৮ অগ্রহায়ণ ১৪২১ সোমবার ২৪ নভেম্বর ২০১৪ | কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ weather forecast সর্বোচ্চ : ৩০.৫°C     সর্বনিম্ন : ১৬.০°C

অন্যায় দাবি মানা হবে না, ফের জানাল প্রেসিডেন্সি

নিজস্ব সংবাদদাতা

পরীক্ষা দেওয়ার ক্ষেত্রে হাজিরা-বিধি মানতেই হবে বলে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দিয়েছেন। তা সত্ত্বেও পরীক্ষায় বসতে দেওয়ার দাবিতে সেখানকার এক দল পড়ুয়া অনশন চালিয়ে যাচ্ছেন। তাঁদের দাবি, ক্লাসে হাজিরা যত কমই থাক, পরীক্ষায় বসতে দিতেই হবে। উপাচার্য অনুরাধা লোহিয়া অবশ্য রবিবারেও পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন, এটা পড়ুয়াদের অন্যায় দাবি। তাই কোনও ভাবেই এই দাবি মানা সম্ভব নয়।

২৪ নভেম্বর, ২০১৪

ভোরের হাসি মুছল বেলার শোকসংবাদে

নিজস্ব সংবাদদাতা

২৩ নভেম্বর, ২০১৪

আবাসিকদের পরিচয়পত্র নেই কলকাতার অধিকাংশ মেসে

আর্যভট্ট খান ও গৌরব বিশ্বাস

তিনতলার ছাদের ছোট্ট ঘরে তিনটে ফোল্ডিং খাট পাতা। দু’টো ফোল্ডিং খাট জুড়ে একটি ডবল বেড করা হয়েছে। আর একটা ফোল্ডিং খাট পাশে পাতা। সেখানেই জায়গা দেওয়ার কথা মেস মালিকের। মেস মালিক আপাদমস্তক দেখে নিয়ে জিজ্ঞেস করলেন, পরিচয়পত্র সঙ্গে আছে তো? আছে জেনে বললেন, “যে দিন টাকা নিয়ে আসবেন সে দিনই পরিচয়পত্রের একটা জেরক্স দেবেন। পরিচয়পত্র ছাড়া আবাসিকদের থাকতে দিয়ে যা কাণ্ড ঘটল, এর পরে আর ঝুঁকি নিতে পারছি না।”

২৩ নভেম্বর, ২০১৪

রাতে স্কুলে ঢুকে ছুরি দেখিয়ে লুঠ

নিজস্ব সংবাদদাতা

২৩ নভেম্বর, ২০১৪

কোর্টে তিরস্কারের তোড়ে ভুল কবুল পুলিশের

নিজস্ব সংবাদদাতা

থানা থেকে আদালত, সর্বত্র পুলিশের লেজে-গোবরে দশা অব্যাহত! তদন্তের নামে আলিপুরের ‘সাজানো ঘটনা’ ফাঁস হয়ে যাওয়ায় আদালতের তোপের মুখে পড়তে হয়েছিল তাদের। এ বার ‘ড্যামেজ কন্ট্রোল’ বা ভাবমূর্তির ক্ষত মেরামতিতে নেমেও পুরনো পাপের জন্য বিচারকের কাছে পুলিশকে ফের ভর্ৎসিত হতে হল। তিরস্কারের তোড়ের মুখে সরকারি আইনজীবী সৌরীন ঘোষাল স্বীকার করতে বাধ্য হন যে, পুলিশের ভুল হয়েছিল।

২২ নভেম্বর, ২০১৪

পরীক্ষা দিতে চেয়ে ঘেরাও উপাচার্যকে

নিজস্ব সংবাদদাতা

ফের উপাচার্য ঘেরাও প্রেসিডেন্সিতে। আন্তর্জাতিক শিক্ষা-মানচিত্রে জায়গা করে নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে যে বিশ্ববিদ্যালয় যাত্রা শুরু করেছে, সেখানে এখন ছাত্রছাত্রীদের একাংশ ক্লাস না করেও পরীক্ষায় বসতে দেওয়ার দাবি জানাচ্ছেন। ওই দাবিতেই শুক্রবার বিকেলে তাঁরা উপাচার্যকে ঘেরাও করেন। উপাচার্যের সঙ্গে বেশ কিছু শিক্ষকও আটকে পড়েন। রাত সাড়ে দশটায় ঘেরাও ওঠে।

২২ নভেম্বর, ২০১৪

কড়া নাড়ছে বিজেপি, উদ্বিগ্ন তৃণমূল

অনুপ চট্টোপাধ্যায়

কলকাতার ১৪১টি ওয়ার্ডের মধ্যে বিজেপি এগিয়ে ২৬টিতে। ৩০টি ওয়ার্ডে দ্বিতীয় স্থানে তারা। যার মধ্যে ৪টি ওয়ার্ডে জয়ের ব্যবধান একশোরও কম। ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে একনজরে শহরে এই হল বিজেপি-র অবস্থান। লোকসভা ভোটের পরে হয়েছে চৌরঙ্গি বিধানসভার উপনির্বাচনও। সেখানেও ১১টি ওয়ার্ডের মধ্যে বিজেপি জিতেছে ৩টি ওয়ার্ডে। তবে কি বিজেপি এ বার পুর নির্বাচনের কালো ঘোড়া?

২২ নভেম্বর, ২০১৪

এ বার বাঙুরেও হবে বইমেলা, সাহায্যে গিল্ড

আর্যভট্ট খান

২২ নভেম্বর, ২০১৪

জালিয়াতির ঘটনায় ধৃত খোদ ব্যাঙ্ককর্মী-সহ তিন

নিজস্ব সংবাদদাতা

ব্যাঙ্ককর্মী সেজে জালিয়াতি আকছারই ঘটে। কিন্তু এ বার জালিয়াতির ঘটনায় ধরা পড়লেন খোদ এক ব্যাঙ্ককর্মী। তদন্তকারীদের অভিযোগ, ব্যাঙ্কে বসেই জালিয়াতি করতেন ওই কর্মী। এক বৃদ্ধার টাকা হাতানোর অভিযোগে বৃহস্পতিবার রাতেই তাঁকে গ্রেফতার করে লালবাজারের ব্যাঙ্ক জালিয়াতি দমন শাখা। ধরা হয়েছে তাঁর দুই শাগরেদকেও।

২২ নভেম্বর, ২০১৪

বেদখল ফুটপাথ, চলছে বিপজ্জনক যাতায়াত

জয়তী রাহা

২২ নভেম্বর, ২০১৪

সংস্কার হয়নি সরণি, অভিযোগ বঞ্চনার

কাজল গুপ্ত

২২ নভেম্বর, ২০১৪

উত্তপ্ত পুর-অধিবেশন বুঝিয়ে দিল শিয়রে বিপদ বিজেপি-ই

নিজস্ব সংবাদদাতা

পুর-নির্বাচনে বিজেপি-র ‘বিপদ’ সম্পর্কে ইতিমধ্যেই প্রকাশ্যে সতর্কতার কথা শুনিয়েছেন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়। এ বার পুর-অধিবেশনের আলোচনাতেও ঘুরে ফিরে সামনে চলে আসছে বিজেপি। কখনও কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের ভূমিকা, কখনও বা কেন্দ্রীয় নগরোন্নয়ন দফতরের প্রতিমন্ত্রী, এই রাজ্যের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়র সঙ্গে রাজ্য সরকারের দেখা করতে না-চাওয়া এ সব প্রসঙ্গ নিয়ে বৃহস্পতিবার দফায় দফায় উত্তপ্ত হয়ে উঠল পুর-অধিবেশন।

২১ নভেম্বর, ২০১৪

পুকুরে উদ্ধার বালিকার দেহ

নিজস্ব সংবাদদাতা

রাতে খাওয়ার পরে দুই বন্ধু শৌচাগারে গিয়েছিল। কিন্তু ঘরে ফেরে এক জন। অভিযোগ, সারা রাত কেটে গেলেও অপর জনের খোঁজ করেনি কেউ। বুধবার সকালে নিখোঁজ সেই মেয়েটির মৃতদেহ উদ্ধার হল পাশের পুকুর থেকে। ঘটনাটি ঘটেছে, ঠাকুরপুকুরের একটি বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার হোমে। মৃতার নাম প্রীতি দাস। তার মায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ ওই হোমের চার জনের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে।

২০ নভেম্বর, ২০১৪

অবৈধ নির্মাণ বৈধ হবে টাকা দিয়ে, বিল পাশ বিধানসভায়

নিজস্ব সংবাদদাতা

মাস কয়েক আগেই আদালত বলে দিয়েছিল, বিধি না থাকায় জরিমানা নিয়ে বেআইনি নির্মাণকে বৈধ করতে পারবে না কলকাতা পুরসভা। আদালতের সেই নির্দেশ মাথায় রেখে এ বার জরিমানা দিয়েই বেআইনি নির্মাণকে বৈধ করানোর বিল পাশ হল বিধানসভায়। বিরোধীদের অভিযোগ, পুরভোটের মুখে প্রোমোটারদের ‘খুশ’ করতেই টাকার বিনিময়ে শহরের বেআইনি নির্মাণকে আইনি করার বিল পাশ হল বিধানসভায়। অর্থাৎ, এত কাল যে ভাবে জরিমানা বা ‘রিটেনশন চার্জ’ নিয়ে বেআইনি নির্মাণকে আইনি করার রেওয়াজ ছিল, তাতে সরকার সিলমোহর লাগালো বলে মনে করছেন তাঁরা।

১৯ নভেম্বর, ২০১৪

রেশন দোকান ঘুরলেন মন্ত্রী, আটক বহু নথি

নিয়মিত অভিযান চালিয়েও রেশন মালিকদের একাংশের সচেতনতা ফেরানো যাচ্ছে না। কারচুপির অভিযোগ প্রমাণিত হলে রেশন দোকানের মালিকদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এমনকী, প্রয়োজনে তাঁদের লাইসেন্সও বাতিল করা হতে পারে বলে হুঁশিয়ারি দিলেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। গ্রাহকদের থেকে অভিযোগ পেয়ে রবিবার সকালে খাদ্যমন্ত্রী চারটি রেশন দোকান পরিদর্শনে যান।

পড়ুন