Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

শিক্ষক নিগ্রহ, প্রতিবাদে অবরোধ স্কুল পড়ুয়াদের

স্কুলের দুই শিক্ষককে হেনস্থার প্রতিবাদে ও অভিযুক্তদের ধরার দাবিতে পথ অবরোধ করল স্কুল পড়ুয়ারা। সোমবার ডেবরার ভজহরি ইনস্টিটিউশনের পড়ুয়াদের অবর

নিজস্ব সংবাদদাতা
খড়্গপুর ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৪ ০০:১৭
ডেবরা-সবং রাস্তায় অবরোধ চলছে বালিচকে। নিজস্ব চিত্র।

ডেবরা-সবং রাস্তায় অবরোধ চলছে বালিচকে। নিজস্ব চিত্র।

স্কুলের দুই শিক্ষককে হেনস্থার প্রতিবাদে ও অভিযুক্তদের ধরার দাবিতে পথ অবরোধ করল স্কুল পড়ুয়ারা। সোমবার ডেবরার ভজহরি ইনস্টিটিউশনের পড়ুয়াদের অবরোধ চলে প্রায় তিন ঘণ্টা। দুর্ভোগে পড়েন ডেবরা-সবং রুটের যাত্রীরা। আর সপ্তাহের প্রথম কাজের দিনই বন্ধ রইল স্কুলের পঠনপাঠন। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সমস্যার সূত্রপাত শনিবার। সে দিন ক্লাস শেষের পর স্কুলে নিখিলবঙ্গ শিক্ষক সমিতির জোনাল বার্ষিক সভা হওয়ার কথা ছিল। আর স্কুল মাঠেই চলছিল তৃণমূল সমর্থিত বালিচক দশেরা উৎসব কমিটির মহিলা ফুটবল প্রতিযোগিতা। শিক্ষক সমিতির সভায় ছিলেন সংগঠনের জোনাল সম্পাদক প্রবীরকুমার হর। অভিযোগ স্কুলে ঢোকার মুখে তাঁকে বাধা দেন ব্লক যুব তৃণমূল সভাপতি প্রদীপ কর ও ডুঁয়া অঞ্চল সম্পাদক তারক ঘোষ। চিৎকার শুনে আসেন স্কুলের দুই শিক্ষক সহদেব সিংহ ও প্রদীপ সিংহ মহাপাত্র। নিখিলবঙ্গ শিক্ষক সমিতির সদস্য ওই দু’জনকেও হেনস্থা করা হয়। বিষয়টি জানানো হয় তৃণমূল নিয়ন্ত্রিত স্কুল পরিচালন সমিতিকে। বৈঠক ডেকে পদক্ষেপের আশ্বাস দেয় তারা। তাই আর পুলিশে অভিযোগ হয়নি।

এ দিকে, অভিযুক্তদের শাস্তির ব্যাপারে স্কুল কর্তৃপক্ষ উদ্যোগী না হওয়ায় সোমবার ক্লাস বয়কট করে বেলা ১১টা থেকে দুপুর ২টো পর্যন্ত ডেবরা-সবং সড়কে অবরোধ করে পড়ুয়ারা। তীব্র যানজট হয়। বালিচক স্টেশন সংলগ্ন ওই এলাকায় কিছু বাস ঘুরপথে গেলেও অধিকাংশ বাস আটকে পড়ে। নিগৃহীত শিক্ষক প্রদীপবাবুর দাবি, “শিক্ষকদের ওপর আক্রমণ হলে পড়ুয়ারা পাশে দাঁড়াবে এটাই স্বাভাবিক। তবে আমরা চাইনি ক্লাস বন্ধ করে পথ অবরোধ হোক।”

Advertisement

নিগ্রহে অভিযুক্ত প্রদীপ করের দাবি, “শনিবার ঘটনাস্থলে ছিলাম না।” আর দিনভর পড়ুয়াদের অবরোধ নিয়ে মন্তব্য করতে চাননি ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক রাজকৃষ্ণ মাইতি।

আরও পড়ুন

Advertisement