১৫ কার্তিক ১৪২১ শনিবার ১ নভেম্বর ২০১৪ | কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ weather forecast সর্বোচ্চ : ৩১.৩°C     সর্বনিম্ন : ২১.৬°C

যাত্রীছাউনিতে সৌর আলো

কৌশিক ঘোষ

০১ নভেম্বর, ২০১৪

পথ ঢেকে যায় বিজ্ঞাপনে

জয়তী রাহা

০১ নভেম্বর, ২০১৪

বনেদি বাড়ির জগদ্ধাত্রী পুজো

বিভূতিসুন্দর ভট্টাচার্য

আবারও ঢাকে কাঠি! এ বার রইল কলকাতার কিছু পুরনো বাড়ির জগদ্ধাত্রী পুজোর ঝলক। গিরিশ ভবন (ভবানীপুর): প্রায় ২০০ বছর আগে পুজো শুরু করেন কালাচাঁদ মুখোপাধ্যায়। দেবীকে রাত জাগাতে এ বাড়িতে যাত্রার আয়োজন হয়। পরিবারের প্রদীপ মুখোপাধ্যায় জানালেন, এখানে গিরিশচন্দ্র ঘোষ অভিনয় করেছিলেন। উত্তমকুমারও এই বাড়ির যাত্রায় অভিনয় করেছেন। ১৯৪৯ থেকে পরিবারের সদস্যরাও অভিনয় শুরু করেন।

০১ নভেম্বর, ২০১৪

শহরে জগদ্ধাত্রী

০১ নভেম্বর, ২০১৪

ভেঙে পড়ার মুখে গঙ্গার বহু ছোট ঘাট

আর্যভট্ট খান

৩১ অক্টোবর, ২০১৪

নজর পুরভোটে, পরিষেবার উন্নয়নে টাকা দিচ্ছে রাজ্য

নিজস্ব সংবাদদাতা

১৫৫ কোটি টাকা কলকাতা পুরসভাকে দিচ্ছে সরকার। আগামী বছর কলকাতা পুরসভার ভোট। সে দিকে চোখ রেখেই শহরের উন্নয়নের কাজে ‘খামতি’ মেটাতে চায় সরকার। তাই নিজেদের ভাঁড়ারের অবস্থা ভাল না হওয়া সত্ত্বেও পুরসভার জন্য ওই টাকা মঞ্জুর করেছে রাজ্য সরকার। পুরকর্তারা অবশ্য বলছেন, ওই টাকার জন্য অনেক আগে থেকেই সরকারের কাছে আবেদন জানানো হয়েছিল। এত দিনে সাড়া মিলল।

৩১ অক্টোবর, ২০১৪

যুব আবাসের সংস্কারে উদ্যোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা

৩১ অক্টোবর, ২০১৪

ক্রেডিট কার্ড জাল করে চুরি, ধৃত চক্র

নিজস্ব সংবাদদাতা

দল বেঁধে ব্যাঙ্ক-জালিয়াতির ছক কষেছিল ওরা। বছরখানেক ধরে চলছিল বেশ ভালই। বিভিন্ন ভুয়ো নামে নথিপত্র তৈরি করে ব্যাঙ্কে ক্রেডিট কার্ডের আবেদন করা হত। ব্যাঙ্ককে বোকা বানিয়ে ক্রেডিট কার্ডগুলি ভুয়ো ঠিকানায় হাতিয়েও নেওয়া হত। তার পরে ওই কার্ডের মাধ্যমেই লক্ষ লক্ষ টাকা উধাও হয়ে যেত ব্যাঙ্ক থেকে।

৩১ অক্টোবর, ২০১৪

অশোকস্তম্ভ ভাঙার দায়ে

নিজস্ব সংবাদদাতা

৩১ অক্টোবর, ২০১৪

মমতার ইচ্ছায় ছটেও এ বার পুরস্কার

নিজস্ব সংবাদদাতা

৩০ অক্টোবর, ২০১৪

রাস্তার দায় একা পুরসভার নয়, খোঁচা দিলেন শোভন

নিজস্ব সংবাদদাতা

রাস্তার হালের কথা বলতে গিয়ে নিজের দলের সরকারেরই একাধিক সংস্থার দিকে আঙুল তুললেন কলকাতার মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়। বুধবার ৫৮ নম্বর ওয়ার্ডের হাটগাছিয়ায় একটি মডেল বস্তির শিলান্যাস করেন মেয়র।

৩০ অক্টোবর, ২০১৪

পুলিশ নিগ্রহ: কেউ সাজা পায় কেউ পায় না

নিজস্ব সংবাদদাতা

একই আইন এবং একই অভিযোগ। অথচ, দুই ক্ষেত্রে আইনের পৃথক ফল। মঙ্গলবার সকালে সার্ভে পার্কে এক তৃণমূল কাউন্সিলরের নেতৃত্বে আক্রান্ত হয়েছিলেন কর্তব্যরত ট্রাফিক সার্জেন্ট। সার্ভে পার্কের ঘটনায় রাতে পুলিশে অভিযোগ দায়ের হলেও বুধবার রাত পর্যন্ত অভিযুক্ত ওই কাউন্সিলরকে গ্রেফতার করেনি পুলিশ।

৩০ অক্টোবর, ২০১৪

প্রতারণা-কাণ্ডে ধৃতের বাড়িতে নথি জালের যন্ত্র

আর্যভট্ট খান

সাহেবের বাড়ি কোনটা? বললেই এক ডাকে চিনিয়ে দিতেন বারাসতের বরিশাল কলোনির যে কেউ। বছর পঁচিশের সাহেবকে ওই বয়সের আর পাঁচটা ছেলের মতোই চিনত গোটা পাড়া। কিন্তু পুলিশের হাতে ধরা পড়ার পরে তারই বাড়িতে মিলল জাল ড্রাইভিং লাইসেন্স, প্যান কার্ড তৈরির যন্ত্রপাতি।

৩০ অক্টোবর, ২০১৪

রাজপথে ফের ধস, এ বার বসে গেল আমহার্স্ট স্ট্রিট

নিজস্ব সংবাদদাতা

২৯ অক্টোবর, ২০১৪

বারবার গর্ত, তবু হেলদোল নেই পুরসভার

নিজস্ব সংবাদদাতা

কেউ বলছেন, নিকাশি পাইপলাইন নষ্ট হয়েছে। কেউ বলছেন, কোনও কারণে সরে গিয়েছে ভূগর্ভের মাটির স্তর। কারও মনে হয়েছে, অবৈধ নির্মাণের জের। আবার ঠিকমতো পিচের আস্তরণ না দেওয়াকে দায়ী করেছেন অনেকে। ইঁদুরের ঘাড়ে দায় চাপানোর লোকও রয়েছে বিস্তর। মাত্র এক মাসের মধ্যে মহানগরীতে সাত জায়গায় প্রধান সড়কে ধস নামার পিছনে এমন বিবিধ কারণ রয়েছে বলে মনে করছেন সিভিল ইঞ্জিনিয়ার, স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ারেরা।

২৯ অক্টোবর, ২০১৪

আক্রান্ত পুলিশ, অভিযুক্ত শাসক দলের কাউন্সিলর

নিজস্ব সংবাদদাতা

২৯ অক্টোবর, ২০১৪

‘হেনস্থা’, কোর্টে বৃদ্ধ দম্পতি

নিজস্ব সংবাদদাতা

বাবা-মায়ের অভিযোগ, দুই ছেলের অত্যাচারে তাঁরা এক বছর ধরে বাড়ি ছাড়া। এ-ও অভিযোগ, কলকাতা পুলিশের বড়কর্তা থেকে চিৎপুর থানা, সর্বত্র একাধিক বার অভিযোগ জানানো হলেও, পুলিশ ব্যবস্থা নেয়নি। পুলিশি নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ তুলে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি নাদিরা পাথেরিয়ার আদালতে মামলা দায়ের করেন মা রাণুবালা ঘোষ।

২৯ অক্টোবর, ২০১৪

ট্রামলাইনে মরণ ফাঁদ

ডালহৌসির বকুলতলা মোড়ে ট্রামলাইনের জোড়ার মুখ ভেঙে প্রায় আলাদা হয়ে গিয়েছে লোহার অংশ। তৈরি হয়েছে কয়েক ফুটের ব্যবধান। বড় গাড়ির ক্ষেত্রে তেমন সমস্যা না হলেও একটু অসাবধান হলেই দু’চাকা, তিন চাকার যান অথবা পথ চলতি মানুষের দুর্ঘটনা ঘটছে। নিত্যযাত্রীদের অভিযোগ, পরিবহণ ভবন থেকে কয়েক মিটারের দূরে এমন দশা হলেও কর্তৃপক্ষের টনক নড়েনি। কয়েক মাস ধরেই এমন অবস্থা।

পড়ুন