Real Madrid

চার ম্যাচ বাকি থাকতে লা লিগা জয়, তবু ট্রফি নিতে চায়নি রিয়াল মাদ্রিদ, নেপথ্যে কী কারণ?

চার ম্যাচ বাকি থাকতে লা লিগা জিতেছে রিয়াল মাদ্রিদ। স্পেনের ঘরোয়া লিগ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পরেও তখনই ট্রফি নিতে চায়নি তারা। কেন এই সিদ্ধান্ত?

Advertisement

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক

কলকাতা শেষ আপডেট: ১৩ মে ২০২৪ ১৬:৪৯
Share:

ট্রফি নিয়ে উল্লাস রিয়াল মাদ্রিদের ফুটবলারদের। ছবি: রয়টার্স।

লিগ জেতা হয়ে গিয়েছিল মাঠে নামার আগেই। গ্রানাডার বিরুদ্ধে ৪-০ জয় সেই আনন্দ আরও বাড়িয়ে দিয়েছিল। কিন্তু গ্রানাডাকে হারিয়ে ট্রফি নিতে চায়নি রিয়াল মাদ্রিদ। পরের দিন ট্রফি নিয়ে উল্লাস করে তারা। নেপথ্যে কী কারণ ছিল?

Advertisement

গ্রানাডার ঘরের মাঠে খেলা ছিল রিয়ালের। রয়্যাল স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশন আগে থেকেই ঠিক করে রেখেছিল যে ম্যাচ শেষে রিয়ালের ফুটবলারদের হাতে লা লিগা ট্রফি তুলে দেওয়া হবে। কিন্তু রিয়াল ফুটবলারেরা সেটা চাননি। আসলে রিয়াল যেমন জিতেছে, তেমনই গ্রানাডা হেরে অবনমনের আওতায় রয়েছে। সেই ক্লাবের সমর্থকদের সম্মান জানাতে গ্রানাডার মাঠে ট্রফি নিয়ে উল্লাস করতে চায়নি মাদ্রিদ।

পরের দিন রিয়ালের ট্রেনিং গ্রাউন্ডে গিয়ে ট্রফি দিয়ে আসেন স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের কর্তারা। রিয়াল ফুটবলার, কোচ কার্লো আনচেলোত্তি ছাড়াও কর্তারা উপস্থিত ছিলেন সেখানে। পরে হুডখোলা বাসে চেপে মাদ্রিদের রাস্তায় ট্রফি নিয়ে উল্লাস করেন টনি ক্রুজ়, ভিনিসিয়াস জুনিয়রেরা। উল্লাসে মাতেন রিয়াল সমর্থকেরাও।

Advertisement

রিয়ালের ম্যাচের আগে জিরোনার কাছে বার্সেলোনা হারায় তখনই ট্রফি নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল ক্রুজ়দের। কারণ, দু’দলের পয়েন্টের পার্থক্য হয়ে গিয়েছিল ১৩। তখনও রিয়াল ট্রফি নিতে চায়নি। কারণ, তার পরেই বায়ার্ন মিউনিখের সঙ্গে তাদের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালের দ্বিতীয় পর্বের খেলা ছিল। সেই খেলায় মন দিতে চাইছিল তারা।

চলতি মরসুমে ৩৫ ম্যাচে ৯০ পয়েন্ট রিয়ালের। তবে তারা হয়তো নিজেদের রেকর্ড ভাঙতে পারবে না। ২০১১-১২ মরসুমে ১০০ পয়েন্টে শেষ করেছিল রিয়াল। বাকি তিন ম্যাচ জিতলে ৯৯ পয়েন্ট হবে তাদের। তবে আপাতত চ্যাম্পিয়ন্স লিগ লক্ষ্য ক্রুজ়দের। ২ জুন ওয়েম্বলিতে বুরুসিয়া ডর্টমুন্ডের বিরুদ্ধে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল খেলতে নামবে রিয়াল।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

আনন্দবাজার অনলাইন এখন

হোয়াট্‌সঅ্যাপেও

ফলো করুন
অন্য মাধ্যমগুলি:
Advertisement
আরও পড়ুন