Advertisement
১০ ডিসেম্বর ২০২২
Asaduddin Owaisi

মিমকে সঙ্গে রেখেই বাম-কংগ্রেসের সঙ্গে কৌশলগত জোট চান আব্বাস

আব্বাসের সঙ্গে জোটে আগ্রহী হলেও আসাদউদ্দিনের দলের সঙ্গে কোনওরকম আসন সমঝোতায় নারাজ বামেরা।

ফাইল ছবি

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৬:৪৬
Share: Save:

অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন (এআইএমআইএম) অর্থাৎ মিমকে সঙ্গে রেখেই বাম-কংগ্রেসের সঙ্গে কৌশলগত জোট চান ফুরফুরা শরিফের পিরজাদা আব্বাস সিদ্দিকি। অন্তত তাঁর ঘনিষ্ঠরা তেমনই জানাচ্ছেন।

Advertisement

গত ২১ জানুয়ারি ‘ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্ট’ নামে নিজের দল ঘোষণা করেছেন আব্বাস। তার অনেক আগে থেকেই একুশের ভোটযুদ্ধের সলতে পাকানোর কাজ শুরু করে দিয়েছিলেন আব্বাস-অনুগামীরা। আসন্ন নির্বাচনে আব্বাসের সঙ্গে জোটের কথা বলতে গত ৩ জানুয়ারি ফুরফরা শরিফে এসে সম্মতি জানিয়ে যান মিম প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়াইসি। পাশাপাশি, বাম-কংগ্রেস জোটে আব্বাসকে শামিল করার উদ্যোগ শুরু হয়। ধাপে ধাপে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী থেকে শুরু করে সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্রের সঙ্গে কথা হয় তাঁর।

তবে মিম-কে রেখে জোটে আপত্তি রয়েছে বাম-কংগ্রেসের। আব্বাসের সঙ্গে জোটে আগ্রহী হলেও আসাদউদ্দিনের দলের সঙ্গে কোনওরকম আসন সমঝোতায় নারাজ তারা। বাম বিধায়ক তথা ফরওয়ার্ড ব্লক নেতা আলি ইমরান রামজের কথায়, ‘‘আসাউদ্দিনের দল মিমের সঙ্গে নীতিগত কারণে আমরা জোট করতে পারব না। এই দলের ইতিহাস জানলে দেখা যাবে, দেশ বিভাজনের সময় হায়দরাবাদের নিজাম এই দলটি তৈরি করেছিলেন পাকিস্তানে যুক্ত হওয়ার জন্য। দলটি তৈরি হয়েছিল কিছু মানুষকে উজ্জীবিত করে হায়দরাবাদকে সঙ্গে নিয়ে পাকিস্তানে যুক্ত হওয়ার জন্য। শেষে ভারত সরকারের চাপে তাঁরা পাকিস্তানের সঙ্গে যুক্ত হতে পারেনি। বাংলায় এই দলটির নাম ব্যাখ্যা করলে দেখা যাবে, এই দলটি মুসলিম সম্প্রদায়ের স্বার্থরক্ষার কথা বলে। অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিনের কথার সম্পূর্ণ মুসলিম ঐক্য ও তাঁদের অধিকার রক্ষা। আমরা ভারতের মানুষের অধিকার রক্ষায় রাজনীতি করি। সকলকে নিয়ে আমরা চলতে চাই। আমরা মিমের সঙ্গে জোট বাঁধতে পারব না।’’

মূলত তেলঙ্গানা-কেন্দ্রিক একটি রাজনৈতিক দল মিম। সম্প্রতি বিহারের নির্বাচনে চমকপ্রদ সাফল্য পেয়েছে তারা। তার পরেই বঙ্গের রাজনীতিতে আগ্রহ দেখানো শুরু করেন ওয়াইসি। সূত্রের খবর, তখনই আব্বাসের সঙ্গে যোগাযোগ করে বাংলার ভোটে প্রার্থী দেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু মিমের সঙ্গে আব্বাসের দল জোট বাঁধলে কংগ্রেসের পক্ষেও সেই জোটে থাকা সম্ভব হবে না। কারণ, বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নান কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গাধীঁকে চিঠি লিখে শুধু আব্বাসকেই জোটে সামিল করার অনুরোধ জানিয়েছেন।

Advertisement

কিন্তু এই সংক্রান্ত বিষয়ে সম্পূর্ণ ভিন্ন কৌশল নিয়ে চলছে ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্ট। ফ্রন্টের চেয়ারম্যান নৌসাদ সিদ্দিকি বৃহস্পতিবার বলেন, ‘‘বাম-কংগ্রেস তাদের অবস্থানের কথা বলছে। আর আমরা কিছু কৌশল আপাতত অন্তরালেই রাখতে চাই। ভারতীয় রাজনীতির অতীত ইতিহাসে দেখা যাবে, কংগ্রেসও এমন দলের সঙ্গে জোট করেছে, যাদের বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক রাজনীতি করার অভিযোগ ছিল। এখন তো মহারাষ্ট্রে কংগ্রেস আবার শিবসেনার হাত ধরে সরকার গড়েছে। সিপিএমের সঙ্গেও তো মুসলিম লিগের সঙ্গে অন্য রাজ্যে জোট রয়েছে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.