Anandabazar Patrika Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading Newspaper

... দেহে সাড় নেই, তবু দেড় বছরের ছেলের হাত ছাড়েননি গীতা

প্রতীকী চিত্র

প্রকৃতির রোষ থেকে কাউকে বাঁচনো কঠিন। কিন্তু মা সন্তানকে তাঁর জীবন দিয়েও সেই রোষ থেকে বাঁচানোর চেষ্টা করেন। কেরলে প্রাকৃতিক দুর্যোগের মাঝেই সেই ছবিটাই উঠে এল। রবিবার মালাপ্পুরমে উদ্ধার কাজ চালানোর সময় দু’টি দেহ উদ্ধার হয়। সেখানে দেখা যায় সন্তানের হাত শক্ত করে ধরে রেখেছেন মা।

কেরলে যুদ্ধকালীন তত্পরতায় চলছে উদ্ধারকাজ। মালাপ্পুরমে ২১ বছরের গীতা ও তাঁর দেড় বছরের সন্তান ধ্রুবনের দেহ উদ্ধার হয়। বাড়ির ধ্বংসাবশেষ সরাতে গিয়ে দেখা যায়, ছেলের হাত শক্ত করে ধরে রেখেছেন মা। বোঝা যায়, দুর্যোগে দু’জনের মৃত্যু হবে বুঝতে পেরেও শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত ছেলেকে আগলে রাখার, রক্ষা করার চেষ্টা চালিয়ে গিয়েছেন গীতা। কিছুতেই ছাড়েননি দেড় বছরের ছেলের হাত। মৃত্যুর পরেও সেই হাত ধরা ছিল।

উদ্ধারকারি দলের সদস্যরা দেখেন, দু’টি দেহকে আলাদা না করা পর্যন্ত কিছুটেই তাদের বের করে আনা সম্ভব হচ্ছে না। তাই প্রথমে দু’জনের হাত ছাড়ানো হয়। তারপর দু’টি দেহ উদ্ধার বের করে আনেন উদ্ধারকারীরা।

আরও পড়ুন : হিন্দি নিয়ে সমস্যা, নিউজিল্যান্ডের কিশোরীকে ট্রেন থেকে নামিয়ে দিলেন কন্ডাকটর

আরও পড়ুন : নিজেকে খেয়ে ফেলছে সাপ, ভাইরাল ভিডিয়ো

এই পরিবারের চার সদস্যের মধ্যে একমাত্র গীতার স্বামী সরথই বেঁচে যান। ৯ অগস্ট প্রকাশিত একটি সিসিটিভি ফুটেজে সেই ঘটনা ধরাও পড়ে। সেখানে দেখা যায় ছাতা মাথায় রাস্তা দিয়ে হেঁটে আসছেন সরথ। তাঁর মা সরোজিনী বাড়ি থেকে বেরিয়ে এসে তাঁকে কিছু একটা বলার জন্য দাঁড় করাচ্ছেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই পাস থেকে ধস নামে। সরথ কোনও রকমে দৌড়ে বেঁচে যান। ধস থেকে বাঁচতে পারেননি তাঁর মা, স্ত্রী ও সন্তান।


Anandabazar Patrika Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading Newspaper