সাহসটা একটু বেশিই দেখিয়েছিলেন। স্টান্ট দেখাতে কুমিরের মুখে মাথা ঢুকিয়ে দিয়েছিলেন চিড়িয়াখানার কর্মী। কিন্তু সেই স্টান্ট যে এতটা ভয়ানক হবে ভাবতে পারেনি কেউই। কয়েক সেকন্ডের জন্য কুমির ওই কর্মীর মাথা কামড়ে ধরে। এই কাণ্ড দেখে ততক্ষণে চিড়িয়াখানায় হাজির মানুষজনের ভিরমি খাওয়ার জোগাড়। এই রকম ভয়ানক একটি ভিডিও এই মুহূর্তে নেট দুনিয়ায় ভাইরাল।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, তাইল্যান্ডের এক চিড়িয়াখানায় পশুদের দেখভাল করার এক কর্মী দর্শকদের মনোরঞ্জনের জন্য কুমিরের সঙ্গে খেলা দেখাতে শুরু করেন। প্রথমে চিড়িয়াখানার দুই কর্মী কুমিরের খাঁচা মধ্যে ঢুকে পড়েন। শুরু হয় বিভিন্ন ধরনের কেরামতি। এক কর্মী গিয়ে চেপে ধরেন কুমিরের লেজখানা। অন্যজন কুমিরের হাঁ করা মুখের সামনে দু’টি লাঠি নিয়ে বিভিন্নরকম অঙ্গভঙ্গি করতে থাকেন। 

আরও পড়ুন: ঝাঁপ দিয়ে নামার পর মুহূর্তেই পুড়ে ছাই গাড়ি! দেখুন ভিডিও

কখনও সেই লাঠি নিয়ে কুমিরের মাথায় ছোয়ান তো আবার কখনও কুমিরের চোয়ালে খোঁচা দেন। এই ধরনের কসরত করতে করতে আচমকাই ওই কর্মী তাঁর মাথা ঢুকিয়ে দেন কুমিরের খোলা মুখে। মুহূর্তে কুমিরটি তার চোয়াল বন্ধ করে দেয়। যন্ত্রণায় ওই কর্মী ছটফট করা শুরু করলে কুমিরটি তাঁর মাথা ছেড়ে দিয়ে জলে নেমে যায়। এমনই এক ভয়ানক দৃশ্যটি চিড়িয়াখানায় আসা এক দর্শক ক্যামেরাবন্দি করেন। ভিডিওটি আপলোড করা হয় ইউটিউবে। আর তারপর থেকেই ভাইরাল ভিডিওটি।ট

দেখুন সেই ভিডিও