Anandabazar Patrika Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading Newspaper

যত্ন সত্ত্বেও রোজের এই সব ভুলেই চুল তেলতেলে ও নিষ্প্রাণ হয়ে পড়ে

প্রতি দিন কিছু ভুলের জন্যই চুল তেলা ও নিষ্প্রাণ হয়ে উঠছে। ছবি: শাটারস্টক।

কর্মব্যস্ত যুগে নারী-পুরুষ নির্বেশেষে সকলেরই জীবন অনেকটা বাঁধা গথে ফেলা। আলাদা করে ত্বক বা চুলের যত্ন খুব একটা নেওয়া হয় ওঠে না। সারা বছর চুলের জন্য যেটুকু নিয়মমাফিক প্রয়োজন, সেটুকু মনে চললেও অনেক সময়ই দেখা যায় চুল নিষ্প্রাণ হয়ে পড়ে। তেলের ব্যবহার না করলে চুল তৈলাক্ত হয়ে পড়ে।

শ্যাম্পু করছেন নিয়ম করে। কন্ডিশনারও লাগাচ্ছেন। তাও চুল তার জেল্লা ধরে রাখতে পারছে না। রূপবিশেষজ্ঞ ঝরনা দত্তের মতে, ‘‘চুলের বিষয়ে আমরা অনেক সময় অনেক যত্ন মেনে চলি। ‌অনেকে নিয়ম করে স্পাও করান। তবু চুল তার জেল্লা ফিরে পায় না। এর জন্য দায়ী আমাদেরই কিছু ভুল। সে সব সামলে উঠতে পারলেই চুলের সমস্যা অনেকটাই কমবে।’’

প্রতি দিন কোন কোন বদভ্যাস বা ভুলের জন্যই চুল নষ্ট হচ্ছে, তা জানা থাকলে এই সমস্যা থেকে দ্রুত মুক্তি মেলে। দেখে নিন সে সব।

আরও পড়ুন: নাক বন্ধ হয়ে শ্বাসের সমস্যা? ড্রপের নেশা নয়, এ সব উপায়েই হবে সমাধান

স্টাইলিং প্রডাক্ট: চুলের স্টাইলের জন্য করার নানা রকম উপাদান ব্যবহার করেন অনেকেই। ড্রায়ার থেকে শুরু করে কার্লিং মেশিন, স্ট্রেটনার আবার স্পাইকের জন্য বিশেষ জেল সবই এর আওতায় পড়ে। এই সব উপাদানে অনেক রাসায়নিক থাকে। এ ছাড়া সরাসরি চুলে গরম হাওয়া প্রদান করা ও বিদ্যুতের সাহায্যে চলা যন্ত্রপাতিরা চুলের জন্য খুব একটা ভাল নয়। এই সব স্টাইলিং উপাদান চুলের গোড়াকে গ্রিজি করে দেয়।

নোংরা চিরুনি ও ব্রাশ: চুল নিয়মিত পরিষ্কার করেন, কিন্তু চিরুনি বা ব্রাশ? ক্রমাগত চুলের সঙ্গে ও মাথার ত্বকের সঙ্গে ঘর্ষণের ফলে চিরুনিও নোংরা ও তৈলাক্ত হয়ে যায়। সেই চিরুনি ও ব্রাশের প্রভাবে মাথাও নোংরা ও তেলা হতে শুরু করে।

আরও পড়ুন: আর্থ্রাইটিস আটকাতে বদলান কিছু অভ্যাস, কী করে কাটবে বিপদের ভয়?

বেশি শ্যাম্পুর ব্যবহারও চুলের গোড়া তৈলাক্ত করে দেয়।

গরম জল: চুলের উপর গরম জলের প্রভাব মারাত্মক। চুল ধোয়া থেকে শুরু করে চুলের পরিচর্যার নানা দিক— গরম জল একেবারেই উপকারী নয়। যে কোনও ঋতুতে, যে কোনও প্রয়োজনেই চুল ধুতে ব্যবহার করুন ঠান্ডা জল। প্রতি দিন গরম জলে স্নান করলে বা মাথা ধুলে মাথার ত্বক তৈলাক্ত হয়ে যায়।

হাত দেওয়া: চুল ছুঁয়ে দেখা বা চুলকে পরিপাটি রাখার অছিলায় অনেকেরই চুলে বার বার হত দওয়ার স্বভাব রয়েছে। এতে হাতের তালুতে থাকা ঘাম চুলে লাগে। ফলে স্ক্যাল্প তৈলাক্ত হয়ে যায়।

শ্যাম্পু ও কন্ডিশনারের প্রয়োগ: অনেকেরই ধারণা, প্রতি দিন শ্যাম্পু করলে তবেই চুল ভাল থাকে। এ ধারণা ঠিক নয়। বরং বেশি শ্যাম্পুর ব্যবহারও চুলের গোড়া তৈলাক্ত করে দেয়। আবার মাত্র কয়েক ফোঁটা কন্ডিশনার যেখানে চুলের জন্য যথেষ্ট, সেখানে আমরা  প্রায়ই বেশি পরিমাণে কন্ডিশনার লাগিয়ে ফেলি স্কাল্পে। এতেও চুল তেলা হয়ে যায়।


Anandabazar Patrika Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading Newspaper