Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

পক্ষপাতিত্বের নালিশ, থানায় বিক্ষোভ বিজেপির

নিজস্ব সংবাদদাতা
তমলুক ১৮ এপ্রিল ২০১৫ ০০:২৬

পুরসভা ভোটে বিজেপি প্রার্থী-কর্মীদের উপর আক্রমণে জড়িত তৃণমূল কর্মীদের গ্রেফতারে নিষ্ক্রিয়তা ও বিজেপি কর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে পুলিশি পক্ষপাতিত্বের অভিযোগে থানায় বিক্ষোভ দেখালেন বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা।

শুক্রবার বিকেল চারটে নাগাদ শহরের বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে বিজেপি প্রার্থী ও দলের কর্মী-সমর্থকরা শহরের শঙ্করআড়ায় জেলা বিজেপি কার্যালয়ে জড়ো হন। সেখান থেকে বিজেপি নেতা-কর্মী-সমর্থকরা শহরের রাস্তায় মিছিল করে তমলুক থানার সামনে যান। পুলিশের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ তুলে শুরু হয় থানার সামনে বিক্ষোভ। বিজেপি নেতাদের অভিযোগ, পুরসভা নির্বাচনের শুরু থেকেই তৃণমূলের কর্মীরা বিজেপি কর্মীদের উপর নানাভাবে অত্যাচার চালাচ্ছে। প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিতে বাধা দেওয়া থেকে প্রার্থী ও দলের কর্মীদের হেনস্থা-মারধর নানাভাবে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এমনকি পুরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের এক বিজেপি কর্মীর বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার মামলা করে তাকে হেনস্থা করা হচ্ছে।

বিক্ষোভ সভায় নেতৃত্ব দেন বিজেপির জেলা সাধারণ সম্পাদক সুকুমার দাস, জেলা সহ-সভাপতি মলয় সিংহ , তমলুক নগর সভাপতি ললিত জানা, সম্পাদক রণজিৎ চক্রবর্তী প্রমুখ। সুকুমারবাবুর অভিযোগ, ‘‘তমলুক পুরসভার ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের দলীয় প্রার্থী সুকোমল ঘোষকে হেনস্থা ও তাঁর কাকাকে মারধর করেছিল তৃণমূল কর্মীরা। এ বিষয়ে দুই তৃণমূল কর্মীর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ জানানো হলেও পুলিশ অভিযুক্ত তৃণমূল কর্মীদের গ্রেফতারে কোনরূপ তৎপরতা দেখায়নি। অথচ পুরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডে বিজেপি কর্মী অনুকুল মিশ্রের সঙ্গে এক তৃণমূল কর্মীর সামান্য বচসার পরে তাঁর বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার মামলা দায়ের করা হয়েছে। এভাবে পুলিশ তৃণমূলের হয়ে পক্ষপাতিত্ব করছে।’’

Advertisement

বিজেপি নেতৃত্ব এ দিন দাবি করেন, পুরসভা এলাকায় ভোট প্রচার ও ভোট গ্রহন পর্ব সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করার জন্য পুলিশকে নিরপেক্ষভাবে কাজ করতে হবে। বিজেপি কর্মীদের উপর আক্রমণের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার করতে হবে। আর বিজেপি কর্মীর বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। বিজেপি’র তোলা অভিযোগ অস্বীকার করে পূর্ব মেদিনীপুরের পুলিশ সুপার সুকেশ কুমার জৈন বলেন, ‘‘দুটি ঘটনার ক্ষেত্রেই অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ওই মামলার তদন্ত করা হচ্ছে। বিজেপি কর্মীকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগ ভিত্তিহীন।’’

জার্নাল প্রকাশ। বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের গণজ্ঞাপন বিভাগের জার্নাল প্রকাশিত হলো শুক্রবার। ‘এডুকেশন রিসার্চ অ্যান্ড অ্যানালিসিস’ শীর্ষক এই জার্নালের আনুষ্ঠানিক প্রকাশ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য রঞ্জন ভট্টাচার্য।

আরও পড়ুন

Advertisement