Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

আসানসোলে অধরাই রইলেন দেব

টক্করটা হল না। সকালে নরেন্দ্র মোদীর হুঙ্কার, বিকেলে দেবের টঙ্কাররবিবারটা এই ডুয়েল দেখেই কাটবে বলে ভেবেছিল আসানসোল। দেব কিন্তু এলেন না! বাঁকু

নিজস্ব সংবাদদাতা
আসানসোল ০৫ মে ২০১৪ ০২:২১
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

টক্করটা হল না।

সকালে নরেন্দ্র মোদীর হুঙ্কার, বিকেলে দেবের টঙ্কাররবিবারটা এই ডুয়েল দেখেই কাটবে বলে ভেবেছিল আসানসোল।

দেব কিন্তু এলেন না!

Advertisement

বাঁকুড়ায় মোদীর সভার দিনেই মিঠুনের আসার কথা প্রথমে শোনা গেলেও স্থানাভাবের কথা তুলে তৃণমূল তা বাতিল করে। তবে আসানসোলে দেবের রোড-শো যে বানচাল হয়ে যেতে পারে, তার পূর্বাভাস এক দিন আগেও ছিল না। মোদী নিয়ে জনতার উন্মাদনার মধ্যে হঠাত্‌ই জেলা তৃণমূল সূত্রে জানা যায়, দেব-দর্শন হচ্ছে না। তিনি দক্ষিণ ২৪ পরগনার ভাঙড়ে সভা করতে যাচ্ছেন।

বিজেপি প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়র সমর্থনে নরেন্দ্র মোদী সভা করতে আসছেন, এ কথা ঘোষণা হওয়ার পরেই তৃণমূলের তরফে এক গুচ্ছ তারকা আসানসোলে ঘুরে গিয়েছেন। রোড-শো করেছেন নচিকেতা, জিত্‌ গঙ্গোপাধ্যায়। দ্বিতীয় দফায় সভা করে গিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে। কিন্তু প্রচারের শেষবেলায় তুরুপের যে তাস তুলে রাখা হয়েছিল, তা এ দিন ফেলা হল না। তৃণমূলের বর্ধমান জেলা (শিল্পাঞ্চল) কার্যকরী সভাপতি ভি শিবদাসন বলেন, “দেব নিজের নির্বাচনী এলাকায় ভোট প্রচারে ব্যস্ত। সেই কারণে তাঁর আসানসোলের প্রচার-কর্মসূচি বাতিল করা হয়েছে।”

বিজেপি-র বর্ধমান জেলা শিল্পাঞ্চল সভাপতি নির্মল কর্মকারের দাবি, “শহরে যখন জাতীয় নায়ক এসে গিয়েছেন, আঞ্চলিক নায়ক ফিকে হয়ে যেতেন। এটা জেনেই তৃণমূল রণে ভঙ্গ দিয়েছে।” সিপিএম প্রার্থী বংশগোপাল চৌধুরীর বক্তব্য, “জলসার আয়োজন করেছিল তৃণমূল। নিজেরাই তা ভেস্তে দিয়েছে। এ নিয়ে আর কী বলব।” কংগ্রেস প্রার্থী ইন্দ্রাণী মিশ্র বলেন, “মানুষ হাঁফ ছেড়ে বাঁচলেন। টলিউড-বলিউড নিয়ে আদিখ্যেতায় শহরের লোকের নাভিশ্বাস উঠেছে!”

বাবুল অবশ্য তৃণমূলের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, “এটা ভালই হয়েছে। দেব খুব জনপ্রিয় শিল্পী। আমি ওর সিনেমায় অনেক গান গেয়েছি। ও এলে প্রশাসনের বাড়তি চাপ পড়ত। কারণ, আজ মোদীজির সভায় অনেক বেশি পুলিশি নিরাপত্তা দিতে হয়েছে। দেবের রোড-শো হলে দিদির চাপে পুলিশকে সেখানেও যেতে হত।”

এ দিন ভাঙড়ের শোনপুর বাজার কারবালা হাইস্কুল মাঠেও বিশৃঙ্খলায় দেবের সভা বেশি ক্ষণ হতে পারেনি। যাদবপুরের তৃণমূল প্রার্থী সুগত বসুর সমর্থনে বিকেল ৫টায় দেব-এর সভা ছিল। বেলা ৩টে থেকেই ভিড় জমছিল। দেব পৌঁছতে পৌঁছতে অন্ধকার ঘনিয়ে আসে। মঞ্চে জোরালো আলো ছিল না। দেবের ছবি তোলার জন্য শুরু হয় হুড়োহুড়ি। পরিস্থিতি এক সময় নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়। দেব মঞ্চে উঠে হাত নাড়তেই মঞ্চের সামনের বাঁশের ব্যারিকেড ভেঙে পড়ে। মঞ্চেও লোক উঠে ছবি তুলতে শুরু করে। ভিড় সামলাতে পুলিশ তখন নাজেহাল। বাধ্য হয়ে দেব নেমে গাড়িতে উঠে বেরিয়ে যান। গাড়ির পিছনেও ধাওয়া করে জনতা। অন্য নেতাদের ভাষণ শোনার ধৈর্য আর ছিল না জনতার। মাঝ পথেই ভেস্তে যায় সভা।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement