Advertisement
০৭ ডিসেম্বর ২০২২

লুপ্ত লোকসভা ফেরানোর ডাক নবদ্বীপবাসীর

দেখলেই কেমন যেন চিনচিনে একটা ব্যথা। ষোড়শ লোকসভা ভোটের প্রচারে নবদ্বীপ শহরের দেওয়ালে, ফ্লেক্সে সর্বত্র জ্বলজ্বল করছে রানাঘাট লোকসভা কেন্দ্রের নাম। ২০০৯ লোকসভা ভোটে সীমানা পুনর্বিন্যাসে বিয়োজিত হয়েছিল নবদ্বীপ লোকসভা কেন্দ্রের নাম। ষোড়শ লোকসভা ভোটের আগে পুরনো সেইব্যাথা মাথাচাড়া দিয়েছে ফের। নবদ্বীপ লোকসভা কেন্দ্রের নাম ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি উঠছে নতুন করে।

নিজস্ব সংবাদদাতা
নবদ্বীপ শেষ আপডেট: ০৯ এপ্রিল ২০১৪ ০১:০৬
Share: Save:

দেখলেই কেমন যেন চিনচিনে একটা ব্যথা। ষোড়শ লোকসভা ভোটের প্রচারে নবদ্বীপ শহরের দেওয়ালে, ফ্লেক্সে সর্বত্র জ্বলজ্বল করছে রানাঘাট লোকসভা কেন্দ্রের নাম।

Advertisement

২০০৯ লোকসভা ভোটে সীমানা পুনর্বিন্যাসে বিয়োজিত হয়েছিল নবদ্বীপ লোকসভা কেন্দ্রের নাম। ষোড়শ লোকসভা ভোটের আগে পুরনো সেইব্যাথা মাথাচাড়া দিয়েছে ফের। নবদ্বীপ লোকসভা কেন্দ্রের নাম ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি উঠছে নতুন করে। নবদ্বীপের শহর এবং গ্রামীণ এলাকায় প্রচারে বেরিয়ে বারেবারে এই একটাই দাবি শুনতে হচ্ছে রানাঘাট লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী তাপস মণ্ডলকে। এই আসন থেকে নির্বাচিত হচ্ছেনই ধরে নিয়ে তাঁকে এই দাবিতে একাধিক স্মারকলিপিও দিয়ে ফেলেছেন নবদ্বীপবাসী।

চৈতন্য জন্মভূমি নবদ্বীপই স্বাধীনতা পরবর্তী কালে নদিয়া জেলার একমাত্র লোকসভা আসন হিসাবে স্বীকৃতি পেয়েছিল। প্রখ্যাত আইনজ্ঞ লক্ষীকান্ত মৈত্র নিজে কৃষ্ণনগরের মানুষ হয়েও নবদ্বীপকে স্বাধীনতার পর জেলার একমাত্র লোকসভা কেন্দ্র হিসাবে নথিভুক্ত করিয়ে ছিলেন। এ হেন নবদ্বীপ কেন্দ্রের অস্তিত্ব বিলুপ্ত হয়ে যাওয়ার পর প্রতিবাদে মুখর হয়েছিলেন সাধারণ মানুষজন থেকে সাধুসন্ত, ব্যবসায়ী সমিতি থেকে নাগরিক কমিটি। গণ কনভেনশন থেকে মিটিং মিছিল, ভোট বয়কটের ডাক, প্রধানমন্ত্রী থেকে রাষ্ট্রপতি, নির্বাচন কমিশনসমস্ত জায়গা দরবার করেছিলেন নবদ্বীপের মানুষ। লাভ হয়নি। নবদ্বীপের বিধায়ক তথা রাজ্যের মন্ত্রী পুণ্ডরীকাক্ষ সাহা বলেন, “এই আসনে তাপস মণ্ডলের জয় নিশ্চিত। মানুষের এই দাবির কথা আমরা তাপসবাবুকে প্রথম থেকেই মনে করিয়ে দিতে চাইছি। তিনি যেন এই এলাকার মানুষের ঐতিহাসিক দাবির সমর্থনে সরব হন।” নবদ্বীপবাসীর পক্ষ থেকে পুরপ্রধান বিমানকৃষ্ণ সাহাও একটি স্মারকলিপি দিয়েছেন। প্রার্থীর হাতে একই দাবিপত্র তুলে দিয়েছেন নবদ্বীপের সনাতন সন্ত সমাজ এবং গৌড়ীয় বৈষ্ণব সমিতি সদস্যরা। তাঁদের তরফে অদ্বৈত দাস এবং কিশোর গোস্বামীরা বলেন, “আমরা তাপস মণ্ডলকে আমাদের বেদনার কথা জানিয়েছি। আশা রাখছি তাঁর মাধ্যমে আবার নবদ্বীপের নাম লোকসভা আসন হিসাবে ফিরে আসবে।”

উন্নয়ন, পরিকাঠামো বা অন্য কোনও দাবি নয়। স্রেফ হারিয়ে যাওয়া এক প্রাচীন লোকসভা কেন্দ্র ফিরিয়ে দেওয়ার এই অভিনব দাবির সামনে কিছুটা অবাকই হয়েছেন তৃণমূল প্রার্থী তাপস মণ্ডল। বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক প্রার্থীর আশ্বাস, “আমি এই বিষয়ে আমার যথাসাধ্য করব।”

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.