×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৭ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

নাবালিকা বিয়ে রুখল চাইল্ডলাইন

নিজস্ব সংবাদদাতা
বোলপুর১৭ এপ্রিল ২০১৭ ০০:৫৫

পুলিশের সাহায্যে বোলপুরের মুলুক গ্রামের বাসিন্দা এক নাবালিকার বিয়ে রুখল বীরভূম চাইল্ড লাইন। ১৮ এপ্রিল বর্ধমানের মঙ্গলকোটের এক যুবকের সঙ্গে ওই নাবালিকার বিয়ে ঠিক হয়েছিল। খবর পেয়ে পুলিশ ও চাইল্ড লাইনের কর্তাব্যক্তিরা মেয়ের বাড়ি গিয়ে বুঝিয়ে বিয়ে আটকায়। আঠারো বছরের আগে বিয়ে নয়, নাবালিকার বাবা-মায়ের থেকে এই মর্মে মুচলেখাও আদায় করেছে পুলিশ।

বীরভূম চাইল্ড লাইন ও পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বোলপুরের শৈলবালা উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির পড়ুয়া ছিল মুলুকের বাসিন্দা ওই নাবালিকা। তার বাবা পেশায় দিনমজুর। প্রতিবেশীরা জানান, টাকা-পয়সার অভাবে গত বছর থেকেই পড়াশোনা বন্ধ হয়ে গিয়েছে মেয়ের। এর মধ্যে বর্ধমানের মঙ্গলকোটের এক যুবকের সঙ্গে তার বিয়ে ঠিক হয়। জোরকদমে চলছিল প্রস্তুতি। খবর পেয়ে শনিবার সন্ধ্যায় বোলপুর থানার পুলিশ ও চাইল্ড লাইনের কর্তাব্যক্তিরা মুলুক গ্রামের বাড়িতে পৌঁছয়। প্রথমে পরিবারের লোকজনের সঙ্গে, পরে ওই নাবালিকার সঙ্গে কথা বলে বিয়ে বন্ধ করা হয়।

জেলা চাইল্ড-লাইনের কাউন্সিলর মাধবরঞ্জন সেনগুপ্ত বলেন, ‘‘আর্থিক সঙ্কটে পড়েই মেয়ের বাবা বিয়ে দিয়ে দিচ্ছিলেন। আমরা গিয়ে বুঝিয়ে বলেছি। আইন-বিরুদ্ধ তা-ও জানানো হয়েছে।’’ মেয়েটি যাতে ফের পড়াশোনা শুরু করতে পারে সে ব্যাপারেও উদ্যোগী হয়েছে চাইল্ড-লাইন।

Advertisement
Advertisement