Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

রাস্তা জুড়ে ফব-র সভায় ভিড়, যানজটে নাকাল জলপাইগুড়ি

কর্মব্যস্ত সময়ে ফরওয়ার্ড ব্লকের সভা, মিছিলে অবরুদ্ধ হল জলপাইগুড়ি শহর। মঙ্গলবার দুপুরে তার জেরে দুর্ভোগে পড়েন বাসিন্দারা। এইমসের ধাঁচে হাসপাত

নিজস্ব সংবাদদাতা
জলপাইগুড়ি ২৪ ডিসেম্বর ২০১৪ ০২:১১
Save
Something isn't right! Please refresh.
জলপাইগুড়ি শহরের দিনবাজার এলাকায় মার্চেন্ট রোডে ফব-র সভায় ভিড়। ছবি তুলেছেন সন্দীপ পাল।

জলপাইগুড়ি শহরের দিনবাজার এলাকায় মার্চেন্ট রোডে ফব-র সভায় ভিড়। ছবি তুলেছেন সন্দীপ পাল।

Popup Close

কর্মব্যস্ত সময়ে ফরওয়ার্ড ব্লকের সভা, মিছিলে অবরুদ্ধ হল জলপাইগুড়ি শহর। মঙ্গলবার দুপুরে তার জেরে দুর্ভোগে পড়েন বাসিন্দারা।

এইমসের ধাঁচে হাসপাতাল উত্তরবঙ্গে স্থাপন সহ সাত দফা দাবিতে ফরওয়ার্ড ব্লক কর্মী সমর্থকদের রাস্তা দখল করে অবস্থান করেন। যানজটে থমকে যায় জনজীবন। বাস আটকে স্কুল ফেরত কচিকাঁচারা দুর্ভোগে পড়ে। ভিড় ঠেলে বাইক, সাইকেল, পথচারীও এগোতে পারেনি। প্রায় এক ঘণ্টা ভোগান্তি চলে। অবস্থান শেষে মিছিল শুরু হতে ফের শহর স্তব্ধ হয়। ওই রেশ না কাটতে বিজেপির দীর্ঘ বিজয় মিছিলে যানজটের কবলে পড়ে শহর।

শহর জুড়ে এমন বিশৃঙ্খলা দেখে ক্ষুব্ধ পথচারী মহলে প্রশ্ন উঠেছে ব্যস্ততম রাস্তা আটকে কেন অবস্থান আন্দোলন হবে? পুলিশ কর্তারা ওই বিষয়ে মন্তব্য করতে অস্বীকার করেন। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জেমস কুজুর বলেন, “গোলমাল তো কিছু হয়নি।” যদিও পরিস্থিতি সামাল দিতে নাকাল ট্রাফিক পুলিশের এক কর্তা জানান, এ দিনের অবস্থান আন্দোলনে এতো ভিড় হবে সেটা তাঁদের ধারণা ছিল না।

Advertisement

এ দিন বেলা ১২টা নাগাদ ফরওয়ার্ড ব্লকের উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির ডাকে উত্তরবঙ্গের সাত জেলার কয়েক হাজার দলীয় কর্মী সমর্থক শহরের দিনবাজার এলাকায় মার্চেন্ট রোডে অবস্থানে বসেন। গোড়ায় তেমন ভিড় না হলেও বেলা সাড়ে ১২টা নাগাদ চারদিক থেকে মিছিল ঢুকতে শহর অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে। উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির আহ্বায়ক উদয়ন গুহ এবং মেখলিগঞ্জের দলীয় বিধায়ক রাস্তা জুড়ে পলিথিন পেতে কর্মীদের বসার ব্যবস্থা করার নির্দেশ দেন। তাতে যানজটে আটকে হাঁসফাঁস করতে শুরু করে গোটা দিনবাজার এলাকা। যানবাহনের লাইন টেম্পল স্ট্রিট ছাড়িয়ে ডিবিসি রোডে পৌঁছে যায়। থানা রোড অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে। মিছিলের জটে আটকে ঠায় দাঁড়িয়ে থাকে স্কুল বাস। ওই সময় জলপাইগুড়ির প্রাক্তন বিধায়ক গোবিন্দ রায় ও কোচবিহারের প্রাক্তন বিধায়ক দীপক সরকার রাস্তার পাশে তৈরি মঞ্চে উঠে বার কয়েক স্কুল বাস বেরিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করার জন্য নির্দেশ দিলেও লাভ হয়নি।

নিত্যযাত্রীদের ক্ষোভ বাড়তে থাকায় বেলা ১টা নাগাদ দলীয় কর্মীদের তুলে দিয়ে রাস্তার কিছুটা ছেড়ে দেওয়া হলে পথচারীরা কিছুটা স্বস্তি ফিরে পান। উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির আহ্বায়ক উদয়ন গুহ বলেন, “দলের কর্মীরা এ ভাবে রাস্তায় নামবেন ভাবতে পারিনি।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement