×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৭ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

সাজিয়ে তোলা হচ্ছে পশ্চিম মেদিনীপুরের জেলাশাসকের দফতর

নিজস্ব সংবাদদাতা
মেদিনীপুর২৫ নভেম্বর ২০২০ ১৫:৫৭
সৌন্দর্যায়নের কাজ করা হচ্ছে। নিজস্ব চিত্র।

সৌন্দর্যায়নের কাজ করা হচ্ছে। নিজস্ব চিত্র।

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলাশাসকের দফতরের প্রবেশ পথের ফাঁকা জায়গা সাজিয়ে তোলার উদ্যোগ নিয়েছেন জেলা প্রশাসন। প্রতি বছর যে মাঠে স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠান হয়, সেই মাঠটিকেও সাজিয়ে তোলার পাশাপাশি পরিবেশবান্ধব করার উদ্যোগও নিয়েছেন জেলাশাসক রশ্মি কোমল। জেলাশাসক কার্যালয়ে প্রবেশের ডান দিকের জায়গাটি আগাছায় ভরে গিয়েছিল। বিষয়টি নজরে আসে জেলাশাসকের। তার পরই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

জেলা প্রশাসনের সৌন্দর্যায়নের উদ্যোগে হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন মেদিনীপুর জেলার শিল্প সংস্থা কর্তৃপক্ষ। এ ব্যাপারে জেলাশাসক রশ্মি কোমল বলেছেন, ‘‘অফিস চত্বরে ফাঁকা জায়গায় সৌন্দর্যায়নের কাজ করা হচ্ছে। সুন্দর ভাবে তা সাজিয়ে তোলা হবে। সিএসআর-এর মাধ্যমে সেই কাজ করা হচ্ছে।’’

জানা গিয়েছে, ওই ফাঁকা জায়গায় বসানো হবে একটি ৫ ফুটের ধ্যানমগ্ন বুদ্ধ মূর্তি। তার পিছনে বাঁশের কারুকার্য করা থাকবে। তা ছাড়াও লাগানো হবে ছোট-বড় বিভিন্ন ধরনের গাছ ও আলো। ২৬ ফুট বাই ২.৫ ফুটের ওই স্থানটিকে সুন্দর ভাবে সাজিয়ে তোলার পাশাপাশি প্রায় ৩ হাজার বর্গফুট জায়গাতে সবুজায়নের জন্য কৃত্রিম ঘাস লাগানো হবে। পতাকা তোলার স্ট্যান্ডটিতে তৈরি হবে একটি বেদি। তার চারপাশে লাগানো হবে টগর এবং কামিনী গাছ। এই প্রকল্পের ইঞ্জিনিয়ার নিত্যানন্দ বেরা বলেছেন, ‘‘জেলাশাসক অফিস চত্বর সাজিয়ে তোলার কাজ শুরু হয়েছে। বুদ্ধমূর্তি ছাড়াও বিভিন্ন রকমের গাছ ও লাইট দিয়ে সাজানোর কাজ শুরু হয়েছে। এর জন্য প্রায় ৩২ লক্ষ টাকা খরচ হতে পারে।’’ এর আগে দিঘার মন্দারমণিতে বিশ্ব বাংলা প্রকল্পের কাজ করেছেন তিনি। আগামী স্বাধীনতা দিবসের আগেই কাজ শেষ হবে বলে জানিয়েছেন নিত্যানন্দ।

Advertisement
Advertisement