ড-এর মতো ইউরোপের বিভিন্ন দেশেও এখন উচ্চশিক্ষা করতে যাচ্ছে ছেলেমেয়েরা। আমেরিকা বা কানাডায় যেতে জিআরই, টোয়েফ্‌ল পরীক্ষা দিতে হয়। ইউরোপ-এর প্রতিষ্ঠানগুলিতে ভর্তি হওয়া যায় মূলত অ্যাকাডেমিক রেকর্ড-এর ভিত্তিতে। তার পর বায়োডেটা দেখে, ইন্টারভিউ-এর মাধ্যমে সুযোগ মেলে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানে। এখানে অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয়েই বৃত্তির সুযোগ থাকে। এখানেও বিভিন্ন বিষয়ে স্পেশালাইজেশন করা যায়। 

যেমন— 

• বায়োকেমিস্ট্রি 

• বায়োটেকনোলজি 

• নিউরোবায়োলজি 

• কগনিটিভ বিহেভিয়র 

• বিহেভিয়রাল সায়েন্স 

• স্পোর্টস ফিজিয়োলজি 

• আর্গোনমিক্স 

• ওয়াইল্ড লাইফ 

• ওয়াইল্ড লাইফ ইকোলজি

• জেনেটিক্স

• ক্যানসার বায়োলজি ইত্যাদি। 

 

অন্য বিষয়ে উচ্চশিক্ষা 

বি এসসি-র পর অন্য বিষয় নিয়েও উচ্চশিক্ষা করতে চাইলে বিভিন্ন বিষয়ে করা যায়। যেমন— 

• মলিকিউলার বায়োলজি 

• বায়োকেমিস্ট্রি 

• জেনেটিক্স 

• বায়োটেকনোলজি 

• নিউরোসায়েন্স 

• এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স ইত্যাদি। 

 

চাকরি

সর্বভারতীয় সিভিল সার্ভিসেস, ওয়েস্ট বেঙ্গল সিভিল সার্ভিস-এর মতো প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় বসতেই পারে ফিজিয়োলজির ছাত্রছাত্রীরা। ফুড প্রসেসিং, প্যাকেজিং, বায়োমেডিকাল ইন্ডাস্ট্রি, খেলাধুলোর মতো অনেক ক্ষেত্রেই কাজের সুযোগ থাকে তাদের। স্পোর্টস অথরিটি অব ইন্ডিয়া-তেও চাকরি পাওয়া যায়। এই ধরনের চাকরির পাশাপাশি গবেষণা, শিক্ষকতা তো রয়েছেই। যাদের আর্গোনমিক্স-এ স্পেশালাইজেশন থাকে, তারা বিভিন্ন দেশীয় বা বিদেশি সংস্থায় আর্গোনমিস্ট হিসেবে কাজ করতে পারে।