Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

রাজ্যকে চিঠি, বাংলায় লোকাল ট্রেন চালাতে রাজি কেন্দ্র

সোমনাথ মণ্ডল
কলকাতা ১৪ অক্টোবর ২০২০ ২১:৩৬
রাজ্যে লোকাল ট্রেন চালানোর উদ্যোগ। ফাইল চিত্র।

রাজ্যে লোকাল ট্রেন চালানোর উদ্যোগ। ফাইল চিত্র।

লোকাল ট্রেন পরিষেবা চালুর বিষয়ে আলোচনা চেয়ে রাজ্যকে চিঠি দিল রেল। এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য কবে আলোচনা সম্ভব তা-ও জানতে চাওয়া হয়েছে ওই চিঠিতে। এর পরেই জল্পনা তৈরি হয়েছে, তবে কি রাজ্যে দ্রুত লোকাল ট্রেন পরিষেবা চালু হতে চলেছে?

রেলের তরফে রাজ্যকে দেওয়া ওই চিঠিতে জানানো হয়েছে, রেলকর্মীদের কাজের জন্য প্রয়োজন অনুসারে বিভিন্ন সেকশনে বিশেষ কিছু ট্রেন চালানো হচ্ছে। তবে ওই ট্রেনগুলিতে সাধারণ মানুষ ওঠার চেষ্টা করেন বলে রেলের পর্যবেক্ষণ। কিন্তু বর্তমান করোনা পরিস্থিতির জন্য তার অনুমতি দেওয়া হয়নি। ফলে বেশ কয়েকটি জায়গায় বিক্ষোভ অবরোধ হয় বলে ওই চিঠিতে জানানো হয়েছে। পরিস্থিতির গুরুত্ব বুঝে তাই রেল মন্ত্রক শহরতলিতে লোকাল ট্রেন চালানোর জন্য রাজ্যের সঙ্গে আলোচনায় আগ্রহী। সেই আলোচনার জন্য সময়ও চাওয়া হয়েছে রেলের তরফে।

করোনা পরিস্থিতিতে বিধিনিষেধ মেনেই লোকাল ট্রেন চালাতে প্রস্তুত বলে রেল জানিয়েছে রাজ্যকে। ট্রেন চালানোর জন্য সব প্রস্তুতিও সারা তাদের তরফে। কিন্তু রাজ্যের সবুজ সঙ্কেত ছাড়া সেটা সম্ভব নয়। সে কারণেই ভিডিয়ো কনফারেন্সের মাধ্যমে আলোচনার জন্য দিন-ক্ষণ চেয়ে রাজ্যকে চিঠি দিয়েছে রেল। ওই আলোচনায় রাজ্য সরকারের অনুমতি মিললেই দ্রুত লোকাল ট্রেন চালু হতে পারে বলে রেলের ইঙ্গিত।

Advertisement



পূর্ব রেলের তরফে রাজ্যকে এই চিঠি পাঠানো হয়েছে। গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

আরও পড়ুন: পুজোয় ভিড় নিয়ন্ত্রণে হস্তক্ষেপ চেয়ে আদালতে জনস্বার্থ মামলা

আরও পড়ুন: সৌমিত্রের করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ, উন্নতি হয়েছে শারীরিক অবস্থার

করোনা পরিস্থিতিতে সংক্রমণ রুখতে মার্চ মাসের শেষ সপ্তাহে গোটা দেশের সঙ্গে এ রাজ্যেও লোকাল ট্রেন পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়। তার পর দীর্ঘ প্রায় সাত মাস ধরে কোনও লোকাল ট্রেন চলেনি। রেল তার কর্মীদের কাজের প্রয়োজনে বিভিন্ন সেকশনে ট্রেন চালাচ্ছে বটে, কিন্তু তাতে সাধারণের ওঠার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। রাজ্য জুড়ে বিভিন্ন ক্ষেত্রে আনলক পর্ব চালু হলেও লোকাল ট্রেন চালুর ব্যাপারে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেয়নি নবান্ন। রেলের এই চিঠি নিয়েও নবান্নের তরফে কোনও মন্তব্য মেলেনি।

অন্য দিকে, এ দিনই রেল নিরাপত্তা বাহিনী (আরপিএফ)-র তরফে একটি নির্দেশিকা প্রকাশ করা হয়েছে। ট্রেন পরিষেবা চালু হলে কোন কোন বিধিনিষেধ মেনে চলতে হবে, ওই নির্দেশিকায় সে কথা বলা হয়েছে। তা না মানলে যে জেল বা জরিমানা অথবা দুটোই হতে পারে সে কথাও স্পষ্ট ভাবে বলা হয়েছে ওই নির্দেশিকায়।

আরও পড়ুন

Advertisement