কেয়ার্ন এনার্জির কাছ থেকে বকেয়া কর উদ্ধারের প্রক্রিয়া শুরু করল আয়কর দফতর। যার মধ্যে রয়েছে ডিভিডেন্ড এবং কর রিফান্ড মিলিয়ে প্রায় ২,০০০ কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করার মতো পদক্ষেপ।

এ মাসের শুরুতে আয়কর দফতরের ১০,২৪৭ কোটি বকেয়া করের নোটিস কার্যকর করার উপর স্থগিতাদেশ চেয়ে আন্তর্জাতিক সালিশি কমিটিতে গিয়েছিল ব্রিটিশ সংস্থাটি। গত ৩১ মার্চের ওই নোটিসে সংস্থাকে বকেয়া কর মেটাতে বলা হয়। ১৫ জুনের মধ্যে তা না-দিলে বকেয়া উদ্ধারের জন্য পদক্ষেপ করা হবে বলেও জানায় দফতর। এই মামলাতে কেয়ার্ন হেরে যাওয়ার পরেই দফতর কর উদ্ধারের প্রক্রিয়া শুরু করেছে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট সূত্র।

গত ১৬ জুন সংস্থাকে পাঠানো নোটিসে কেয়ার্ন এনার্জির কাছে ডিভিডেন্ড হিসেবে যা বকেয়া রয়েছে, তা সরকারের ঘরে জমা দিতে কেয়ার্ন ইন্ডিয়াকে (বর্তমানে বেদান্ত) নির্দেশ দেয় আয়কর দফতর। যা আগামী দু’এক দিনের মধ্যে কেন্দ্রের কাছে জমা হবে বলে খবর সংশ্লিষ্ট সূত্রে। এর অঙ্ক ৬৫০ কোটি। বাকিটা কর রিফান্ড।

আরও পড়ুন: দেশে এফ-১৬ তৈরি করতে চুক্তি টাটাদের

কেয়ার্ন এনার্জির হাতে পূর্বতন ভারতীয় শাখা কেয়ার্ন ইন্ডিয়ার যে ৯.৮% শেয়ার আছে, তা নেওয়ার প্রক্রিয়াও ক’দিনের মধ্যে শুরু করা হবে বলে জানা গিয়েছে। ওই শেয়ার বাজেয়াপ্ত করে বিক্রি করা হবে।

আয়কর দফতরের নোটিসের কথা স্বীকার করেছে কেয়ার্ন এনার্জি। তবে এ নিয়ে আন্তর্জাতিক সালিশি আদালতে ‘লড়াই’ চালিয়ে যাওয়া হবে বলেই মন্তব্য করেছে তারা।