×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৩ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

প্রায় ১০ মাস পর রাজ্যে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু শূন্য, সংক্রমণের হার বৃদ্ধিতে উদ্বেগ 

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০১ মার্চ ২০২১ ২২:৫৭
গ্রাফিক: নিরূপম পাল

গ্রাফিক: নিরূপম পাল

রাজ্যে প্রথম করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছিল গত বছরের মার্চে। আর এক জনেরও করোনায় মৃত্যু হয়নি, এমন দিন ছিল ৩ মে। তার প্রায় ১০ মাস পর ফের শূন্যে পৌঁছল মৃতের সংখ্য়া। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্য়ে করোনা আক্রান্ত এক জনেরও মৃত্যু হয়নি। কিন্তু তার মধ্যেও ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমণের হার এক ধাক্কায় বেশ খানিকটা বৃদ্ধি পাওয়ায় উদ্বেগ বেড়েছে। ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্য়া ৬ জন বাড়লেও নমুনা পরীক্ষা অনেক কম হওয়ায় সংক্রমণের হার এ ভাবে বেড়েছে। সুস্থতার হার অপরিবর্তিত।

সোমবার সন্ধ্যায় স্বাস্থ্য দফতরের প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় এক জনেরও মৃত্যু হয়নি। রাজ্যে প্রথম করোনা আক্রান্ত হয়ে ১ জনের মৃত্যু হয়েছিল ২০২০ সালের ২৩ মার্চ। অর্থাৎ ২২ মার্চ পর্যন্ত রাজ্যে করোনায় মৃতের সংখ্যা ছিল শূন্য। তার পর মে মাস পর্যন্ত কখনও একাধিক মানুষের মৃত্যু হয়ছে, আবার এমন অনেক দিন ছিল যখন এক জনেরও মৃত্যু হয়নি। তবে ৩ মে-র পর থেকে আর এক জনেরও মৃত্যু হয়নি, এমন দিন আসেনি। সেই দিন এল সোমবার। ফলে রাজ্যে কোভিডে মোট মৃতের সংখ্যাও অপরিবর্তিত (১০ হাজার ২৬৮)। রাজ্যে ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ মৃত্যুর নজির রয়েছে ৬৪ জনের। অক্টোবর মাসের মাঝামাঝি মোট চার দিন এই সংখ্যায় পৌঁছেছিল।

সোমবারের বুলেটিন অনুযায়ী রাজ্য়ে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১৯৮ জন। রবিবারের তুলনায় ৬ জন বেশি। সোমবারের সংখ্যা মিলিয়ে রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৫ লক্ষ ৭৫ হাজার ৩১৬।

Advertisement

অর্থাৎ ২৪ ঘণ্টায় নতুন আক্রান্তের সংখ্য়া খুব বেশি বাড়েনি। কিন্তু সংক্রমণের হারে নজর দিলেই বোঝা যাবে সংক্রমণের প্রকৃত প্রবণতা। প্রতিদিন যত সংখ্যক নমুনা পরীক্ষা হয়, তার মধ্যে যত রিপোর্ট পজিটিভ আসে, তার শতকরা হিসেবকেই বলা হয় ‘পজিটিভিটি রেট’ বা ‘সংক্রমণের হার’। সোমবারের বুলেটিনে এই হার ১.২৪ শতাংশ। রবিবার এই হার ছিল ০.৯৭ শতাংশ। রবিবার নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা ছিল ১৯ হাজার ৭৬৪। সোমবার সেই সংখ্যা কমে হয়েছে ১৬ হাজার ১৪। অর্থাৎ কমেছে ৩৭৫০। এত সংখ্যক কম নমুনা পরীক্ষার পরেও আক্রান্তের সংখ্যাবৃদ্ধির জেরেই সংক্রমণের হারও বেড়েছে।

সুস্থতার হার অপরিবর্তিত রয়েছে। সোমবারের বুলেটিন অনুযায়ী এই হার ৯৭.৬৪ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২১২ জন। এই নিয়ে রাজ্যে সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যা বেড়ে হল ৫ লক্ষ ৬১ হাজার ৭৫৫। এই মুহূর্তে রাজ্যে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩২৯৩।

সোমবার রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় শীর্ষে ছিল কলকাতা। মহানগরে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ৬২। দ্বিতীয় স্থানে থাকা উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৮ জন। হাওড়ায় ১৪ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১১ জন, পশ্চিম বর্ধমানে ১০ জন, বাঁকুড়ায় ১০ জন এবং দার্জিলিং জেলাতেও ১০ জন আক্রান্ত হয়েছেন ২৪ ঘণ্টায়। বাকি জেলাগুলিতে আক্রান্তের সংখ্যা দুই অঙ্কে পৌঁছয়নি।

Advertisement