×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১০ মে ২০২১ ই-পেপার

রাজ্যে করোনায় মৃত্যু বেড়ে ১৫, সক্রিয় আক্রান্ত পৌনে তিনশো

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২১ এপ্রিল ২০২০ ১৭:৫৪
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

রাজ্যে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হল ১৫। গতকাল অর্থাৎ সোমবার পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ছিল ১২। মঙ্গলবার রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজীব সিংহ নবান্নে জানিয়েছেন, চিকিৎসকদের নিয়ে তৈরি করোনা সংক্রান্ত অডিট কমিটি এ দিন আরও তিন জনের নাম মৃতের তালিকায় যোগ করেছেন। মুখ্যসচিবের দাবি, ওই তিন জনই করোনায় মারা গিয়েছেন বলে জানিয়েছে অডিট কমিটি।

রাজীব সিংহ এ দিন বলেন, ‘‘গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে ২৯। মঙ্গলবার বিকেলে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২৭৪। সোমবার সেই সংখ্যা ছিল ২৪৫। গত ২৪ ঘণ্টায় কোনও করোনা রোগী হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাননি। এখন পর্যন্ত মোট ৭৩ জন রোগ মুক্ত হয়েছেন।’’ তিনি জানান, যে ২৯ জন গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন, তাঁরা কলকাতা, হুগলি, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া, নদিয়া এবং পশ্চিম বর্ধমানের বাসিন্দা। উত্তরবঙ্গে নতুন করে কেউ আক্রান্ত হননি। মুখ্যসচিব বলেন, ‘‘গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ৭১৩টি লালারসের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। সব মিলিয়ে এখনও পর্যন্ত টেস্ট করা হয়েছে ৬ হাজার ১৮২ টি নমুনা।” রাজ্যে আর জি কর মেডিক্যাল কলেজ এবং চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল ক্যানসার ইনস্টিটিউটে মঙ্গলবার থেকে কোভিড-১৯ নমুনা পরীক্ষা শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন মুখ্যসচিব।

এ দিন মালদহ নিয়ে সরকারের স্বস্তির কথা জানান মুখ্যসচিব। তিনি বলেন, ‘‘আমাদের আগে ধারণা ছিল যে, মালদহে টেস্টের সুযোগ না থাকায় হয়তো কোভিড আক্রান্তের হদিশ পাওয়া যাচ্ছে না। কিন্তু গত দু’দিনে মালদহ জেলায় সমস্ত টেস্ট রিপোর্টই নেগেটিভ এসেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় হওয়া ৭৪ টি টেস্টের রিপোর্টই নেগেটিভ।”

Advertisement

আরও পড়ুন: কেন্দ্রীয় দলকে সহযোগিতা করা উচিত রাজ্যের, টুইট ধনখড়ের

আরও পড়ুন: কলকাতায় র‌্যাপিড টেস্টে ২ জনের রিপোর্ট পজিটিভ

রাজস্থানের কোটায় লকডাউনে আটকে পড়া প্রায় পাঁচ হাজার এ রাজ্যের ছাত্রছাত্রীর প্রসঙ্গ তোলেন এ দিন মুখ্যসচিব। তিনি বলেন, ‘‘আমরা চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু এত মানুষকে এত দূর থেকে ফিরিয়ে আনা অসম্ভব কাজ।” তিনি ব্যখ্যা করে বলেন, ‘‘আমরা প্রায় ৩০০ বাসের ব্যবস্থা করেছিলাম। প্রায় তিন দিন লাগবে কোটা থেকে এসে পৌঁছতে। কিন্তু যে সমস্ত রাজ্যের মধ্যে দিয়ে আসবে ওই বাস, তারা অনুমতি দিচ্ছে না। বিহার অনুমতি দিচ্ছে না।” তিনি ওই ছাত্রছাত্রীদের পরিবারকে আশ্বস্ত করে বলেন, ‘‘রাজস্থানের আধিকারিকদের সঙ্গে রাজ্য কথা বলছে। আমি নিজে সেখানকার মুখ্যসচিবের সঙ্গে কথা বলব, যাতে ওই ছাত্রছাত্রীদের কোনও অসুবিধা না হয়।”

(অভূতপূর্ব পরিস্থিতি। স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিয়ো আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, feedback@abpdigital.in ঠিকানায়। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।)



Tags:
Coronavirus COVID 19করোনাভাইরাস

Advertisement