IPL 2023

১০ বছর পর আইপিএলে আবার বাঙালি আম্পায়ার, নজির অভিজিতের

ঋদ্ধিমান সাহা গুজরাত টাইটান্সের হয়ে খেলেছেন। দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে খেলতে দেখা যেতে পারে অভিষেক পোড়েলকে। এই দু’জন ছাড়া আরও এক বাঙালি রয়েছেন আইপিএলে।

Advertisement

নিজস্ব প্রতিবেদন

শেষ আপডেট: ০২ এপ্রিল ২০২৩ ১৫:০৯
Share:

আইপিএলে পরিচালনার দায়িত্বে অভিজিৎ ভট্টাচার্য। ছবি: ফেসবুক

১০ বছর পর আইপিএলে আবার বাঙালি আম্পায়ার। প্রেমদীপ চট্টোপাধ্যায়ের পর আইপিএলে আবার এক বাঙালি আম্পায়ারকে দেখা গেল। রবিবার প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি সানরাইজার্স হায়দরাবাদ এবং রাজস্থান রয়্যালস। সেই ম্যাচে চতুর্থ আম্পায়ার অভিজিৎ। এ বারের আইপিএলে তিনিই একমাত্র বাঙালি আম্পায়ার।

Advertisement

আইপিএলের তৃতীয় দিনেই নামতে চলেছেন অভিজিৎ। চতুর্থ আম্পায়ার হিসাবে ম্যাচ পরিচালনা করার দায়িত্ব থাকবে তাঁর কাঁধে। ভারতে প্রথম যে চার দিনের গোলাপি বলের ম্যাচ হয়েছিল সেটির পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন অভিজিৎ। ২০১৬ সালে সিএবি সুপার লিগের ফাইনাল হয়েছিল ইডেনে। দিন-রাতের সেই ম্যাচে আম্পায়ার ছিলেন অভিজিৎ। এ ছাড়াও এ বার বিজয় হজারে, সৈয়দ মুস্তাক আলিতে আম্পায়ার ছিলেন তিনি।

বিসিসিআইয়ের ২০ জন আম্পায়ারের উপর এ বারের আইপিএলে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়াও চার জন বিদেশি এবং আন্তর্জাতিক প্যানেলে থাকা পাঁচ জন ভারতীয় আম্পায়ার রয়েছেন। ২৯ জন আম্পায়ারের মধ্যে বাংলা থেকে অভিজিৎ ছাড়া কেউ নেই।

Advertisement

চন্দননগরের অভিজিৎ আইপিএলে ম্যাচ পরিচালনা করতে যাওয়ার আগে জানিয়েছিলেন তাঁর আনন্দের কথা। ক্লাব এবং জাতীয় স্তরে দীর্ঘ দিন আম্পায়ার হিসাবে কাজ করা অভিজিৎ বলেছিলেন, “খুব ভাল লাগছে। অনেক দিন ধরেই ম্যাচ পরিচালনা করছি। এত দিনে ডাক পেলাম।” ক্লাব স্তরে ক্রিকেটও খেলেছেন অভিজিৎ। কোচিং লাইসেন্সও রয়েছে তাঁর। চতুর্থ আম্পায়ার হিসাবে আইপিএলে থাকা অভিজিৎ বলেন, “আগে চতুর্থ আম্পায়ারের খুব বেশি কাজ থাকত না। এখন অনেক দায়িত্ব থাকে। মাঠের আম্পায়ারদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে হয়। তৃতীয় আম্পায়ারের সঙ্গেও যোগাযোগ রাখতে হয়।”

অভিজিৎ মনে করেন তাঁর এই সাফল্য বাংলার অন্য আম্পায়ারদের উদ্বুদ্ধ করবে। তিনি বলেন, “বাংলার নাম সর্বভারতীয় স্তরে নিয়ে যেতে পারছি। এটা বেশ তৃপ্তির। সকলকে ধন্যবাদ। চেষ্টা করব নিজের সেরাটা দিতে।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

আনন্দবাজার অনলাইন এখন

হোয়াট্‌সঅ্যাপেও

ফলো করুন
অন্য মাধ্যমগুলি:
আরও পড়ুন
Advertisement