Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ ই-পেপার

মারধর বৃদ্ধকে, তৃণমূল নেতা অভিযুক্ত

নিজস্ব সংবাদদাতা 
তাহেরপুর ২৫ ডিসেম্বর ২০১৮ ০৭:০০

চাষের জমি নিয়ে টানাপড়েন ছিল আত্মীয়দের মধ্যে। বিবাদ মেটানোর জন্য স্থানীয় পঞ্চায়েতের দ্বারস্থও হয়েছিলেন তাঁরা। সেই বিবাদের মধ্যে ঢুকে একটি পরিবারকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠছিল স্থানীয় তৃণমূল নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। এ বার দলবল জুটিয়ে এক বৃদ্ধকে মারধর করার অভিযোগ উঠল স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধানের স্বামীর বিরুদ্ধে।

কালীনারায়ণপুর পাহাড়পুর পঞ্চায়েতের কৃষ্ণপুরচক গ্রামের বৃদ্ধ মৃত্যুঞ্জয় গোস্বামী তাহেরপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। তাঁর দাবি, বাড়ির সামনেই চার বিঘার মতো জমি আছে তাঁদের। সম্প্রতি তাঁদের কিছু আত্মীয় জমিতে তাদের অংশীদারিত্ব দাবি করে। তা নিয়ে মৃত্যুঞ্জয় এবং তাঁর দাদা হরলালের সঙ্গে আত্মীয়দের টানাপড়েন চলছে। বিষয়টি নিস্পত্তির জন্য বছরখানেক আগে কালীনারায়ণপুর পাহাড়পুর পঞ্চায়েত এবং রানাঘাট ১ পঞ্চায়েত সমিতিতেও জানানো হয়। কিন্তু নিষ্পত্তি হয়নি। মৃত্যুঞ্জয়ের অভিযোগ, পঞ্চায়েতের প্রধান দীপা দাসের স্বামী স্থানীয় তৃণমূল নেতা জানকীকান্ত দাস তাঁদের ওই জমিতে চাষ করতে বাধা দিচ্ছেন এবং নিয়মিত নানা হুমকি দিচ্ছেন। মাসখানেক আগে পঞ্চায়েত অফিসে বিষয়টি নিয়ে বৈঠকে ডাকা হয়েছিল। কিন্তু সেই বৈঠক হয়নি।

রবিবার মৃত্যুঞ্জয় লোক ডেকে বাড়ির সামনের ওই জমিটি পরিষ্কার করাচ্ছিলেন। তাঁর অভিযোগ, বিকালে জনা তিনেক লোক সেখানেই তাঁকে আক্রমণ করে। এদের মধ্যে স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধান দীপা দাসের স্বামী জানকী দাসও ছিলেন বলে অভিযোগ। তাঁকে কিল, চড়, লাথি, ঘুসি মারা হয়, এমনকি গলা টিপে ধরা হয় বলেও অভিযোগ।

Advertisement

টিএমসিপি-র রানাঘাট ১ ব্লক সভাপতি জানকী অবশ্য তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তাঁর দাবি, মৃত্যুঞ্জয়ের ভাইদের মধ্যে জমি নিয়ে সমস্যা রয়েছে। বাকি অংশীদারদের বাদ দিয়ে দুই ভাই জমিটা নিয়ে নিয়েছে বলে অভিযোগ জানানো হয়েছে পঞ্চায়েতে। বিষয়টির মীমাংসার জন্য দু’মাস আগে বৈঠক ডাকা হলেও মৃত্যুঞ্জয়েরা সেখানে সময় মতো যাননি। জানকীর আরও দাবি, ‘‘এই নিয়ে কথা বলতেই আমি গিয়েছিলাম। সঙ্গে কোনও লোক ছিল না। মারধরের ঘটনাও ঘটেনি। উল্টে আমাকেই গালিগালাজ করা হয়েছে। মিথ্যা অভিযোগ তোলা হচ্ছে।”

পুলিশ জানায়, তদন্ত শুরু হয়েছে। তবে রানাঘাট ১ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি তথা ব্লক তৃণমূল সভাপতি তাপস ঘোষও দাবি করেন, ‘‘যত দূর শুনেছি, জানকীর বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ তোলা হচ্ছে। মারধরের কোনও ঘটনা ঘটেনি।’’

আরও পড়ুন

More from My Kolkata
Advertisement