Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

বসিরহাটে বেআইনি পার্কিং, কড়া বার্তা পুলিশের

নিজস্ব সংবাদদাতা
বসিরহাট ০৭ নভেম্বর ২০১৪ ০০:৪১
টাকি রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে আছে গাড়ি। ছবি: নির্মল বসু।

টাকি রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে আছে গাড়ি। ছবি: নির্মল বসু।

রাস্তার পাশে বিনা কারণে দীর্ঘক্ষণ গাড়ি দাঁড় করিয়ে রাখলে গাড়ি মালিকের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানাল বসিরহাটের পুলিশ।

সম্প্রতি একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে এই সিদ্ধান্ত। মাটিয়ায় রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা গাড়ির আরোহীকে সিভিক ভলান্টিয়ার মারধর করে বলে অভিযোগ। প্রতিবাদে টাকি রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায় জনতা। শেষে পুলিশের পক্ষ থেকে ওই ভলান্টিয়ারকে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলে প্রায় ঘণ্টা দেড়েক পরে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

পুলিশ জানায়, যাত্রীদের অসুবিধা করে রাস্তার পাশে গাড়ি দাঁড় করিয়ে রাখা বর্তমানে আকছার ঘটছে। কেবল মাটিয়াতেই নয়, বসিরহাটের ব্যস্ততম টাকি এবং ইটিন্ডা রাস্তার পাশে অনেকেই অবৈধ ভাবে গাড়ি দাঁড় করিয়ে রাখেন। প্রচুর ট্রাক দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। সেখানে গাড়ি দাঁড় করিয়েই ইমারতি দ্রব্যের ব্যবসাও চলে। এর জেরে ছোটখাট দুর্ঘটনা লেগেই আছে। যান চলাচলেও অসুবিধা হয়। দিনের ব্যস্ততম সময়ে যানজট দেখা যায়। শীতের ভোরে কুয়াশার কারণে রাস্তার ধারে দাঁড়িয়ে থাকা গাড়ি দেখতে না পেয়ে অতীতে একাধিক দুর্ঘটনা ঘটেছে। কিছু বলতে গেলে পাল্টা ক্ষোভ দেখানো হয়। তাই পুলিশ সিদ্ধান্ত নিয়েছে, এ বার থেকে রাস্তার পাশে বিনা কারণে দাঁড় করিয়ে রাখা গাড়ির মালিকদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Advertisement

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মাটিয়া এলাকায় টাকি রাস্তার পাশে একটি গাড়ি দীর্ঘ ক্ষণ দাঁড়িয়েছিল। ভেতরে এক আরোহী বসে থাকলেও গাড়ির চালক অনুপস্থিত ছিলেন। এর জেরে স্বাভাবিক যাতায়াত বিঘ্নিত হচ্ছিল বলে অভিযোগ। ডিউটিতে থাকা সিভিক ভলান্টিয়ার গাড়িটি অন্যত্র সরাতে বলেন। আরোহী দাবি করেন, চালক না ফেরা পর্যন্ত গাড়ি সরানো তাঁর পক্ষে সম্ভব নয়। এই নিয়ে উভয় পক্ষের বচসা বাধে। অভিযোগ, ওই সিভিক ভলান্টিয়ার সওয়ারির উপরে চড়াও হন। আরোহী আবার স্থানীয় নেহালপুরের বাসিন্দা। তাঁকে মারধরের খবর পেয়ে ওই গ্রামের মানুষ ঘটনাস্থলে এসে রাস্তার উপর বেঞ্চ পেতে অবরোধ শুরু করেন। বাহিনী নিয়ে আসেন বসিরহাট থানার আইসি। ক’দিন আগেই তেঁতুলিয়ায় পথ দুর্ঘটনায় মারা যান এক পুলিশ কর্মী ও পুলিশের গাড়ির চালক। সে ক্ষেত্রেও অভিযোগ, তেঁতুলিয়া-মছলন্দপুর রাস্তার দু’পাশেও দাঁড়িয়ে ছিল বেশ কিছু ট্রাক। যে কারণে উল্টো দিক থেকে আসা একটি ট্রাকের মুখোমুখি পড়তে হয় পুলিশের গাড়িটিকে। বসিরহাটের আমতলা, ত্রিমোহিণী, পশ্চিম দন্ডিরহাট, চৌমাথা, ঘড়িবাড়ি মোড় প্রভৃতি জায়গাতেও রাস্তার দু’ধারে অবৈধ ভাবে গাড়ি দাঁড় করিয়ে ব্যবসা করায় দুর্ঘটনা লেগেই রয়েছে। প্রাণহানিও ঘটেছে। ব্যবসায়ীদের একাংশের বক্তব্য, গাড়ি রাখার সুষ্ঠু ব্যবস্থা নেই প্রায় কোনও এলাকাতেই। বাধ্য হয়ে রাস্তার ধারে গাড়ি দাঁড় করিয়ে রাখতে হয়। দেগঙ্গা, বেড়াচাঁপাতেও একই সমস্যা। রাস্তার ধারে অবৈধ পার্কিংয়ের জন্য একাধিক দুর্ঘটনা ঘটেছে। বাসিন্দারা বহু বার পথ আটকে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন। কিন্তু এত সবের পরেও অবৈধ পার্কিং নিয়ে নড়ে বসেনি পুলিশ-প্রশাসন।

বসিরহাটের মহকুমাশাসক শেখর সেন বলেন, “রাস্তা আটকে গাড়ি দাঁড় করিয়ে রাখা বেআইনি। এ নিয়ে উপযুক্ত ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।” বসিরহাট থানার আইসি সৌম্যশান্ত পাহাড়ি এ বিষয়ে বলেন, “রাস্তার পাশে অবৈধ গাড়ি রাখার বিষয়ে অভিযোগ লিখে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

আরও পড়ুন

Advertisement