১৪ কার্তিক ১৪২১ শুক্রবার ৩১ অক্টোবর ২০১৪ | কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ weather forecast সর্বোচ্চ : ৩১.৬ °C     সর্বনিম্ন : ২০.৬°C

এই মুহূর্তে

পাড়ুই থানার অফিসার সাসপেন্ড, ওসি-কে সরাতে সুপারিশ কোর্টের

একই ব্যক্তিকে দু’বার গ্রেফতার করার ‘ভুল’-এর মাসুল চড়া মূল্যেই চোকাতে হল পাড়ুই থানার ওসি এবং তদন্তকারী অফিসারকে। তদন্তকারী অফিসারকে সাসপেন্ড করার পাশাপাশি পাড়ুই থানার ওসিকে পদ থেকে সরিয়ে তাঁর বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্ত শুরু করতে নির্দেশ দিল আদালত। ঘটনার গুরুত্ব বিবেচনা করে বিষয়টিকে হাইকোর্টের নজরে আনার কথাও বলেছেন বীরভূমের মুখ্য বিচারবিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেট (সিজেএম) ইন্দ্রনীল চট্টোপাধ্যায়। শুক্রবার এই নির্দেশ দেন তিনি। পাশাপাশি, এ দিনই দুবরাজপুর, ইলামবাজার, শাহবাজপুর ও পাড়ুই থানা এলাকা থেকে আরও ৬ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

নিজস্ব সংবাদদাতা
৩১ অক্টোবর, ২০১৪





নিজের পুলিশে আস্থা নেই, পাশে চান দিল্লিকেই

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পুলিশের উপরে এখনও আস্থা রাখতে পারছেন না মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পশ্চিমবঙ্গে বাম জমানার অবসান ঘটিয়ে কুর্সিতে বসেছেন তিন বছর আগে। তার পরেও নিজের নিরাপত্তায় রাজ্য বা কলকাতা পুলিশের পরিবর্তে মমতার পছন্দ রেলরক্ষী বাহিনী (আরপিএফ)-র অফিসার-জওয়ানেরা, যাঁরা কিনা রেলমন্ত্রী থাকাকালীন যেমন তাঁর সুরক্ষার দায়িত্বে ছিলেন, তেমন মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথের দিন থেকেও তাঁকে ঘিরে রেখেছেন। এবং এখনও নিজের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে সেই রেলরক্ষীদেরই ফের বহাল রাখতে চাইছেন মমতা।

জগন্নাথ চট্টোপাধ্যায়
৩১ অক্টোবর, ২০১৪

মমতাকে বিঁধতে মমতার পথেই বিজেপি

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পুরনো অস্ত্রেই তাঁর সরকারকে ঘায়েল করার চেষ্টায় নামল বিজেপি! সিঙ্গুরে জমি অধিগ্রহণ-বিরোধী আন্দোলনের সময় তৎকালীন বিরোধী নেত্রী মমতা যে কায়দায় বাম সরকারকে বেকায়দায় ফেলার চেষ্টা করতেন, প্রায় সেই চিত্রনাট্য বীরভূমের মাখড়া গ্রামে অনুসরণ করল বিজেপির কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদল! সংঘর্ষের পরে পাড়ুইয়ের মাখড়ায় ১৪৪ ধারা জারি করেছে প্রশাসন। বিরোধী নেতা-নেত্রীদের যাতায়াত আটকাতে সেই ১৪৪ ধারাকেই যে পুলিশ ব্যবহার করছে, বিলক্ষণ জানতেন বিজেপি নেতৃত্ব। বিজেপি-র রাজ্য প্রতিনিধিদল মাখড়ায় গিয়ে বুধবারই পুলিশের বাধা পেয়েছিল।

নিজস্ব প্রতিবেদন
৩১ অক্টোবর, ২০১৪

জঙ্গিদের মদত দিলে ভয়ঙ্কর ফল হবে, সতর্কবার্তা হাসিনার

জঙ্গিদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দিলে তার ফল মারাত্মক হবে বললেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি কারও নাম করেননি ঠিকই, তবে খাগড়াগড় বিস্ফোরণ কাণ্ডে যে ভাবে পশ্চিমবঙ্গের শাসক দলের নাম জড়িয়েছে তাতে এই সতর্কবার্তার পরোক্ষ লক্ষ্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার বলেই অনেকের ধারণা। আজ তাঁর বাড়ি ‘গণভবন’-এ একই সঙ্গে হাসিনা বলেন, ভারত-বিরোধী জঙ্গিদের উৎখাত করেছে তাঁর সরকার। এ বার ভারতের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার পালা। কোন কোন জঙ্গি ভিন্ দেশে গিয়ে ষড়যন্ত্র করেছে, সে ব্যাপারে বাংলাদেশের কাছে বিস্তারিত তথ্য আছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

অনমিত্র চট্টোপাধ্যায়
৩১ অক্টোবর, ২০১৪

একই লোক দু’বার ধৃত, ক্ষুব্ধ বিচারক

যে ব্যক্তিকে মঙ্গলবার রাতে ধরা হল এবং আদালত তাঁকে পুলিশি হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিল, তাকেই ফের গ্রেফতার দেখিয়ে বৃহস্পতিবার আদালতে তুলল বীরভূমের পাড়ুই থানার পুলিশ। শুধু তাই নয়, ফের সেই ধৃতকে পুলিশি হেফাজতে রাখার আবেদনও জানাল! এই ঘটনার জেরে বীরভূমের মুখ্য বিচারবিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেটের (সিজেএম) তীব্র ভর্ত্‌সনার মুখে পড়তে হল পাড়ুই থানার ওসি-কে। কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে মাথা নিচু করে বিচারকের সমালোচনা হজম করলেন ওসি। বৃহস্পতিবার সিউড়ি আদালত চত্বর দিনভর সরগরম রইল এই ঘটনা ঘিরে। আবারও প্রশ্নের মুখে পড়ল বীরভূম জেলা পুলিশের ভূমিকা।

দয়াল সেনগুপ্ত
৩১ অক্টোবর, ২০১৪


মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লিখে ক্ষমা চাইতে পারেন আরাবুল

দলনেত্রীর কাছে ক্ষমা চাইবার কথা ভাবছেন তৃণমূল থেকে সদ্য বহিষ্কৃত নেতা আরাবুল ইসলাম, অন্তত তাঁর ঘনিষ্ঠ মহলের একটি সূত্র জানাচ্ছে এমনটাই। ভাঙড়ে জোড়া খুনের তদন্ত যে পথে এগোচ্ছে, ময়না-তদন্তের রিপোর্টে যা ইঙ্গিত মিলছে, সর্বোপরি দল থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্তে এখন কিছুটা হলেও ‘ব্যাকফুটে’ ভাঙড়ের এক সময়ে তৃণমূলের ‘তাজা নেতা’ আরাবুল। পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে এক রাজ্য নেতার পরামর্শ মতোই ‘দাদা’ মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লিখে এ বারের মতো ক্ষমা চাইতে পারেন বলে আরাবুলের ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে জানা গিয়েছে।

নিজস্ব সংবাদদাতা
৩১ অক্টোবর, ২০১৪

কাছ থেকেই গুলি বাপনকে, ইঙ্গিত ময়না-তদন্তে

ভাঙড়ে ভাইফোঁটার দিন নিহত বাপন মণ্ডলের মৃত্যু কী ভাবে হয়েছিল—তা নিয়ে প্রাথমিক ধারণা বদলাচ্ছে পুলিশ। প্রাথমিক ভাবে তদন্তকারীরা মনে করেছিলেন, দূর থেকে ছোড়া গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে বিঁধেছে বাপনের গায়ে। কিন্তু পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রের খবর, ময়না-তদন্তের প্রাথমিক রিপোর্ট অন্য ইঙ্গিত দিচ্ছে। ওই রিপোর্ট অনুযায়ী, একেবারে গায়ের সঙ্গে (পয়েন্ট-ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ) ওয়ানশটার ঠেকিয়ে গুলি করা হয় বাপনকে। গুলি চালানো হয়েছিল গলার নলি থেকে নীচের দিক তাক করে। দূর থেকে ছোড়া গুলি এসে বিঁধলে যেমন ক্ষত হওয়ার কথা, বাপনের শরীরে তেমন কিছু মেলেনি।

শুভাশিস ঘটক
৩১ অক্টোবর, ২০১৪


ইস্টবেঙ্গল সচিবের কটাক্ষ ইডি-কে, বাগান-কর্তারা চুপ

ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের এক-কর্তা গ্রেফতার হয়েছেন। এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) ক্লাবের তিনটি অ্যাকাউন্টে থাকা ১ কোটি ৯৬ লক্ষ টাকা ‘অ্যাটাচ’ করে দিয়েছে। ফলে ঘোর সঙ্কট। অন্য দিকে চির প্রতিদ্বন্দ্বী মোহনবাগানের অন্যতম শীর্ষ কর্তাকে ডেকে জেরা করলেও তাদের কেউ গ্রেফতার হননি। ইডি তাদের একটি মাত্র অ্যাকাউন্ট ‘অ্যাটাচ’ করলেও তাতে রয়েছে তুলনায় অনেক কম, ৩২ লক্ষ টাকা। বাকি অ্যাকাউন্টে থাকা টাকা ব্যবহার করাই যায়। এই অবস্থায় দেওয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়া ইস্টবেঙ্গল কর্তারা ইডি-কে তোপ দাগলেও মোহনবাগান কর্তারা কিন্তু চুপ থাকারই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

নিজস্ব সংবাদদাতা
৩১ অক্টোবর, ২০১৪







ইমামের অনুষ্ঠানে ব্রাত্য মোদী, আমন্ত্রিত শরিফ

নতুন শাহি ইমাম শাহবান বুখারির ‘দস্তরবন্দি’ (অভিষেক) অনুষ্ঠানে হাজির থাকার নিমন্ত্রণ পেলেন না প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তবে ওই অনুষ্ঠানে হাজির থাকার জন্য শাহবান বুখারির বাবা তথা দিল্লির জামা মসজিদের বর্তমান শাহি ইমাম সৈয়দ আহমেদ বুখারির আমন্ত্রণ পেয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। মোদীকে না-ডাকা হলেও আমন্ত্রণ পেয়েছেন রাজনাথ সিংহ, হর্ষবর্ধনের মতো কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা। আমন্ত্রণ পেয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, সনিয়া গাঁধী, রাহুল গাঁধী, মুলায়ম সিংহ যাদব বা অখিলেশ সিংহ যাদবও। বিশ্বের প্রায় তিন হাজার অতিথি থাকবেন ২২ নভেম্বরের ওই অনুষ্ঠানে।

নিজস্ব সংবাদদাতা
৩১ অক্টোবর, ২০১৪



জীবজগৎ ও পরিবেশ

তক্ষক বিক্রি করতে
গিয়ে ধরা পড়ল দুই ছাত্র

ক্রেতা সেজেই পাচারকারীদের সঙ্গে দরদস্তুর করেছিলেন বনকর্তারা। জলপাইগুড়ির গোশালা মোড়ের একটি পরিচিত ধাবায় খাওয়া দাওয়ার পরে ‘পাকা’ কথা হয়েছিল--‘মাল’ নিয়ে এলে হাতে হাতে মিলবে নগদ টাকা। চার পাচারকারী এরপর আর দেরি করেনি। ধাবার পিছন থেকে বনকর্তাদের সামনে তুলে ধরেছিল বস্তা-বন্দি দু’টি বিশেষ প্রজাতির তক্ষক, ‘গেকো’। বনকর্তারা দেরি করেননি।

1
৩১ অক্টোবর, ২০১৪

দেশ

ফডণবীসের শপথেও
থাকছে না শিবসেনা

মহারাষ্ট্রে বিজেপি-র মন্ত্রিসভায় আপাতত যোগ দেবে না শিবসেনা। শুক্রবার, মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে দেবেন্দ্র ফডণবীস ও তাঁর সহযোগীদের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে হাজিরও থাকবেন না শিবসেনা নেতারা। বিজেপি-র মুখ্যমন্ত্রী মেনে নেওয়ার কথা শিবসেনা ঘোষণা করলেও দফতর বণ্টন নিয়ে জট এখনও কাটেনি। শিবসেনা মুখপাত্র বিনায়ক রাউত আজ দাবি করেছেন, “বিজেপি আমাদের পদে পদে অসম্মান করছে। আমাদের বিধায়করা এটা মানতে রাজি নন।” শিবসেনার কোনও মন্ত্রী যে আপাতত ফডণবীস মন্ত্রিসভায় যোগ দিচ্ছেন না, সে কথা জানান বিজেপি নেতা রাজীবপ্রতাপ রুডিও। তবে এখনও শিবসেনার সঙ্গে আলোচনা চলছে বলে দাবি করেছেন তিনি।

৩১ অক্টোবর, ২০১৪

ব্যবসা

সংস্কারের ভরসায় ফের
নয়া উচ্চতায় সেনসেক্স

তিন দিনে ৬০০ পয়েন্ট বেড়ে ফের নতুন উচ্চতায় পৌঁছল সেনসেক্স। মূলত আর্থিক সংস্কার নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের প্রতি আস্থা অটুট রেখে বৃহস্পতিবার মুম্বই বাজারের এই সূচক ২৪৮ পয়েন্ট বেড়ে যায়। মূলধনের অভাবে ধুঁকতে থাকা নির্মাণ শিল্পে বিদেশি লগ্নি নিয়ে শর্ত শিথিল করার সিদ্ধান্তকে এ দিন স্বাগত জানিয়েছে বাজার। এ ছাড়া সম্প্রতি ডিজেলের দাম বেঁধে দেওয়ার প্রথা থেকে সরে এসেছে কেন্দ্র। দাম বাড়িয়েছে প্রাকৃতিক গ্যাসের। কয়লা ক্ষেত্রের সংস্কারেও বড় পদক্ষেপ করেছে তারা।

1
৩১ অক্টোবর, ২০১৪

হাওড়া ও হুগলি

হাওড়ায় ভাঙনের গ্রাসে
ঘরবাড়ি, জানে না প্রশাসন

গঙ্গার ভাঙনের কবলে পড়ে ক্রমাগত তলিয়ে যাচ্ছে বসতবাড়ি, কল-কারখানা, মন্দির। কলকাতার অনতিদূরে এই ঘটনা ঘটলেও এত দিন এ বিষয়ে কিছুই জানতেন না কলকাতা বন্দর-কর্তৃপক্ষের পদস্থ কর্তা থেকে রাজ্যের সেচমন্ত্রী এমনকী, সংশ্লিষ্ট পুরসভার মেয়রও। অথচ, এই ভাঙনের ঘটনা ঘটেছে কলকাতার উল্টো দিকে হাওড়া পুরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের গঙ্গাতীরবর্তী ঘুসুড়ির শান্তিনগর এলাকায়। নদীর ভাঙনের কবলে পড়ে গত কয়েক বছরে অঞ্চলের অনেক কিছুই তলিয়ে গিয়েছে।

3
৩১ অক্টোবর, ২০১৪

স্বাস্থ্য

শিলিগুড়িতে ডেঙ্গি
আক্রান্ত ৩৮

পাঁচ দিন আগে উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে বলে জানালেও বৃহস্পতিবার শিলিগুড়ি পৌঁছে শহরের ডেঙ্গি পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন রাজ্যের স্বাস্থ্য অধিকর্তা বিশ্বরঞ্জন শতপথী। স্বাস্থ্য দফতর জানিয়েছে, ডেঙ্গির প্রকোপ সব চেয়ে বেশি শিলিগুড়িতে। চলতি অক্টোবর মাসে শিলিগুড়ি পুর এলাকায় ডেঙ্গি আক্রান্তের সংখ্যা ১৯ জন বলে গত শুক্রবার জেলা স্বাস্থ্য দফতর জানিয়েছিল। তখনও নার্সিংহোমগুলি থেকে প্রাপ্ত সমস্ত রিপোর্ট তাদের হাতেই ছিল না। উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী গৌতম দেবও জানিয়েছিলেন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে।

1-1
৩১ অক্টোবর, ২০১৪

কলকাতা

রোল-নগরীতে কলরোল
তেলহীন ‘শওয়ারমা’র

এমন মাংস চাখার অভিজ্ঞতা সোনার কলমে লিখে গিয়েছেন মুজতবা আলি। কায়রোয় পেটে ছ্যাঁদাওলা চাক্তি-চাক্তি মাংস ‘খাশা’ লেগেছিল তাঁর। তবে মশলায় ‘কঞ্জুসি’ করেছিল বলে শিক কবাবের সুখটা ঠিক পাননি। এ কালের কলকাতায় মাংসে তেল-ঝাল-মশলার কমতিটাই যেন ‘ইউ এস পি’। তেলে ভাজা কড়কড়ে পরোটায় মুড়ে ঝাল-ঝাল মাংসের কবাব কী ভাবে রাস্তায় হাঁটতে হাঁটতে খেতে হয়, তা একদা দেশকে শিখিয়েছে এই কলকাতাই। এ শহরেই এ বার লেবানন বা আরবমুলুকজাত তেলহীন নব্য রোল বা র্যাপ কলরোল তুলেছে।

4
৩১ অক্টোবর, ২০১৪

উত্তরবঙ্গ

খুনে অভিযুক্তকে গণপিটুনি,
বীরপাড়ায় আক্রান্ত পুলিশ

খুনের ঘটনায় অভিযুক্ত এক যুবককে গনপিটুনির হাত থেকে উদ্ধার করতে গিয়ে বাসিন্দাদের হামলার মুখে পড়ল পুলিশ। দু’টি পুলিশের গাড়ির কাঁচ ভাঙচুর হয়েছে, পুলিশকে লক্ষ্য করে ঢিল ছোঁড়া হয়েছে বলেও অভিযোগ। ঘটনায় ৫ পুলিশ কর্মী জখম হয়েছেন বলে দাবি করা হয়েছে। তাঁদের অবশ্য প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটেছে ডুয়ার্সের মাদারিহাট থানা এলাকার শিশুবাড়ি গ্রামে।

1-1
৩১ অক্টোবর, ২০১৪

রাজ্য

সিঙ্গুর-অন্ডাল এক নয়,
সুর বদল মন্ত্রীর

বিরোধী শিবিরে থাকলে যা ভাল, শাসক হলে তা-ই খারাপ! সিঙ্গুরে যা ঠিক, অণ্ডালে তা-ই অন্যায়! জমি প্রশ্নে তৃণমূলের এমন দ্বৈত ভূমিকাই ফের স্পষ্ট হয়ে গেল শ্রমমন্ত্রী মলয় ঘটকের ভোলবদলে! অন্ডাল বিমাননগরীর অনিচ্ছুক জমিদাতাদের আন্দোলনকে নিয়ে প্রশ্নের জবাবে বুধবার মলয়বাবু বলেছিলেন, জমি এক বার অধিগ্রহণ করা হলে আর ফেরত দেওয়ার আইনি সংস্থান নেই। স্বভাবতই প্রশ্ন উঠেছিল, তা হলে সিঙ্গুরের অধিগৃহীত জমির জন্যও তো একই যুক্তি প্রযোজ্য! সেখানে তবে তৃণমূলের আন্দোলন হল কী ভাবে? প্রবল অস্বস্তির মধ্যে পড়ে এবং তৃণমূল নেতৃত্বের নির্দেশে বৃহস্পতিবার মলয়বাবু দাবি করেছেন, “বিভিন্ন সংবাদপত্রে আমার বক্তব্যের অপব্যাখ্যা করা হয়েছে।”

৩১ অক্টোবর, ২০১৪

শনিবার, ১ নভেম্বর, সন্ধ্যা ৭টা এফসি গোয়া () vs. () দিল্লি ডায়নামোস এফসি



বিশেষ বিভাগ










টমাস পিকেটি তাঁর ক্যাপিটাল ইন দ্য টোয়েন্টি-ফার্স্ট সেঞ্চুরি বইটির মাধ্যমে মূল ধারার অর্থনীতির সদর দরজায় বাঁ দিক থেকে একটি কামান দেগেছেন। আয় এবং সম্পদের বৈষম্যের দীর্ঘমেয়াদি যে তথ্যভাণ্ডার পিকেটি ও তাঁর সহকর্মীরা গড়ে তুলেছেন এবং গবেষকদের ব্যবহারের জন্য অনায়াসলভ্য করে দিয়েছেন, তা যথার্থই এক মহার্ঘ সম্পদ। লন্ডন স্কুল অব ইকনমিকস্-এর অর্থনীতির শিক্ষক মৈত্রীশ ঘটকের বিশ্লেষণে বহুচর্চিত এই বই। সাপ্তাহিক বেস্টসেলার তালিকার সঙ্গে মহর্ষি দেবেন্দ্রনাথের পত্রাবলী-সহ বঙ্কিমচন্দ্র-বিষয়ক কয়েকটি প্রকাশিত বইয়ের খবরাখবর। সম্প্রতি মায়া আর্ট স্পেসে অনুষ্ঠিত ‘বাংলা কার্টুন’ শীর্ষক প্রদর্শনীর এক ঝলক।


সম্পাদকীয়
দেশ
পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর

স্বখাত সলিল

কুশলী খেলোয়াড় কঠিন বল সহজে খেলিয়া দেন। সহজ বল কঠিন করিয়া তোলা অপরিণতির লক্ষণ। কালো টাকা উদ্ধার লইয়া নরেন্দ্র মোদী ও তাঁহার সতীর্থরা অহেতুক নিজেদের সমস্যা বাড়াইয়া তুলিয়াছেন। একাধিক সমস্যা। প্রথমত, লোকসভা নির্বাচনের প্রচারপর্বে তাঁহারা বিদেশি ব্যাঙ্কে ‘লুকাইয়া রাখা’ অবৈধ অর্থ অতি দ্রুত উদ্ধার করিয়া দেশে ফিরাইয়া দেশবাসীকে তাহার ভাগ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি বিতরণ করিয়াছিলেন।


শিক্ষায় আরও গেরুয়া ছাপ চায় সঙ্ঘ

শিক্ষায় সঙ্ঘের আরও ছাপ ফেলতে নরেন্দ্র মোদী সরকারের মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী স্মৃতি ইরানির সঙ্গে প্রায় সাত ঘণ্টা বৈঠক করলেন আরএসএস নেতারা। আজ দিল্লিতে মধ্যপ্রদেশ ভবনে সঙ্ঘের নেতারা তাঁদের দাবি নিয়ে বৈঠকে বসেন স্মৃতির সঙ্গে। আরএসএস নেতা সুরেশ সোনি, দত্তাত্রেয় হোসাবোলে ছাড়াও সেখানে শিক্ষাক্ষেত্রের সঙ্গে যুক্ত সঙ্ঘের বিভিন্ন শাখার নেতারাও উপস্থিত ছিলেন। সঙ্ঘের এক সূত্রের মতে, কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে অনেকগুলি বিষয় জানানো হয়েছে। সঙ্ঘ নেতাদের মতে, শিক্ষাক্ষেত্রে আমূল সংস্কার প্রয়োজন। কেন্দ্রীয় বোর্ডগুলির পাঠ্যসূচি আন্তর্জাতিক মানের হলেও পড়ুয়াদের ভারতীয় মূল্যবোধের বিষয়েও ওয়াকিবহাল হওয়া উচিত।

প্রস্তুতি বৈঠকে রবিবার মেদিনীপুরে সুব্রত বক্সী

আগামী ২৪ নভেম্বর মেদিনীপুরে দলের সাংগঠনিক সভা করতে আসছেন মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দুই মেদিনীপুর জেলার দলীয় নেতৃত্বকে নিয়েই হবে এই সভা। নেত্রীর সভার প্রস্তুতি হিসেবে গত মঙ্গলবার তমলুকে দুই জেলার নেতাদের নিয়ে বৈঠক করে গিয়েছেন তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সী। তৃণমূল সূত্রে খবর, এ বার মেদিনীপুর শহরে প্রস্তুতি বৈঠক করতে আসছেন সুব্রতবাবু। আগামী রবিবার দুপুরে বিদ্যাসাগর হলে এই প্রস্তুতি বৈঠক হবে বলে দলীয় সূত্রে খবর।


আজকের দিন

31date1

১৯৭৫

সুরকার শচীন দেব বর্মনের মৃত্যু। সুরের জগতে তিনি ‘শচীনকর্তা’ নামে পরিচিত। বাংলা ও হিন্দির অন্যতম সেরা ও সফল সুরকার ছিলেন তিনি। ১৯৭০ ও ’৭৪ সালে জাতীয় পুরস্কার, ১৯৬৯-এ পদ্মশ্রী খেতাব পেয়েছেন।