Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

BGBS 2022: লক্ষ্য বাংলায় বিনিয়োগ টানা, নবান্নে গৌতম আদানির ছেলের সঙ্গে বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা

গত বছর ডিসেম্বর মাসে নবান্নে এসে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করে রাজ্যে বিনিয়োগে আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন আদানি গোষ্ঠীর চেয়ারম্যান গৌতম আদানি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২২ ১৬:৪৭
Save
Something isn't right! Please refresh.
ডিসেম্বরে মমতা-আদানি বৈঠকের ছবি

ডিসেম্বরে মমতা-আদানি বৈঠকের ছবি

Popup Close

আগামী এপ্রিলে বসতে চলেছে বিশ্ব বঙ্গ বাণিজ্য সম্মেলন। তার আগে রাজ্যে বিনিয়োগ টানতে আবার আদানি গোষ্ঠীর সঙ্গে বৈঠকে বসলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গত বছর ডিসেম্বর মাসে নবান্নে এসে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করে রাজ্যে বিনিয়োগে আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন আদানি গোষ্ঠীর চেয়ারম্যান গৌতম আদানি। এ বার এলেন গৌতমের ছেলে করণ আদানি।

সূত্রের খবর, মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে গত বৈঠকে আদানি গোষ্ঠীর কর্ণধার বিনিয়োগে আগ্রহ প্রকাশ করার পর থেকেই দুই পক্ষের মধ্যে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। তারই ফলস্বরূপ বৃহস্পতিবারের এই বৈঠক। প্রসঙ্গত, মমতার সঙ্গে বৈঠকের পর গৌতম টুইটে লিখেছিলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে আনন্দিত। পশ্চিমবঙ্গে বিপুল বিনিয়োগের সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। আমি ২০২২-এর এপ্রিলে বেঙ্গল গ্লোবাল বিজনেস সামিটে (বিজিবিএস) যোগদানের জন্য উন্মুখ হয়ে রয়েছি।’

রাজ্যে আরও বিনিয়োগ টানার লক্ষ্যে চলতি বছরের ২০-২১ এপ্রিল এই দু’দিন বাণিজ্য সম্মেলন (বিজিবিএস)-এর আয়োজন করতে চলেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। সেই সম্মেলনকে নজরে রেখেই গত বছর ডিসেম্বরে মুম্বইয়ের শিল্প সম্মেলনেও যোগ দিয়েছিলেন মমতা। মুম্বই সফরের আগেই দিল্লি সফর সেরেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। ওই সফরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে সাক্ষাতে তাঁকে রাজ্যের বাণিজ্য সম্মেলনের উদ্বোধনের আমন্ত্রণও জানিয়ে এসেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

Advertisement

গত দু’বছর বাণিজ্য সম্মেলন হয়নি রাজ্যে। করোনা পরিস্থিতির জেরেই গত দু’বছর এই সম্মেলন স্থগিত রাখা হয়েছিল। ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের তৃতীয় বার জয়ের পর প্রথম বাণিজ্য সম্মেলন আয়োজন করতে চলেছে রাজ্য সরকার। সূত্রের খবর, বাণিজ্য সম্মেলন নিয়ে একটি টাস্ক ফোর্স গঠন করা হয়েছে। তার নেতৃত্বে রয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী নিজে।

এর আগে রাজ্য সরকার আয়োজিত বাণিজ্য সম্মেলনে দেশ-বিদেশের শিল্পপতি এবং শিল্প সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত হয়েছিলেন। রাজ্যে বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিনিয়োগও হয়েছে। ২০২২ সালের সম্মেলনেও দেশ-বিদেশের প্রতিনিধিরা যোগ দিতে চলেছেন। এ বারের লক্ষ্য, আগের চেয়ে আরও বড় আকারে এই সম্মেলন আয়োজন করা। একই সঙ্গে শিল্প-সহ নানা ক্ষেত্রে আরও বেশি বিনিয়োগ টেনে আনা। তা নজরে রেখেই বিনিয়োগ সংক্রান্ত বিষয়ে আদানি গোষ্ঠীর সঙ্গে রাজ্যের আলাপ-আলোচনায় এই অগ্রগতি নয়া মাত্রা যোগ করছে বলেই মনে করা হচ্ছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement