×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৪ মে ২০২১ ই-পেপার

মুম্বই হামলাকে ‘ন্যক্কারজনক’ বলে উল্লেখ করল চিন, সন্ত্রাসবিরোধী ভাবমূর্তি তুলে ধরতে তৎপরতা

সংবাদ সংস্থা
বেজিং ১৯ মার্চ ২০১৯ ১২:০৭
শ্বেতপত্রে বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ বেড়ে যাওয়া নিয়ে উদ্বেগও প্রকাশ করেছে চিন।— ফাইল চিত্র।

শ্বেতপত্রে বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ বেড়ে যাওয়া নিয়ে উদ্বেগও প্রকাশ করেছে চিন।— ফাইল চিত্র।

যদিও রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদে চিনের বাধায় জইশ-ই-মহম্মদ নেতা মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক জঙ্গি তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা যায়নি। তবে আন্তর্জাতিক মঞ্চে সন্ত্রাসবাদ বিরোধী ভাবমূর্তি তুলে ধরতে এবার একটি শ্বেতপত্র প্রকাশ করল বেজিং। আর সেই শ্বেতপত্রে ২৬/১১ মুম্বই হামলাকে সব থেকে ন্যক্কারজনক ঘটনাগুলির অন্যতম বলে অভিহিত করল বেজিং। সোমবার প্রকাশিত ওই শ্বেতপত্রে বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ বেড়ে যাওয়া নিয়ে উদ্বেগও প্রকাশ করেছে চিন।

সন্ত্রাসবাদ তথা জঙ্গি কার্যকালাপ রুখতে বেজিংয়ের ভূমিকা নিয়ে মোটেই সন্তুষ্ট নয় নয়াদিল্লি। জইশ নেতা মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক জঙ্গি তালিকাভুক্ত করা নিয়ে চিনের ভূমিকায় একাধিক বার ক্ষোভ প্রকাশ করেছে হোয়াইট হাউসও। বিষয়টি নিয়ে রাষ্ট্রপুঞ্জে চিন বার বার ভেটো দেওয়ায় বিকল্প পথের কথাও শোনা গিয়েছে ট্রাম্প প্রশাসনের মুখে। কূটনৈতিক মহলের মতে, শেষ পর্যন্ত চাপে পরে অবস্থান বদলের আভাস দিতে বাধ্য হয়েছে চিন। সম্প্রতি বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলে দিল্লিতে নিযুক্ত চিনের রাষ্ট্রদূত লিউ চানচাও জানিয়েছিলেন, ‘‘মাসুদ আজহারের বিষয়টি আমরা পুরোপুরি বুঝতে পারছি এবং বিশ্বাসও করি। এ ব্যাপারে ভারতের উদ্বেগও আমাদের অজানা নয়। আশা করি বিষয়টির শীঘ্র সমাধান হবে।’’

বিশ্বব্যাপী বেড়ে ওঠা সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করে শ্বেতপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘সন্ত্রাসের আতঙ্ক অত্যন্ত উদ্বেগের বিষয়। বহু মানুষের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে সন্ত্রাসবাদ। ২০০৮ সালের নভেম্বরের মুম্বই হামলা সন্ত্রাসবাদের ইতিহাসে সবচেয়ে ন্যক্কারজনক উদাহরণগুলির মধ্যে অন্যতম।’

Advertisement

আরও পড়ুন: মাসুদ নিয়ে আশার বাণী চিনের, স্বস্তিতে ভারত

ভারত-পাক সম্পর্কের ক্ষেত্রে এই বিষয়গুলো জানতেন

শ্বেতপত্রে আরও বলা হয়েছে, গোটা বিশ্বে সন্ত্রাসবাদ এবং চরমপন্থা শান্তির পরিবেশকে বিঘ্নিত করেছে। চিন সমস্ত ধরনের সন্ত্রাসবাদের বিপক্ষে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে সেখানে। তা ছাড়া সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে চিন কোনও সময়ই যে পিছপা নয়, সে কথাও স্পষ্ট করা হয়েছে প্রকাশিত শ্বেতপত্রে।

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

আরও পড়ুন: পেট ভর্তি প্লাস্টিক মিলল তিমির দেহে

এ বার দিন কয়েকের মধ্যে মুম্বই হামলা নিয়েও উদ্বেগের কথা জানাল বেজিং। আর একটি দিক থেকেও এই মন্তব্য বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। কারণ, এই মুহূর্তে চিন সফরে পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মামুদ কুরেশি। আর তখনই সন্ত্রাসবাদ নিয়ে শ্বেতপত্র প্রকাশ করল চিনফিং প্রশাসন।

(সারা বিশ্বের সেরা সব খবর বাংলায় পড়তে চোখ রাখতে পড়ুন আমাদের আন্তর্জাতিক বিভাগে।)

Advertisement