Anandabazar Patrika Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading Newspaper

শরীরের নানা অঙ্গে ব্যথার আধিভৌতিক কারণ


আমাদের শরীরের বিভিন্ন অঙ্গে নানা সময়ে নানা ভাবে ব্যথার সৃষ্টি হয়ে থাকে। কিছু ব্যথা স্বাভাবিক ভাবে ওষুধ খেলে সেরে যায়, আর কিছু ব্যথা আছে যত ক্ষণ ওষুধ খাওয়া হয় তত ক্ষণ ঠিক থাকে, আর ওষুধ বন্ধ করে দিলে আবার বেড়ে যায় এবং আস্তে আস্তে পুরনো বা জটিল রোগে পরিণত হয়।

জ্যোতিষ মতে, ক্রনিক ব্যথা যা সারতে চায় না, তার মূলে থাকে পূর্বজন্মের কিছু কারণ আর এই জীবনের প্রকৃতি বিরুদ্ধ চলা। এই ব্যাপারে প্রাচ্য ও প্রাশ্চাত্য, চৈনিক, জাপানি, রেড ইন্ডিয়ানদের প্রচলতি বিশ্বাসগুলির মধ্যে কোনও বিভেদ নেই।  

প্রকৃতি বিরুদ্ধ চলাকেই পৃথিবীর সব দেশেই মেটাফিজিক্যাল কজ বা আধিভৌতিক কারণ বলে বলা হয়ে থাকে। আমাদের শরীরের প্রায় সব ব্যথার আধিভৌতিক কারণ আর আধুনিক মেডিক্যাল সায়েন্সে বর্ণিত ব্যথার কারণের বিরোধ তো থাকবেই, বলা বাহুল্য।

আরও পড়ুন: কোন দিন নিরামিষ খেলে কোন দেবতার আশীর্বাদ পাওয়া যায় জেনে নিন

এখানে কয়েকটি ব্যথার মেটাফিজিক্যাল কজ নিয়ে পর্যালোচনা করা হল:

১) বুকের ব্যথা বা চেস্ট পেন বা হার্ট পেন: নানা কারণে বুকের ব্যথা হয়। আধুনিক চিকিৎসা বিজ্ঞান অনুযায়ী বুকে সিস্ট, টিউমার, হার্ট ব্লক, বুকে সংক্রমণ, শ্বাসকষ্ট, অর্থাৎ বুকে ব্যথার পিছনে কোনও না কোনও রোগ থাকে।

এই সব ব্যথার পেছনে আধিভৌতিক কারণ হিসেবে বলা হয়ে থাকে, বুক মানে ফেমিনিন বা নারীসুলভ ভাব, মাতৃভাব, পরিচর্যা, মাদারিং ইত্যাদি। এই সব  পরিচর্যার কাজগুলি জন্মান্তরে কর্মের কারণে যাদের উপর বর্তেছিল, তারা যদি কোথাও ফাঁকি দিয়ে থাকে তা হলে তাদের কোনও না কোনও রোগ বুকে ব্যথার কারণ হবে। এর মধ্যে ব্রেস্ট ক্যনসারও পড়ে।

২) গলার ব্যথা: এই গলার ব্যথার মধ্যে থাইরয়েড প্রবলেমও আছে। সূক্ষ্ম দেহে এখানে বিশুদ্ধা চক্র। আধিভৌতিক মতে, গলার সঙ্গে জড়িয়ে সৃষ্টিশীলতা। যাদের হৃদয় ও মনের মধ্যে দ্বন্দ্ব আছে তারা গলাকে কেন্দ্র করে নানা ধরনের জটিল রোগে ভুগবে। তার মধ্যে থাইরয়েডে যেমন আছে, আছে গলার ক্যানসার, গলার স্বরের সমস্যাও।

৩) হাঁটুর ব্যথা: আধিভৌতিক ভাবে হাঁটুর ব্যথার কারণ ইগো বা গর্বিত ভাব, ভালবাসতে না পারা ও একই সঙ্গে ভালবাসা থেকে বঞ্চিত হওয়া। আধ্যাত্মিক ভাবে নিজেকে নমনীয় করতে না পারা, মানুষের হৃদয়ের কাছে পৌঁছতে না পারা।

৪) পেটব্যথা: সঠিক খাবার আত্তিকরণ করা, এটা ডাইজেস্টিভ সিস্টেমের নিয়ম। না করতে পারলে রোগ বা পেট ব্যথা হবে, একই ভাবে প্রাণীর শরীর, মানসিক শরীর ও আধ্যাত্মিক শরীরকেও সময়ের সঙ্গে আত্তিকরন করতে হয় না হলে পেট ব্যথা হতেই থাকবে।

৫) নাভির কাছে বা তলপেটে ব্যথা: এর মধ্যে পড়ে শূলব্যথা। এই সব ব্যথার আধিভৌতিক কারণ অত্যধিক ক্রোধ বা রাগ। নিজেকে ক্রোধের ব্যাপারে প্রশমিত না করতে পারলে, প্রতিহিংসা ভিতরে পোষণ করলে নাভির কাছে সোলার প্লেক্সে ব্যথা হবেই। আর একটি বিষয়, অনবরত সিদ্ধান্তহীনতার কারণে পেটে প্রবল ব্যথা আসতে পারে। নতুন ভাব বা আইডিয়াকে বরণ করে না নিতে পারলে যে দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হয় তার জন্য নাভির কাছে ব্যথা হতে পারে।


Anandabazar Patrika Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading Newspaper