Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

দুর্ঘটনায় মৃত্যু, অবরুদ্ধ সড়ক

নিজস্ব সংবাদদাতা
তমলুক ০৭ এপ্রিল ২০১৫ ০০:৪৭

মোটরবাইকের ধাক্কায় মৃত্যু হল এক সাইকেলআরোহীর। সোমবার সকালে কোলাঘাট থানার দেউলিয়া বাজারের কাছে পানশিলা এলাকায় ৬ নম্বর জাতীয় সড়কের এই দুর্ঘটনায় মৃতের নাম বিশ্বনাথ সাউ (৫০)। তিনি কোলাঘাটের মাধবপুর গ্রামের বাসিন্দা। দুর্ঘটনায় জখম হয়েছেন অমিয় হাইত নামে ওই মোটরবাইক চালকও। পাঁশকুড়ার কেশাপাট এলাকার পাকুড়িয়া গ্রামের এই বাসিন্দা মেচেদার একটি নার্সিং হোমে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ দিন দুর্ঘটনার পর দেউলিয়া বাজারের কাছে জাতীয় সড়কে উড়ালপুল তৈরির দাবি তুলে ফের সড়ক অবরোধ করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। প্রায় আধ ঘণ্টা ধরে জাতীয় সড়ক অবরোধের জেরে যানজট তৈরি হয়। পুলিশ আলোচনার আশ্বাস দিলে অবরোধ ওঠে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বিশ্বনাথ সাউ এ দিন ভোরে স্থানীয় দেউলিয়া বাজারে ফুল বিক্রি করতে এসেছিলেন। সকাল সাড়ে ৮ টা নাগাদ বাড়ি ফেরার জন্য তিনি সাইকেল চালিয়ে দেউলিয়া বাজার থেকে ৬ নম্বর জাতীয় সড়ক ধরে কোলাঘাটের দিকে যাচ্ছিলেন। সেই সময় পাঁশকুড়ার দিক থেকে ফুলের বোঝা নিয়ে মোটরবাইক চালিয়ে কোলাঘাট ফুলবাজারে যাচ্ছিলেন ফুল ব্যবসায়ী অমিয় হাইত। জাতীয় সড়কের একই দিকে যাওয়ার পথে দেউলিয়া বাজার থেকে প্রায় আধ কিলোমিটার দূরে অমিয়বাবু মোটরবাইক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ধাক্কা মারে বিশ্বনাথবাবুর সাইকেলের পিছনে। গুরুতর আহত হন বিশ্বনাথবাবু। তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়।

দুর্ঘটনার পরে স্থানীয় বাসিন্দারা এ দিন ফের দেউলিয়া বাজারের কাছে জাতীয় সড়কের উপর উড়ালপুল নির্মাণের দাবি তুলে জাতীয় সড়ক অবরোধ শুরু করেন। সম্প্রতি জাতীয় সড়কের ওই এলাকায় উড়ালপুলের দাবি তুলে স্থানীয় বাসিন্দারা ওভারব্রিজ কাম সাব-ওয়ে নির্মাণ সংগ্রাম কমিটি গড়ে তুলে আন্দোলনেও নেমেছেন। দিন কয়েক আগে ওই কমিটি দেউলিয়া বাজারে জাতীয় সড়ক অবরোধ করেছিল। এ দিন অবরোধে নেতৃত্ব দেন কমিটির সহ-সম্পাদক রবীন্দ্রনাথ মুলা, সেখ নাসির আহমেদ। কমিটির সম্পাদক আনন্দ হাণ্ডা বলেন, ‘দুর্ঘটনা রোধ করতেই এই বাজার এলাকায় আমরা উড়ালপুল তৈরির দাবি জানিয়ছিলাম। কিন্তু জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষ ও প্রশাসনের তরফ থেকে সদর্থক সাড়া মেলেনি। তাই এ দিন দুর্ঘটনার পরে ফের সড়ক অবরোধ করা হয়েছিল।’’

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement