Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ ই-পেপার

রাহুল-মমতায় উত্তরবঙ্গ দিনভর জমজমাট আজ

নিজস্ব প্রতিবেদন
২৫ মার্চ ২০১৪ ০৩:৫৪

ডুয়ার্সের চা বাগানে সভা সেরে রাহুল গাঁধীর বিমান উড়ে যাওয়ার ঘন্টা তিনেক পরেই বাগডোগরায় নামবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিমান। আজ, মঙ্গলবার, রাজনীতির দুই তারকার আসা-যাওয়ায় রীতিমতো সরগরম উত্তরবঙ্গ। কড়া নিরাপত্তায় ঘিরে ফেলা হয়েছে জলপাইগুড়ি জেলা, আর তার লাগোয়া শিলিগুড়ি এলাকা।

আলিপুরদুয়ারের কংগ্রেস প্রার্থী জোসেফ মুন্ডার সমর্থনে কংগ্রেস সহ-সভাপতি রাহুল গাঁধী কর্মিসভা করবেন মেটেলির জুরান্তি চা বাগানের ফুটবল মাঠে। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে দশটার মধ্যে ডুয়ার্সের হাসিমারার বায়ুসেনা ছাউনিতে রাহুল গাঁধীর বিশেষ বিমান এসে পৌঁছোনোর কথা রয়েছে। দলীয় সূত্রে খবর, শ্রমিকদের অভাব অভিযোগের কথা শুনবেন রাহুল। চা শ্রমিকদের জন্য কংগ্রেসের চিন্তাভাবনা ব্যাখ্যা করবেন। এর পরে কর্মিসভায় বক্তৃতা দেবেন। সব মিলিয়ে ঘন্টাখানেকের সভা। দুপুর সাড়ে ১২টায় বিমানে ত্রিপুরায় পৌঁছনোর কথা রাহুলের। বিকেলে ফের কলকাতায় ফিরবেন। পৌনে পাঁচটা নাগাদ তাঁর সভা হবে শহিদ মিনারে।

মঙ্গলবারই দুপুর সোয়া তিনটেয় মুখ্যমন্ত্রী বাগডোগরা পৌঁছোবেন। নকশালবাড়িতে দার্জিলিঙের তৃণমূল প্রার্থী ভাইচুং ভুটিয়ার সমর্থনে কর্মিসভা করবেন তিনি। এর পরে জলপাইগুড়ি জেলার রাজগঞ্জের সাহুডাঙিতে জলপাইগুড়ির তৃণমূল প্রার্থী বিজয়কৃষ্ণ বর্মনের সমর্থনে কর্মিসভা করবেন। তৃণমূল সূত্রের খবর, দুই কর্মিসভার পরেই এলাকার নেতাদের সঙ্গেও আলোচনা করার কথা রয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর। ডুয়ার্সেই রাতে থাকার কথা রয়েছে তাঁর।

Advertisement

বুধবার কালিম্পঙের গরুবাথান ও বীরপাড়ায় কর্মিসভা রয়েছে তৃণমূল নেত্রীর। বীরপাড়ার সারনা ক্লাব মাঠে আলিপুরদুয়ারে দলের প্রার্থীর সমর্থনে সভা করবেন তিনি। তৃণমূল সূত্রের খবর, বুধবারই মুখ্যমন্ত্রীর কলকাতায় ফিরে যাওয়ার কথা রয়েছে।

মমতার পাহাড় সফরকে কটাক্ষ করে অধীর চৌধুরী বলেন, “পাহাড়ের অবস্থা খারাপ বলেই মুখ্যমন্ত্রীকে পাহাড়ে দৌড়তে হচ্ছে।” আরও বলেন, “কোথাও তামাঙ্গ, কোথাও লেপচাদের উস্কানি দিয়ে পাহাড়ে বিভাজন সৃষ্টি করে দিয়েছেন মমতা। ওই বিভাজনের রাজনীতিতে মদত দিতেই ফের পাহাড় যাচ্ছেন তিনি।”

কলকাতায় রাহুলের সভা নিয়েও তৃণমূলের সরকারকে বিঁধলেন অধীর। তাঁর দাবি, নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়াম বা পার্ক সার্কাস ময়দান চেয়েও পাওয়া যায়নি। তাই বাধ্য হয়ে জায়গা বদল করতে হয়েছে শহিদ মিনারে। তবে সভার প্রচারে নতুন উদ্যোগ নিচ্ছেন তিনি। মোবাইলে ফোন করে গ্রাহকদের কাছে রাহুলের সভার বিষয়ে রেকর্ড-করা বার্তা পাঠানো হচ্ছে। অধীর বলেন, “এটা হঠাৎই মাথায় এল। এআইসিসি-ও সম্মতি দিয়েছে। তাই মোবাইলে প্রচার শুরু হয়ে গিয়েছে।”

আরও পড়ুন

More from My Kolkata
Advertisement