Advertisement
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩

দ্রুত শিল্পায়নের লক্ষ্যে গড়া হল কোর কমিটি

শিল্প-বাণিজ্য মেলার উদ্বোধনে এসে ব্যবসায়ীদের মুখোমুখি বসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। দক্ষিণবঙ্গে দ্রুত শিল্পায়নের লক্ষ্যে আঞ্চলিক কোর কমিটি তৈরির সিদ্ধান্ত হয় তখনই। বৈঠকের তিন মাসের মাথায় গঠিত হল ওই কমিটি। আগামী কিছুদিনের মধ্যে বৈঠক করে তারা পরবর্তী পদক্ষেপ করবে বলেো জানা গিয়েছে।

সুশান্ত বণিক
আসানসোল শেষ আপডেট: ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ ০০:৫৫
Share: Save:

শিল্প-বাণিজ্য মেলার উদ্বোধনে এসে ব্যবসায়ীদের মুখোমুখি বসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। দক্ষিণবঙ্গে দ্রুত শিল্পায়নের লক্ষ্যে আঞ্চলিক কোর কমিটি তৈরির সিদ্ধান্ত হয় তখনই। বৈঠকের তিন মাসের মাথায় গঠিত হল ওই কমিটি। আগামী কিছুদিনের মধ্যে বৈঠক করে তারা পরবর্তী পদক্ষেপ করবে বলেো জানা গিয়েছে।

প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, উত্তরবঙ্গ ও দক্ষিণবঙ্গ দু’জায়গার জন্যই একটি করে আঞ্চলিক কোর কমিটি গঠিত হয়েছে। দক্ষিণবঙ্গের কমিটির মুখ্য কার্যালয় হচ্ছে আসানসোলে। কমিটির সভাপতি হয়েছেন রাজ্যের শিল্প ও বাণিজ্যমন্ত্রী অমিত মিত্র। আর সহ-সভাপতির পদে রয়েছেন রাজ্যের শ্রমমন্ত্রী তথা আসানসোল উত্তরের বিধায়ক মলয় ঘটক। মলয়বাবু বলেন, “দক্ষিণবঙ্গের শিল্পোন্নয়নে এই কমিটি কার্যকরী ভূমিকা নেবে। মুখ্যমন্ত্রীর শিল্পায়নের স্বপ্ন পূরণ হবে।” কোর কমিটি গঠন নিয়ে সরকার যে বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে তাতে বলা হয়েছে, বর্ধমান, বীরভূম, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া এবং পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর জেলাকে এই কমিটির মধ্যে রাখা হয়েছে। কমিটিতে রয়েছেন রাজ্য সরকারের শিল্প বাণিজ্য, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প, ভূমি ও ভূমি রাজস্ব, পরিবেশ, শক্তি, পরিবহন, নগরোন্নয়ণ, খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ, প্রাণিসম্পদ উন্নয়ন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, কারিগরি শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ, এবং শ্রম দফতরের অতিরিক্ত সচিব পর্যায়ের একজন করে প্রতিনিধি। এ ছাড়াও রাজ্য সরকারের শ্রম কমিশনার ও ফেডারেশন অফ সাউথ বেঙ্গল চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাষ্ট্রিজের সভাপতিকে এই কমিটিতে রাখা হয়েছে।

২৯ জানুয়ারি আসানসোলে বণিক সভার উদ্যোগে আয়োজিত শিল্প-বাণিজ্য মেলার উদ্বোধনে এসেছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দক্ষিণবঙ্গের একাধিক শিল্পপতি ও ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মুখোমুখি আলোচনায় বসেন তিনি। উদেশ্য ছিল, শিল্পপতি ও ব্যবসায়ীরা সরকারের কাছে কি প্রত্যাশা করেন, তাতে কোনও সমস্যা রয়েছে কি না তা জেনে নেওয়া। সমস্যা থাকলে তার দ্রুত নিষ্পত্তির উপায় বের করা। ব্যবসায়ীরা সেখানেই মুখ্যমন্ত্রীকে দক্ষিণবঙ্গের জন্য একটি কোর কমিটি গঠন ও কোনও শিল্প শুরুর আগে বিভিন্ন রকমের অনুমতি নেওয়ার সুবিধায় এক জানালা পদ্ধতি শুরু করার প্রস্তাব দেন। দুটি প্রস্তাবই মেনে নেন মুখ্যমন্ত্রী। ইতিমধ্যে আসানসোলে এক জানালা পদ্ধতি শুরু করা নিয়ে প্রশাসনিক বৈঠক হয়ে গিয়েছে। রাজ্যের শ্রমমন্ত্রী মলয় ঘটক জানিয়েছেন, প্রতি দু’মাস অন্তর বৈঠক করবে এই কোর কমিটি।

দক্ষিণবঙ্গে কোর কমিটি গঠন ও আসানসোলে তার কার্যালয় তৈরির সরকারি সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন এলাকার শিল্প ও বানিজ্য মহল। দক্ষিণবঙ্গের সবচেয়ে বড় বণিক সংগঠন ফেডারেশন অফ সাউথ বেঙ্গল চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাষ্ট্রিজের সভাপতিকে এই কমিটির সদস্য মনোনীত করার প্রসঙ্গে সংগঠনের সম্পাদক সুব্রত দত্ত জানিয়েছেন, কমিটিতে একজন বণিক সভার প্রতিনিধি থাকায় ছয় জেলার শিল্পপতি ও ব্যবসায়ীদের স্বার্থ সরকারের কাছে সরাসরি তুলে ধরা সম্ভব হবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE