Indranil Sanyal

sketch

শেষ নাহি যে

মোবাইল পেয়ে খুশি দরিয়া। বিহানকে ফোন লাগাল। আজ বিহান তার কাছে খুব বকুনি খাবে। এক বার দেখতে আসা উচিত...
Painting

শেষ নাহি যে

“বকুলফুল তো তোমাকে ইশকুল থেকে জানে এবং চেনে। আর কত জানবে, হে প্রাণনাথ,” বুকে হাত দিয়ে ঘনঘন শ্বাস ফেলছে...
painting

শেষ নাহি যে

বিহান ঘাবড়ে গিয়েছে। রোগাপাতলা ছেলেটি মন্টুর নাম জানল কী করে? কী করে জানল সে কোথায় কাজ করে, কী কাজ করে!
image

শেষ নাহি যে

পূর্বানুবৃত্তি: দরিয়াকে অন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় খরাজ দল পথ আটকায়। গাড়ি থেকে নেমে সেই দলের...
Painting

শেষ নাহি যে

রাজনীতি। জলের মধ্যে যে ভাবে মাছ থাকে, সাম্যব্রত তেমনই মানুষের মধ্যে মিশে যেতে পারেন। বয়স হয়েছে,...
image

শেষ নাহি যে

পূর্বানুবৃত্তি: কলেজের পর লুকিয়ে বিয়ে করে দরিয়া-বিহান। সনৎ জানত না তাদের বিয়ের কথা। কিন্তু সনৎ...
painting

শেষ নাহি যে

বান্ধবীকে দেখে রাগে হাড়পিত্তি জ্বলে যাচ্ছে দরিয়ার। মেয়েটা স্কুলে পড়ার সময়ে এত গায়ে পড়া ছিল না।
Painting

শেষ নাহি যে

শীতের রোদে পিঠ দিয়ে গাদাগাদা প্রেমিক যুগল বসে রয়েছে সামনের চত্বরে। দরিয়া এক বার ভাবল, চেনা কেউ যদি...
image

শেষ নাহি যে

পূর্বানুবৃত্তি: দরিয়ার অপারেশনের পর ডাক্তার সাম্যব্রতকে তার সম্পর্কে ভাল ও খারাপ দুটো খবরই দেন।...
Hospital

শেষ নাহি যে

দরিয়ার চা খাওয়া শেষ। দুটি ছেলেমেয়ে কলকাতা শহরের রাস্তা দিয়ে টুকটুক করে হেঁটে যাচ্ছে। রাস্তায়...
Painting

শেষ নাহি যে

মিনুর রিকশায় বসেই সে ব্যাকপ্যাকের সাইড পকেটে মোবাইল ঢুকিয়ে রেখেছিল। তাড়াতাড়ি ব্যাগ থেকে ফোন বার...
image

ইন্দ্রনীল সান্যাল

পূর্বানুবৃত্তি: হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে দরিয়া অপেক্ষা করছে বিহানের জন্য। তার মনে পড়েছে অতীত।