Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

টাচ করলে কি আগুন জ্বলবে, টুইট-বিদ্ধ মমতা

তিনি বরাবরই প্রযুক্তি সড়গড়। সোশ্যাল নেটওয়ার্কেও সক্রিয়। ইংরেজি নববর্ষে এ বার টুইটারে আত্মপ্রকাশ করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। লক্ষ্য, ওয়েব-বান্

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০২ জানুয়ারি ২০১৫ ০৩:০৮
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

তিনি বরাবরই প্রযুক্তি সড়গড়। সোশ্যাল নেটওয়ার্কেও সক্রিয়। ইংরেজি নববর্ষে এ বার টুইটারে আত্মপ্রকাশ করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। লক্ষ্য, ওয়েব-বান্ধব জনতার সঙ্গে আরও নিবিড় আদানপ্রদান গড়ে তোলা।

নববর্ষ এবং তৃণমূলের প্রতিষ্ঠা দিবসের সকালে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী টুইট হ্যান্ডল খোলার পরে রাতের মধ্যেই তাঁর ‘ফলোয়ারে’র সংখ্যা সাড়ে চার হাজার ছাড়িয়েছে। যে তথ্যকে খুবই উৎসাহব্যঞ্জক বলে মনে করছেন তৃণমূল নেতৃত্ব। কিন্তু তৃণমূল এবং তাদের নেত্রীর ভাবমূর্তি সম্পর্কে হালফিল জনতার কী ধারণা, তার কয়েক টুকরো নমুনা বৃহস্পতিবারই টুইট থেকে বেরিয়ে এসেছে! যেখানে মমতার (@MamataOfficial) উদ্দেশে পাল্টা টুইট করে কেউ লিখেছেন, তাঁকে ‘টাচ’ করাই উচিত নয়। কারণে, টাচ করলে তো টুইটারে আগুন জ্বলবে! মুখ্যমন্ত্রীকে ছুঁলে বা গ্রেফতার করলে রাজ্যে আগুন জ্বলার যে হুমকি তৃণমূল সাংসদ ইদ্রিশ আলি দিয়েছেন, সেই দিকেই দৃষ্টি আকর্ষণ করাতে চেয়েছে টুইট-জনতার একাংশ। কেউ মুখ্যমন্ত্রীর কাছে প্রশ্ন ছুড়েছেন, বিরূপ সমালোচনা হলে টুইটার থেকে খুঁজে বার করে আবার হয়রানির চেষ্টা হবে না তো? বলাই বাহুল্য, কার্টুন-কাণ্ডের অম্বিকেশ মহাপাত্রের উদাহরণ প্রশ্নকর্তাদের মনে ছিল! কেউ আবার ভয়-ভীতির প্রসঙ্গে না গিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশে টুইট, রাজ্যের জন্য কাজ করবেন কবে? সময় আর বেশি নেই!

তৃণমূল নেতৃত্ব সমালোচনা নিয়ে এখনই মাথা ঘামাচ্ছেন না। টুইটার ব্যবহারকারীদের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর সরাসরি সংযোগকেই বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন। দল হিসাবে তৃণমূল এবং দলনেত্রীর টুইট-ইনিংসে বড় ভূমিকা রয়েছে দলের জাতীয় মুখপাত্র ডেরেক ও’ব্রায়েনের। তাঁর কথায়, “ফেসবুকের চেয়েও টুইটারে আরও সরাসরি আদানপ্রদান হয়। কিছু বলার চেয়েও শোনার সুযোগ থাকে অনেকটা। দিদি নিজেই টুইটারে আসতে চেয়েছেন।” ডেরেক যেটা বলেননি সরাসরি আদানপ্রদানের সুযোগ বেশি বলেই তির্যক মন্তব্য টুইট হ্যান্ডল খুলে আরও বেশি করে দেখতে পাবেন মমতা!

Advertisement

টুইটারে আত্মপ্রকাশ করে মমতা নিজে ‘ফলো’ করছেন মাত্র তিন জনকে! ভাইপো এবং ‘যুবরাজ’ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, ডেরেক এবং তৃণমূলের অফিসিয়াল অ্যাকাউন্টকে! ডেরেক আবার টুইটার কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে নিশ্চিত করেছেন, মমতার নামে ভুয়ো অ্যাকাউন্ট থেকে আলাদা করার জন্য মুখ্যমন্ত্রীর এই টুইট হ্যান্ডলের পাশে ‘ব্লু টিক’ চিহ্ন দেওয়া হবে শীঘ্রই। প্রথম দিনে চারটি টুইট করেন মমতা। প্রথমটিতে বলেন, ‘নববর্ষে আমারও একটা নতুন সূচনা হল টুইটারে’! নতুন বছর ও দলের প্রতিষ্ঠা দিবসে সকলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন তিনি। টলিউড-টেলিউডের বহু নামীদামি ব্যক্তিত্বও মুখ্যমন্ত্রীকে টুইটারে স্বাগত জানিয়েছেন।



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement