×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৮ মে ২০২১ ই-পেপার

গন্ধটা সন্দেহজনক!

সংবাদ সংস্থা
লন্ডন ০১ মে ২০১৭ ০২:৫৩

কথায় বলে, ঘ্রাণেন অর্ধভোজনম! কিন্তু ঘ্রাণই যদিই না রোচে?

তেমনটাই হয়েছে ব্রিটেনের মিডলসবরোয়। সেখানকার লিনথর্পে এক ভারতীয় রেস্তোরাঁয় রান্না করা খাবারের গন্ধ সহ্য করতে পারেননি প্রতিবেশীরা। বিরিয়ানি আর ভাজা পদের ঘ্রাণ ছড়িয়ে পড়ছিল গোটা এলাকায়। সেই কড়া গন্ধের ‘জ্বালায়’ প্রতিবেশীরা সোজা কোর্টে চলে যান। মিডলসবরো কাউন্সিল ‘খুশি’ নামে ওই রেস্তোরাঁর মালিক শাবানা এবং মহম্মদ খুশিকে জরিমানা করেছে। স্থানীয় প্রশাসনের দাবি, ওই রেস্তোরাঁয় ধোঁয়া নির্গমন ব্যবস্থা ঠিক ছিল না। প্রতিবেশীরা আপত্তি তোলায় কাউন্সিল জরিমানা চাপিয়েছে।

রেস্তোরাঁর জায়গায় আগে রেড রোজ নামে একটি পাব ছিল। ওই পাব নিয়ে কেউ কোনও অভিযোগ জানাননি। ‘খুশি’ মূলত পঞ্জাবি খাবারের রেস্তোরাঁ। তবে বিরিয়ানিও অন্যতম আকর্ষণ। প্রতিবেশীদের অভিযোগ, ‘খুশি’র রান্নাঘর থেকে আসা ঝাঁঝালো গন্ধ তাদের জানলা ভেদ করে হানা দিচ্ছে ঘরে। কেউ কেউ বলেছেন, গন্ধের এমন তেজ যে জামাকাপড় ধুতে বাধ্য হচ্ছেন তাঁরা!

Advertisement

সব শুনে কাউন্সিল জরিমানা চাপিয়েছে মালিকদের উপরে। ‘খুশি’-র তরফে আইনজীবীর বক্তব্য, একটি চালু পাবের জায়গায় ২০১৫ সালে রেস্তোরাঁ গড়ে উঠেছিল। তাই মালিকরা বোঝেননি নিষ্কাশন ব্যবস্থা পাল্টানোর প্রয়োজন আছে কি না। আশপাশের কয়েকটি দোকানও পাশে দাঁড়িয়েছে ‘খুশি’র। তারা বলেছে, কোনও গন্ধ তাদের নাকে পৌঁছয়নি।

কাউন্সিলের নির্দেশ পেয়েই নিষ্কাশন ব্যবস্থার মান পাল্টে ফেলেছেন শাবানারা। তবে ঘটনার পরে ৪২-এর শাবানা বলছেন, ‘‘স্বস্তি পেলাম ঠিকই। কিন্তু মনে হচ্ছে যেন ঠকে গেলাম। আমরা ভাল প্রতিবেশী হওয়ার চেষ্টাই করেছিলাম। কিন্তু কিছু লোক আমাদের পছন্দ করেননি।’’

Advertisement